নিজের বাল্য বিয়ে বন্ধ করল পেশকার বাড়ীর হাটহাজারী সরকারি কলেজের প্রথম বর্ষের ছাত্রী

নিউজ নিউজ

ভিশন

প্রকাশিত: ৯:৫৬ অপরাহ্ণ, সেপ্টেম্বর ২৭, ২০১৯

মোহাম্মদ আসাদুজ্জামান শাকিল ,হাটহাজারী প্রতিনিধি

সকল আয়োজন সম্পন্ন, দু পরিবারের মেহমানে বিয়ে ভরপুর। কিছুক্ষণ পর পর অাসবে বর যাত্রী।কন্যা যাবে নতুন শশুড় বাড়ী। উপস্থিত অাপ্যায়ন চলছে কনে পরিবারের মেহমানদের। এর অাগের রাত হয়েছে গায়ে হলুদ।অালোক সজ্জায় ছিল পুরো বাড়ী। এমনাবস্থায় কন্যা নিজে ফোন করে হাটহাজারী উপজেলা নির্বাহী অফিসার। রুহল অামিনকে অবহিত করে। ওই মেয়েটি বলে তার এখনো প্রাপ্ত বসয় ১৮ হয়নি। শুক্রবার(২৭ সেপ্টেম্বর) চট্টগ্রামের হাটহাজারী উপজেলার গুমানমর্দ্দন ইউনিয়নে পেশকার বাড়ীতে নিজের বিয়ে বন্ধ করার ঘটনা প্রাপ্ত সংবাদে প্রকাশ । বয়স ১৮ না হওয়ায় হাটহাজারীর ইউএনও মোহাম্মদ রুহুল আমীনকে ফোন করে কলেজছাত্রী জান্নাতুল মাওয়া (১৭)। সে হাটহাজারী সরকারি কলেজের উচ্চমাধ্যমিক প্রথম বর্ষের ছাত্রী।

ইউএনও রুহুল অামিন তাৎক্ষণিক উপজেলা সহকারী ভুমি কমিশনার সম্রাট খীসাকে অবহিত করা মাত্রই দুপুর দুইটার দিকে হাটহাজারী পুলিশের সঙ্গীয় ফোর্স নিয়ে বিয়ে বাড়ীতে উপস্থিত হয়ে বিয়ে বন্ধ করে দেয়। প্রাপ্ত বয়স না হওয়ায় মেয়ে বিয়ে দেয়ার চেষ্টা করা হলে মেয়ের পরিবারকে ৩০ হাজার টাকা জরিমান করা হয় বলে মুঠোফোন সহকারী ভুমি কমিশনার সম্রাট খীসা জানান।

উপজেলা নির্বাহী অফিসার প্রতিবেদককে ঘটনার সত্যাতা স্বীকার করে বলেন মেয়ে নিজে ফোন করে জানালে বাল্য বিয়েটি বন্ধ করা হয়। মেয়ের ১৮ বছর পূর্ণ না হওয়া পর্যন্ত বিয়ে দেবেনা বলে মুছলেকা দেন তারা।