যৌতুকের দাবীতে নব পরিনীতা স্ত্রীকে তালাকের হুমকির মামলায় স্বামীকে স্বশরীরে হাজিরের নির্দেশ

নিউজ নিউজ

এডিটর

প্রকাশিত: ৮:৫৯ অপরাহ্ণ, আগস্ট ১০, ২০২০

মানবাধিকার প্রেস বিজ্ঞপ্তিঃ

অদ্য বৈবাহিক সম্পর্ক বহাল রাখার শর্তে ঢাকায় কলাবাগানে ১২৪৮ বর্গফুট ফ্ল্যাট লিখে দিতে নব পরিণীতা বধুকে চাপ সৃষ্টি করায় স্বামীর বিরুদ্ধে বিজ্ঞ আদালতে অভিযোগ দায়ের হয়েছে । বিজ্ঞ তৃতীয় মহানগর ম্যাজিস্ট্রেট মোঃ শফিউদ্দিন এর আদালতে যৌতুক নিরোধ আইন ২০১৮ এর ৩ ধারায় স্ত্রীর আনীত মামলায় বাদীর জবানবন্দী গ্রহণ, নথিপত্র পরিদর্শন ও বাদীর আইনজীবীদের বক্তব্য শুনানী শেষে আসামীকে আগামী ২৪/০৯/২০২০ ইং তারিখ স্বশরীরে উপস্থিত হতে সমন জারির নির্দেশ দেন ।

উল্লেখ্য সি এ অডিট ফার্ম হুদা ভাসি চৌধুরী এন্ড কোম্পানির ঢাকাস্থ কাওরান বাজার অফিসে কর্মরত সিনিয়র অডিটর মোঃ রবিউল হাসান নওশাদ (৩৬), পিতা- এ এস এম সালাহ্‌ উদ্দিন, বাসার ঠিকানা- রোড নং ০৫, ২১ নং ধানমন্ডি আ/এ, ঢাকার সাথে চট্টগ্রামের পূর্ব নাসিরাবাদ ২ নং গেইট এলাকার বাসিন্দা শামসুল হুদার ২য় কন্যা একটি বেসরকারী বিশ্ববিদ্যালয়ে স্কুল ম্যানেজার পদে কর্মরত নারী জাহানারা (ছন্মনাম) এর সাথে বিগত ১৩/০২/২০২০ ইং তারিখে চট্টগ্রাম শাহী জামে মসজিদে রেজিস্টার্ড কাবিনমূলে বিবাহ নিকাহ্‌ সামাজিকভাবে সুসস্পন্ন হয় ।

বরপক্ষের দাবী মোতাবেক চট্টগ্রামে সবচাইতে উপযোগী ও জৌলুসপূর্ণ অভিজাত কমিউনিটি সেন্টার ‘নেভী কনভেনশন’ সেন্টারে ১৭/০৭/২০২০ ইং তারিখের রাতের অনুষ্ঠানের জন্য কনে পক্ষ বুকিং দান করেন। এত কিছুর পরও গত ২৮/০২/২০২০ ইং তারিখে আসামীর কথা মতো বাদিনী চট্টগ্রাম হতে তার পিতা মাতা সহ ঢাকায় সাক্ষাৎ করতে গেলে আসামী পক্ষ স্পষ্টভাবে যৌতুক বাবদ ১,০৩,৮৫,০০০/- (এক কোটি তিন লক্ষ পঁচাশি হাজার) টাকা মূল্যের ঢাকার কলাবাগান এলাকায় ১২৪৮ বর্গফুটের একটি ফ্ল্যাট যৌতুক স্বরূপ দাবী করেন । যা আসামীর নামে লিখে দিতে হবে। যা বাদিনী পক্ষ অসম্ভব মর্মে জানিয়ে দেন । এজন্যে আসামী স্ত্রীকে তালাকের হুমকি দেয় ।

সর্বশেষ গত ১৯/০৪/২০২০ ইং তারিখে আসামী একটি ক্ষুদেবার্তা (এসএমএস) বাদিনীর মোবাইল নাম্বারে প্রেরণ করেন । আসামী যেইখানে তাদের দু’জনের মধ্যে ইতোমধ্যে, সম্পাদিত বিবাহ বন্ধন রহস্যজনক কারণে ছিন্ন করার অভিপ্রায় ব্যক্ত করেন । যা বাদিনী ও বাদিনীর পরিবারে উপর বিনা মেঘে বজ্রপাতের সমতুল্য হয় । বাদিনী মানবাধিকার সংগঠনের মাধ্যমে আপোষে বিরোধ নিস্পত্তি করার চেষ্টা করেও আসামীর অনাগ্রহের কারণে ও যৌতুকের দাবীতে অটল থাকায় বিরোধ নিস্পত্তি না হলে বাদিনী একান্ত বাধ্য হয়ে মামলা দায়ের করেন ।

বাদিনী পক্ষে মামলা পরিচালনা করেন এডভোকেট জিয়া হাবীব আহ্‌সান, এডভোকেট এএইচএম জসিম উদ্দিন চৌধুরী, এডভোকেট মোঃ সাইফুদ্দিন খালেদ, এডভোকেট মোহাম্মদ বদরুল হাসান প্রমুখ ।