ঢাকা২০শে মে, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ
আজকের সর্বশেষ সবখবর

ভালো পথে ফিরে আসি!!

প্রতিবেদক
নিউজ ভিশন

ফেব্রুয়ারি ১০, ২০২১ ১:০৩ পূর্বাহ্ণ
Link Copied!

বর্তমান আমাদের সমাজে এমন কিছু বিষয় আছে। যা আমরা প্রায় সকলেই জানি সেগুলো খারাপ! সেগুলো কোনো ভালো মানুষ করে না। কিন্তু দুঃখজনক হলেও বাস্তবতা হচ্ছে , সেই খারাপ কাজগুলো খারাপ জানার পরও আমরা সে কাজগুলো করে থাকি ! তা থেকে বিরত থাকি না। যেমন ;একটা বিষয় সিগারেট! সিগারেট কভারেই লেখা থাকে “ধুমপান স্বাস্থের জন্য ক্ষতিকর “ধুমপান ক্যান্সারের কারণ”। এমন কোনো ধুমপানকারী নেই, যে এই ক্ষতির কথা জানে না। অথচ তারা এটা জেনেও কিন্তু সিগারেট খায়। সুতরাং যাদের ইচ্ছা তারা এই উপদেশ গ্রহণ করে, সিগারেট খাওয়া ছেড়ে দেবে। আর যে এই ক্ষতির কথা জেনেও সিগারেট খাবে। ফলে স্বাভাবিকভাবেই তার ফুসফুসে ক্যান্সার হয়ে, সে একদিন মারা যাবে। “এতে সে ব্যক্তি সিগারেট কোম্পানীকে দোষী বানাতে পারে না যে, আপনার সিগারেট কভারের গায়ে লেখা ছিল বলেই আমার ক্যান্সার হয়েছে। না! বরং সে জেনেও বিরত হয়নি বলেই বিভিন্ন রোগে আক্রান্ত হয়েছে।

ধূমপান_ও_জর্দার_ক্ষতিকারক_দিকঃ
মদপানের ক্ষতির অনেকগুলোই ধুমপান ও জর্দা সেবনের দ্বারাও অর্জিত হয়ে থাকে।

যেমন: গবেষণায় প্রমাণিত হয়েছে যে, ধুমপান ও নেশাদ্রব্য গ্রহণের ফলে ক্ষুধা ও হজমশক্তি নষ্ট হয়, চেহারা বিকৃত হয়, কর্মক্ষমতা কমে যায়, স্থায়ীভাবে জ্ঞানবুদ্ধি হ্রাস পায়, রক্ত দূষণ হয়, স্নায়ু দুর্বল হয়ে আসে।ইত্যাদি।

লিভার ও কিডনী বিনষ্ট হয়ে যায়, বিভিন্ন রোগের প্রাদুর্ভাব দেখা দেয়, শ্বাসনালী ক্ষতিগ্রস্ত হয়, স্থায়ীভাবে কফ ও কাশি দেখা যায়, যৌনশক্তি হ্রাস পায় ও স্বাভাবিক যৌন স্পৃহা কমে যায়, শ্রবণশক্তি কমে যায়, দাঁতে, মুখে ও ফুসফুসে কালো আবরণ তৈরি হয়, পুরুষত্বহীনতা, ক্যান্সার, এইডস এবং অনিবার্য মৃত্যুর সম্ভাবনা বেড়ে যায়।

ফুসফুসে ক্যান্সার, শরীরে তাপ, প্রদাহ, জ্বালাপোড়া ইত্যাদি দীর্ঘ মেয়াদী রোগব্যাধী দেখা যায়। কন্ঠনালীতে ক্যান্সার হয়, রক্তনালীগুলো দুর্বল হয়, স্মরনশক্তি কমিয়ে দেয় এবং মনোবল দুর্বল করে দেয়। ইন্দ্রিয় ক্ষমতা দুর্বল করে; বিশেষ করে ঘ্রাণ নেয়া এবং স্বাদ গ্রহণের ক্ষমতা লোপ পায়। দৃষ্টিশক্তি লোপ পায়, হৃদরোগে আক্রান্ত হয়। এতোগুলো সমস্যার সে সম্মুখীন হবে, জেনেও সে তা পান করে ও খায়। তা থেকে সে বিরত থাকে না।

এবার আসুন ১৪ ফেব্রুয়ারি ভালবাসা দিবস। আমরা জানি বিয়ের আগে প্রেম করা হারাম। তারপরও আমরা তাই করি। আমিও করছি প্রেম। এবং বহু ভালো মানুষের খবরও জানি প্রেম করার। প্রেম শুধুই করে না ফেইসবুকের মানুষে। খবর নিলে দেখবেন তলে তলে ৯০% প্রেমিক প্রেমিকা। প্রেম করেনি এমন মানুষ ফেইসবুকে পাবেন। বাস্তবে খুঁজলে পাওয়া মুশকিল। ১০০০ এক দুই জন পেলেও পেতে পারেন। নিজের বিবেকের কাছে জানুন, উত্তর পেয়ে যাবেন। নিজেরাই প্রেম করবো আবার আমরাই সাধু সাঝবো! আর নামদারি হুজুর হয়ে ফতোয়া দিবো! প্রেম করা জায়েজ নাই । আর তলে তলে আমিও প্রেম করবো!! এটা কখনোই কল্যাণ বয়ে আনবে না।
এজন্য আমরা যতদিন না মন থেকে ভালো হতে পারবো, ততদিন উপরে ভালো সেজে লাভ নেই।

দুঃখজনক হলেও সত্য, এখন ৯০% শিক্ষিত ছেলে মেয়েদের ফেইসবুক আইডি আছে। তারা আইডিতে বেহায়া দিবস বলবে, আর ভালবাসা দিবসও পালন করবে। যা কখনোই কাম্য নয়। আসুন আগে আমরা নিজেরা ভালো হই, তারপর সমাজ এমনিতেই ভালো হয়ে যাবে।

হ্যা, আমরা কেউ সাধু বা দুধে ধোয়া তুলসি পাতা না। ভুল সবারই হতে পারে। আমারও হতে পারে। তাই আসুন এসকল কাজ করা থেকে তওবা করি, তওবা করে ভালো পথে ফিরে আসি, তাহলেই সমাজ, দেশ ও বিশ্ব থেকে তথাকথিত ভালোবাসা দিবস নামে বেহায়া দিবস বন্ধ হবে। আল্লাহ তায়ালা আমাাদের তাওফিক দান করেন। আমিন।

ডাঃ রোকসানা ইয়াসমিন রোকেয়া,
ময়মনসিংহ, বাংলাদেশ।

সম্পর্কিত পোস্ট