মহেশখালীতে হত্যার ৯দিন পরেও রহস্য উদঘাটন হয়নি

নিউজ নিউজ

ভিশন ৭১

প্রকাশিত: ১০:৩৭ পূর্বাহ্ণ, জুলাই ৩০, ২০২০

এস. এম. রুবেল, মহেশখালীঃ কক্সবাজারের মহেশখালীতে নিজ ব্যবসা প্রতিষ্ঠানে খুন হওয়ার ৯ দিন পরেও ব্যবসায়ী জালাল হত্যার রহস্য উদঘাটন হয়নি। এ নিয়ে এলাকাবাসীদের মাঝে আতংক বিরাজ করছে। ঘটনার পর থেকে এলাকা জুড়ে থমথমে পরিস্থিতি সৃষ্টি হওয়ায় সন্ধ্যার পরে ঘর থেকে বের হতে ভয় পাচ্ছেন বলে এলাকাবাসীরা জানান।

জানা যায়, গত ২১ জুলাই দিবাগত রাতে অজ্ঞাত ব্যক্তিদের ছুরিকাঘাতে নিজ ব্যবসা প্রতিষ্ঠানে খুন হন মহেশখালী পৌরসভার চরপাড়া গ্রামের ফোরকান আহমদের পুত্র মোঃ জালাল। ঘটনার পর থেকে খুনের ঘটনার বিষয়ে পরিবার ও এলাকাবাসীদের কাছ থেকে ভিন্ন ভিন্ন বক্তব্য পাওয়া যাচ্ছে। তবে ঘটনার মূল্য রহস্য এখনো উদঘাটন হয়নি।

নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক একাধিক এলাকাবাসী জানান, নিহত জালালের ভাই জাহেদের কাছ থেকে এলাকার অনেকেই শর্ত সাপেক্ষ্যে ঋণ নিয়েছেন। সেই ঋণের কারণেই জালাল হত্যাকান্ড ঘটতে পারে। অপরদিকে ঘটনার দুইদিন আগে টেকনাফ থেকে চরপাড়া এলাকায় একটি রহস্যজনক ট্রলার এসেছে বলেও জানান তারা। ঐ ট্রলারের সাথে খুনের রহস্য জড়িত থাকার সম্ভাবনা আছে বলে মনে করছেন।

এলাকাবাসীরা আরো জানান, নিহত ব্যবসায়ী জালাল রাতে পরিচিত ও অপরিচিত কারোর জন্য ভিতর থেকে দোকানের তালা খুলেননা। এক্ষেত্রে ঘাতকরা জালালের একান্ত পরিচিতজন ছিল। কারণ দোকানের দরজায় জোর পূর্বক প্রবেশের কোন চিহ্ন ছিলনা। তাই নিকটতম আত্মীয়দের জিজ্ঞাসাবাদ করলে হত্যারহস্য উদঘাটন হতে পারে বলে তারা মনে করেন।

অপরদিকে নিহত জালালের পরিবারের সাথে কথা বলে হত্যাকান্ডের বিষয়ে কোন তথ্য পাওয়া যায়নি। তারা জানান, এলাকায় কারো সাথে তাদের কোন ধরণের শত্রুতা নেই। কেন এবং কারা জালালকে হত্যা করেছে সেই বিষয়ে তারা কিছু বলতে পারেননি।

এদিকে পুলিশ সূত্রে জানা যায়, হত্যাকান্ডের পর গুরুত্ব সহকারে তদন্ত করা হচ্ছে। ঘটনার বিষয়ে বেশ কয়েকজনকে জিজ্ঞাসাবাদ করা হয়েছে। তবে জড়িত থাকার ব্যাপারে কারো কোন তথ্য পাওয়া যায়নি। তবে বিশেষ গুরুত্ব সহকারে দ্রুত হত্যারহস্য উদঘাটন করে ঘাতকদের গ্রেপ্তারে পুলিশ সার্বক্ষণিক কাজ করছে।