পঞ্চগড়ে প্রভাবশালীর মিথ্যা মামলার প্রতিবাদে সংবাদ সম্মেলন

নিউজ নিউজ

এডিটর

প্রকাশিত: ১০:৩৮ অপরাহ্ণ, আগস্ট ৯, ২০২০

আটোয়ারী প্রতিনিধি :

পঞ্চগড়ের আটোয়ারী উপজেলার পুরাতন আটোয়ারী এলাকায় ইসমাঈল হোসেনের জমিতে গাছের ডালপালা কাটাকে কেন্দ্র ওই এলাকার বাসিন্দা মুক্তিযোদ্ধা শামসুল হুদা নামে এক ব্যাক্তি ইসমাঈল হোসেন ও তার ছেলেদের উপর মিথ্যা হত্যা মামলা দায়ের করার প্রতিবাদে সংবাদ সম্মেলন করেছে ভুক্তভোগী ওই পরিবার ।

আজ রোববার ( ৯ আগস্ট) দুপুরে জেলা রিপোর্টার্স ক্লাবে সংবাদ সম্মেলন করেন।

ভুক্তভোগী পরিবার ইসমাঈল হোসেনের পক্ষে তার স্ত্রী শাহিনা বেগম ও তার ছেলেরা সংবাদ সম্মেলনে বলেন,গত ১৯ মে জেলার আটোয়ারী উপজেলার পুরাতন আটোয়ারী গ্রামের মুক্তিযোদ্ধা সামসুল হুদা তার ছেলে ও স্বজনরা অন্যায়ভাবে তাদরে জমিতে লাগানো আম গাছের ডালপালা কেটে নিয়ে সামসুল হুদা তার জমিতে রাখে। এদিকে পর দিন ইসমাঈল হোসেনের ছেলে সহিদুল ইসলাম বিষয়টি জানতে গেলে তাকে মারপিট করে সামসুল হুদা ও তার ছেলেসহ স্বজনরা। সাইদুলের চিৎকারে তার মা ও বাবা ইসমাইল হোসেন ছুটে গেলে সমসুল হুদার ছেলে,ভাই ও স্বজনরা তাদের উপর আরও হামলা ও মারপিট করে জখম করে। হামলার একপর্যায়ে মুক্তিযোদ্ধা সমসুলের ভাই জয়নুল হক ইসমাইলকে লাঠি দিয়ে আঘাত করতে গিয়ে ভুলবসত লাঠির আঘাত ইসমাইলকে না লেগে সামসুলের ছেলে আমিনুল ইসলাম আমিনের মাথায় লাগে পরে সে রংপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা যায়। এদিকে সামসুল ও তার ছেলেদের হামলার শিকার হয়ে ইসমাঈল হোসেন ও তার ছেলেরা হাসপাতালে ভর্তি হয় । পরে মুক্তিযোদ্ধা সামসুল হুদা, ইসমাইল ও ও তার স্ত্রী এবং তিন ছেলের নামে মিথ্যা হত্যা মামলা করে কিন্তু ঘটনার দিন ইসমাঈল হোসেনের বাকি ছেলে নুর আলম ও স্থানীয় দুই জন নুর ইসলাম নুর আলমগীর ঘটনাস্থলে ছিল না বলে জানান ভুক্তভোগী পরিবারটি।

এবিষয়ে ভুক্তভোগী ইসমাঈল হোসেনের স্ত্রী শাহিনা বেগম জানান, সামসুল হক ও তার ছেলেসহ স্বজনরা প্রভাব খাটিয়ে বেআইনি ভাবে আমার স্বামীর জমিতে লাগানো আম গাছের ডাল জোরপূর্বক ভাবে অবৈধভাবে কেটে নিয়ে যায় । আমার ছেলে জানতে গেলে তারা আমার ছেলেকে মারধর করে পরে আমরা সেখানে গেলে তারা আমার ছেলে ও স্বামীকে মারে । মুক্তিযোদ্ধা সামসুলের ভাই জয়নুল হক তার ভাতিজা আমিনুর ইসলাম আমিনকে লাঠি দিয়ে মেরে আবার আমার স্বামী ও সন্তানদের নামে মিথ্যা হত্যা মামলা দায়ের করছে। আমরা নিরুপায় হয়ে আজ সংবাদ সম্মেলন করেছি ।

সামসুল হুদার দায়ের করা হত্যা মামলায় দুজন জামিনে থাকলেও ইসমাইল হোসেন জেল হাজতে রয়েছে।