বন্যায় ক্ষতিগ্রস্ত নাগরপুরের এমপি সড়ক

নিউজ নিউজ

এডিটর

প্রকাশিত: ৪:২৭ অপরাহ্ণ, আগস্ট ২, ২০২০

মোঃ আজিজুল হক, নাগগরপুর (টাঙ্গাইল)প্রতিনিধিঃ

টানা দুই সপ্তাহের বেশি সময় ধরে চলমান বন্যায় বিপর্যস্ত হয়ে পড়েছে টাংগাইলে নাগরপুরের এমপি সড়ক যোগাযোগ। এ সড়ক দিয়ে উপজেলার সহবতপুরের প্রায় ১৫ হাজার মানুষের নিত্য চলাচল। চলমান বন্যায় ক্ষতিগ্রস্ত হওয়ায় চরম বিপাকে পড়েছে ক্ষতিগ্রস্ত এই ৪ কিলোমিটার সড়ক পারের ২২ গ্রামের সকল পেশার মানুষ। এ দিকে কোরবানির ঈদে ঘরে ফেরা মানুষ অপস্তুুত ছিল এ বেহাল রাস্তা দেখায়। ভোগান্তির মধ্য রয়েছে অতিথিরাও।

সহবতপুরের ব্যবসায়ী মোঃ জাকির হোসেন জানান, পেটের দায়ে ঘরে বসে থাকতে পারি না। একে তো করোনা তারপর আবার বন্যা তারপরও বন্যায় ক্ষতিগ্রস্ত বেহাল রাস্তা। এ যেন মরার উপর খড়ার ঘা। আমরা বাজারে যামু কেমনে প্রশ্ন ওই ব্যবসায়ীর।

এ বিষয়ে সহবতপুর বাজার বনিক সমিতির সাধারন সম্পাদক মোঃ জিকরুল হাসান পিয়াস বলেন, টাঙ্গাইল আরিচা রাস্তার এমপি সড়ক হইতে সহবতপুর বাজার পর্যন্ত রাস্তাটি তিন জায়গায় ভাঙ্গার কারনে যান বাহন চলাচল বন্ধ রয়েছে এতে করে বাজারের ব্যবসায়ীরা মালামাল আনতে পারছে না এমন কি কোন কম্পানীর গাড়ীও আসছে না বাজারে যার ফলে ব্যবসা ও দৈনন্দিন জীবন যাপনে সমস্যার সৃষ্টিসহ ব্যবসায়ীরা আর্থিক এবং ব্যবসায়িক ভাবে ক্ষতিগ্রস্ত হচ্ছে। দ্রুত সড়ক সংস্কার করে নিরাপদ ভাবে চলাচলের ব্যবস্থা নেওয়ার জোর দাবী আমাদের। একাধিক পথচারীদের সাথে কথা বলে আরও জানা যায়, এ রাস্তায় ব্রিজ হুমকির মুখে। জীবন নিয়ে জীবীকার জন্য বের হয় অপর দিকে বাশের সাকো করে সাইকেল নিয়ে অতি কষ্টে পার হতে হয়। এ ভোগান্তির শেষ কোথায়।

এ বিষয়ে স্থানীয় ইউপি চেয়ারম্যান তোফায়েল আহমেদ বলেন, বন্যায় সড়ক ক্ষতিগ্রস্ত হওয়ায় সকলেরই কষ্ট হচ্ছে। তাই বন্যার পরবর্তী সময়ে যেন দ্রæত এসকল ক্ষতিগ্রস্ত রাস্তা ব্রিজ কালভার্টের মেরামত শুরু করে তার জন্য উপজেলা প্রকৌশলীসহ প্রশাসনকে অবহিত করা হয়েছে।

উপজেলা প্রকৌশলী মোঃ মাহবুবুর রহমান বলেন, ওই এলাকার ৪ কিলোমিটার সড়ক বন্যায় বেহাল দশা বিষয়টি অবগত আছি। এ বিষয়ে উর্ধ্বতন কর্মকতার কাছে জানানো হয়েছে।