পথশিশুদের “আলোক আলয়” হাবিবুন নাহার মিমি

নিউজ নিউজ

ভিশন ৭১

প্রকাশিত: ১১:২৫ পূর্বাহ্ণ, আগস্ট ২৫, ২০২০

আসসালামু আলাইকুম…

মানবিক দায়িত্ববোধের দায়ভার কেউ এড়াতে পারে না। কিছু কিছু মানুষ আছে যারা জন্ম থেকেই তুচ্ছতাচ্ছিল্যের শিকার, অনাদর আর অবহেলা তাদের নিত্যসঙ্গী। জীবনের অমিয় সুধার ধরাছোঁয়ার বাইরে তাদের বাস। স্বপ্ন দেখা ভুলে গেছে তারা। জন্মটা তাদের দোষ নয়, দোষ আমাদের এড়িয়ে যাওয়া। অথচ একটু চাইলেই আমরা পারি ওদের ক্লান্ত মুখে হাসি ফোটাতে। এই অনুভূতি থেকেই এগিয়ে এসেছে একদল স্বাপ্নিক যাত্রীর প্রাণের প্লাটফর্ম ‘আলোক আলয়’।

পথশিশুদের কে না-চিনে! কেউ দূর দূর করে তাড়িয়ে দেয় আর কেউবা সহানুভূতি প্রকাশ করে। বিপরীতে ইচ্ছা করলেই পারি এমন কোমলমতি শিশুদের স্বপ্ন শিখাতে, অংশ নিতে পারি তাদের জীবন গড়ার কাজে।

আলোক আলয় থেমে থাকেনি। বাড়িয়ে দিয়েছে জীবন গড়ার হাত। সংগঠনের প্রতিটি সদস্যের আত্মনিবেদিত অক্লান্ত পরিশ্রমের ফলাফল স্বরূপ দুইটি প্রজেক্ট “করোনা ও ঈদুল ফিতর, ঈদুল আজহা” সফলতার সাথে শেষ হয়েছে। নতুন পোষাক, খাবার আর নগদ অর্থ পেয়ে ওদের হাসিমাখা মুখগুলি দেখলে হৃদয় জুড়িয়ে যায়।
যেসকল শিশুদের মুখে হাসি ফোটানো হয়েছে তাদেরকে নিয়মিত মনিটরিং- এও রাখছে আলোক আলয়। স্বপ্ন গড়ার কারিগর হিসেবে আরো এগিয়ে যাক; সুচিন্তিত পরিকল্পনায় সুদূরপ্রসারী হোক আলোক আলয়ের যাত্রা।
আপনিও হতে পারেন আমাদের সফরসঙ্গী। আপনার একটুখানি সাহায্য নিষ্পাপ শিশুগুলোকে একটু স্বস্তি দেবে। অন্তত একটা বেলার খাবার খুঁজতে ওদের পথে পথে ঘুরতে হবে না।
একটু ভাবুন তো, আপনার সন্তান বা ছোট ভাই-বোনকে ওদের জায়গায়! কেমন লাগতো আপনার ওদের মতো ছেঁড়া কাপড় পড়ে যদি আপনার আদরের ছোট্ট বোনটার রাস্তায় ফুল বিক্রি করতে হতো?
এখনও কি দেখেও না দেখার ভান করে থাকবেন?
যদি না চান, তবে যোগ দিন আলোক আলয়ের সাথে। রঙিন করুন পথশিশুদের ধূসর জীবন।

আলোকিত জীবনের প্রত্যাশায়,
আলোক আলয়।