ঢাকা২১শে মে, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ
আজকের সর্বশেষ সবখবর

মফিজুলের ছোট গল্প- “লোকেমুখে সাহিত্যবিদ”

প্রতিবেদক
নিউজ ভিশন

মে ১০, ২০২২ ৬:২১ অপরাহ্ণ
Link Copied!

করিম ভেবেছিলো স্ব-গ্রামে একজন প্রবীন মেধাবী সুদক্ষ একজন সাহিত্যবিদ লোক আছে! ” এটা অন্য লোকদের কাছে বললেও বা প্রশাংসাভুত করলেও তাঁরা মুখ মোচড় দিয়ে চলে যেতো তাও তাঁরা ‘ব’ কলম লোকজন এমন কি কিছু শিক্ষিত শ্রেণীর লোক একই ভঙ্গি করে বেড়ায়। জনে জনে রহিম তাঁর প্রশাংসাভুত করতে করতে প্রচার প্রসার আন্তজার্তিক পরিমন্ডলে পৌঁছানোর ব্যবস্থা করত।

করিম ভাবতো লাগলো আসলেই প্রবীন সাহিত্যবিদের প্রশাংসার কথাটা শুনলে মানুষ ওয়াখ থু থু মারে এমনকি উল্টা দাঁত কামড়ায় আর বলে ঐ ভন্ডর কথা বলবি না ফের ; ওর নিজ রক্তের বন্ধন সাথে প্রতারণা করছে এমন কি নিজ গ্রামের জনগনের সাথে , একে রেখে অন্যকে ধরে এমনকি নিজ মাটির বিক্রয় করার জন্য একে অপরের সাথে লেনদেন করে রক্তের বন্ধ বিছিন্ন করে। লোকে বলতো ফিসফিসে__
তোমার মতো প্রচারকদের সাথেও বেইমানি করবে ব্যাটা লেখে রাখো।
বৎস তোমার সাথে করবে না এটার কোনো গ্রানটি আছে? তুমি দুএক বছর যাক তাইলে দেখতে পাবা।

১ বছর পর যখন রহিম ঐ প্রবীন লোকটির সাথে কথা হ্রাস পায় তখন থেকে কু’ সাহিত্যবিদ অন্য লোকের কুকর্মের লোকদের সাথে সম্পার্ক বজায় রাখে দৃঢ় ভাবে। সময়ক্রমে এমনকি সে জানে না যে তাঁদের
কুসম্পর্কে মুসকি মিষ্টটি হাসি দিয়ে বহুত কিছু নিয়ে যাওয়া ধান্দা করতেছ!! রহিম সহজসরল ছেলেটা বাস্তবিক ভাবে সে তীব্রখর অন্যায়ের বিরুদ্ধে যথেষ্ট ভূমিকা রাখে সমাজে চেষ্টা করে, লোকজনকে সর্বোচ্চ চূড়ায় পৌঁছাইতে তাঁর দ্বিধা করে না। রহিম তাও জানে প্রবীণ লোকটির ভিটে মাটি চুসে খাওয়ার ধান্দাবাজিদের সাথে নতুনভাবে হাত মিলাচ্ছে বাট তাঁর মুখে স্বাধীনতা পরিবাররর কেয়ার টা কমে যাওয়া আজ সে অবাক হয়ে তাকিয়ে থাকে আর চেয়ে চেয়ে দেখে আর অনুভব করে আমাকে মানা করেছিলো ঐ লোকগুলো সত্তি ছিলো। রহিম ভাবে যতই কুসাহিত্য হোক তাঁর ক্ষতি এক বিন্দু করতে দিবো না।

:::::::::

সম্পর্কিত পোস্ট