বিপদসীমার উপর দিয়ে বইছে তিস্তার পানি

নিউজ নিউজ

এডিটর

প্রকাশিত: ১:০৩ পূর্বাহ্ণ, জুন ২১, ২০২০

ডিমলা(নীলফামারী)প্রতিনিধি :

উজানের পাহাড়ী ঢল ও ভারী বর্ষনের ফলে নদীতে পানি বৃদ্ধি পেয়ে বিপদসীমার ১৩ সেন্টিমিটার উপড় দিয়ে বইছে তিস্তার পানি।
শবিার সকাল থেকে দুপুর পয্যন্ত নীলফামারীর ডিমলা উপজেলার ডালিয়া পয়েন্টে তিস্তা নদীর পানি বিপদসীমার (৫২ দশমিক ৭৩ মিটার) ১৩ সেন্টিমিটার উপর দিয়ে প্রবাহিত হচ্ছে। পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে তিস্তা ব্যারাজের সবকটি জলকপাট খুলে দিয়েছে পানি উন্নয়ন বোর্ড (পাউবো)। পানি উন্নয়ন বোর্ড ডালিয়া বিভাগের বন্যা পূর্বাভাস ও সতর্কীকরণ কেন্দ্র জানায়, শুক্রবার বিকেল পয্যন্ত তিস্তার পানি ডালিয়া পয়েন্টে বিপদসীমার ১৫ সেন্টিমিটার নিচ দিয়ে প্রবাহিত হলেও রাত ১২টার পর উজানের ঢলে ও ভারি বৃষ্টি পাতের কারনে তা দ্রুত গতিতে বৃদ্ধি পায়। এবং শনিবার দুপুর পয্যন্ত ৬২ মিলিমিটার বৃষ্টিপাত রেকর্ড করা হয়েছে।

উপজেলার টেপাখড়িবাড়ি ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান ময়নুল হক বলেন, তিস্তার পানি বৃদ্ধি পাওয়ায় টেপাখড়িবাড়ি ইউনিয়নের পূর্বখড়িবাড়ী, চরখড়িবাড়ী ও টাপুর চরের শতাধিক পরিবার পানিবন্দি হয়ে পড়েছে। তিস্তা পাড়ের মানুষজন বন্যার কারনে সতর্কাবস্থায় রয়েছে। সেইসাথে চরের বাদাম ক্ষেতের ব্যাপক ক্ষতি হয়েছে। ডালিয়া (পাউবো)ও নির্বাহী প্রকৌশলী রবিউল ইসলাম বলেন, উজানের ঢলে ও ভারি বৃষ্টিপাতের কারনে শনিবার তিস্তার পানি বিপদসীমার ১৩ সেন্টিমিটার উপড় দিয়ে প্রবাহিত হচ্ছে। পানি বৃদ্ধি পাওয়ায় পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রনে তিস্তা ব্যারাজের সবকটি জলকপাট খুলে দেয়া হয়েছে এবং আমরা সতর্কবস্থায় রয়েছি।