ভিবিডি চট্টগ্রাম জেলার প্লাস্টিক দূষনরোধ বিষয়ক কর্মশালা অনুষ্ঠিত

নিউজ নিউজ

এডিটর

প্রকাশিত: ৭:২৫ পূর্বাহ্ণ, অক্টোবর ১৫, ২০২০

———–

বাংলাদেশে পরিচালিত একটি গবেষণায় দেখা গেছে, এই দেশের তরুণ এবং যুব জনগোষ্ঠী পরিবেশের জন্য ক্ষতিকর প্লাস্টিকের দূষণের জন্য সবচেয়ে বেশি দায়ী।

প্লাস্টিকের ক্ষতিকর প্রভাব সম্পর্কে সচেতন করার লক্ষ্যে ও প্লাস্টিক দূষণ নিজ নিজ অবস্থান থেকে কমিয়ে আনার লক্ষ্যে ভিবিডি – চট্টগ্রাম “প্লাস্টিক পলিউশানঃ দ্যা রোল অফ ইউথ” শিরোনামে একটি কর্মশালার আয়োজন করে।

পরিবেশের জন্য মারাতœক হুমকিস্বরূপ একটি জিনিস হলো প্লাস্টিক। প্লাস্টিক এমন একটি পণ্য যা অপচনশীল, মাটিতে মিশে যেতে বা পূর্বের অবস্থায় ফিরে আসতে প্রায় সাড়ে চারশো বছর বা তারও অধিক সময় লেগে যেতে পারে। আর যেহেতু এটা পচনশীল নয়, তাই এটির ক্ষতিকর রাসায়নিক পদার্থ বায়ুমন্ডলের গ্যাস সাথে বিক্রিয়া করে পরিবেশে দীর্ঘস্থায়ী ক্ষতিকর প্রভাব সৃষ্টি করে, যা উদ্ভিদকুল, প্রাণীকূলের জন্য অত্যন্ত ক্ষতিকর।

ভিবিডি চট্টগ্রাম কতৃর্ক আয়োজিত কর্মশালায় প্লাস্টিকের এসব

নেতিবাচক দিক সম্পর্কে জানানো হয়। এই ওয়ার্কশপটি পরিচালনা করেন ভিবিডি চট্টগ্রাম জেলার প্রেসিডেন্ট মোঃ কাউসার হোসেন।

ওয়ার্কশপটিতে প্রায় ৯০ জন তরুণ ভলান্টিয়ার উপস্থিত ছিলো। তাদেরকে নেতিবাচক দিক সম্পর্কে অবগত করা ছাড়াও তাদেরকে ৪টি টিমে ভাগ করে তাদের থেকে তারা নিজ নিজ অবস্থান থেকে কিভাবে প্লাস্টিক দূষণ কমিয়ে আনা যায়, সে সম্পর্কে ধারণা নেওয়া হয় এবং সবশেষে তাদের উপস্থাপনা এবং বাস্তবায়নযোগ্য ধারণাগুলোর উপর ভিত্তি করে শ্রেষ্ঠ টিম ঘোষণা করেন ডিবিভি চট্টগ্রাম ডিভিশনের সম্মানিত প্রেসিডেন্ট শওকত আরাফাত।

এসময় আরও উপস্থিত ছিলেন ভিবিডি চট্টগ্রাম ডিস্ট্রিক্টের ফরমার ট্রেজারার আসিফুর রহমান খান, ভিবিডি চট্টগ্রামের অ্যালুমনাই নাবিদ নেওয়াজ ও সাফিন আরশাদ।

এই ওয়ার্কশপটির মাধ্যমে তরুণরা প্লাস্টিক ও প্লাস্টিক ব্যবহারের নেতিবাচক দিক সম্পর্কে জেনে সিঙ্গেল ইউজ প্লাস্টিকের ব্যবহার কমিয়ে আনবে এবং এভাবেই বাংলাদেশে আস্তে আস্তে প্লাস্টিক দূষণের হার কমে আসবে।