রবিবার ২৫শে জুলাই, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ
আমাদের সম্পর্কে
যোগাযোগ

মহেশখালীতে কেন বিষপানে তিন সন্তান সহ মায়ের আত্মহত্যার চেষ্টা!

জুলাই ২২, ২০২১
প্রিন্ট
নিউজ ভিশন

এস. এম. রুবেল, মহেশখালীঃ

মহেশখালীতে তিন সন্তানকে বিষপান করিয়ে নিজেও বিষপানে আত্মহত্যার চেষ্টা করেছে মা। ২১ জুলাই রাত ১১টায় উপজেলার ছোট মহেশখালীর সিপাহীর পাড়া গ্রামে এ ঘটনা ঘটে। সে স্থানীয় ইয়ার মোহাম্মদের স্ত্রী। হাসপাতালে নেয়ার পথে ১৪ মাস বয়সী মায়নুর নামের এক শিশু মৃত্যুর কোলে ঢলে পড়েছে। মা মুরশিদা ও অপর দুই সন্তান রাকিব (৫) এবং নাফিজা (৩) কক্সবাজার সদর হাসপাতালে চিকিৎসাধীন আছে। খাবারের সাথে বিষ মিশিয়ে বাচ্চাদের খাওয়ানো হয় বলে প্রাথমিক ভাবে জানা যায়। এদিকে এই ঘটনা জানাজানি হলে সর্বত্র আলোচনা সমালোচনা চলছে।

শ্বশুরবাড়ির লোকজন জানিয়েছেন, কোরবানির ঈদের দিন ইয়ার মোহাম্মদের বোনের বাড়ি থেকে মাংস পাঠিয়েছিল। তা তার স্ত্রী মুরশিদা রাখতে অপারগতা প্রকাশ করে। এই ইস্যু নিয়ে স্বামী স্ত্রীর মধ্যে কথা-কাটাকাটি হয়। এর জের ধরে ঘরের দরজা বন্ধ করে তিন সন্তানকে খাবারের সাথে বিষ প্রয়োগ করে নিজেও বিষপানে আত্মহত্যার চেষ্টা করে মুরশিদা। পরে বিষের গন্ধ পেয়ে দরজা ভেঙ্গে তাদের উদ্ধার করে হাসপাতালে নেয়া হয়।

তবে এলাকাবাসীরা জানিয়েছেন, কোরবানীর মাংস নিয়ে এই তুচ্ছ ঘটনায় নিজের সন্তানদের মা বিষপান করিয়েছে তা বিশ্বাসযোগ্য হচ্ছে না। নিশ্চয় এর আড়ালে বড় কোন রহস্য লুকায়িত আছে। তবে শ্বশুরবাড়ির লোকজন এই বিষয়ে মুখ খুলতে রাজি হননি।

খোঁজ নিয়ে জানা যায়, গত রমজান মাসে ইয়ার মোহাম্মদ তার স্ত্রী মুরশিদাকে মৌখিকভাবে তিন তালাক প্রদান করে। তখন মুরশিদা বাড়ি থেকে বের হয়ে পাশের বাড়িতে চলে আসে। মুরশিদার মা-বাবা কেউ বেঁচে নাই। পরে শ্বশুরবাড়ির লোকজন ঐ তালাকের পরেও মৌলানা ডেকে পূণরায় মুরশিদাকে ইয়ার মোহাম্মদের সংসার করতে বাধ্য করায়। একটি সূত্র জানায়, মুরশিদাকে নানান ভাবে স্বামী সহ শ্বশুরবাড়ির লোকজন নির্যাতন চালাতো। সেই নির্যাতন সহ্য করতে না পেরেই মূলত সে সন্তান সহ আত্মহত্যার সিদ্ধান্ত নেয়।

তারা আরো জানান, শুধু কোরবানীর মাংস রাখা না রাখার ইস্যু নিয়ে ন্যাক্কারজনক এই বিষপানের ঘটনা ঘটেনি। নিশ্চয় এর আগেও মুরশিদা ও স্বামী-শ্বশুরবাড়ির লোকজনের মাঝে বড় ধরণের কিছু ঘটেছে৷ যা কোরবানীর মাংসের ইস্যুতে আত্মহত্যার রূপ নিয়েছে।

এদিকে মুরশিদার শ্বাশুড়ি সাংবাদিকদের প্রশ্নের মুখে তার ছেলে কর্তৃক পুত্রবধুকে তালাকের কথা স্বীকার করলেও, কেন সেই তালাকের ঘটনা ঘটেছিল, সেই বিষয়ে কিছুই জানাননি।

সর্বশেষ
সর্বাধিক পঠিত
logo

নিউজ ভিশন বাংলাদেশের একটি পাঠক প্রিয় অনলাইন সংবাদপত্র। আমরা নিরপেক্ষ, পেশাদারিত্ব তথ্যনির্ভর, নৈতিক সাংবাদিকতায় বিশ্বাসী।

সম্পাদক ও প্রকাশক : মুহাম্মদ রফিকুল ইসলাম

ঢাকা অফিস: ইকুরিয়া বাজার,হাসনাবাদ,দক্ষিণ কেরাণীগঞ্জ,ঢাকা-১৩১০।

চট্টগ্রাম অফিস: একে টাওয়ার,শাহ আমানত সংযোগ সেতু রোড,বাকলিয়া,চট্টগ্রাম |

সিলেট অফিস: বরকতিয়া মার্কেট,আম্বরখানা,সিলেট | রংপুর অফিস : সাকিন ভিলা, শাপলা চত্ত্বর, রংপুর |

+8801789372328, +8801829934487 newsvision71@gmail.com, https://newsvisionbd.com
Copyright@ 2021 নিউজ ভিশন |
গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকারের তথ‌্য মন্ত্রণালয়ে আবেদিত ।