নাগরপুরে সবজির মূল্য স্থিতিশীল, কাঁচাবাজার পরিদর্শন শেষে ইউএনও

নিউজ নিউজ

এডিটর

প্রকাশিত: ৯:১৩ পূর্বাহ্ণ, অক্টোবর ১৮, ২০২০

মো : আজিজুল হক নাগরপুর প্রতিনিধি:

চলতি বছরে অতি বৃষ্টি ও অনাকাংক্ষিত স্থায়ী বন্যার কারনে ফসলি জমির অনেক মৌসুমি ফসল সহ শাক সবজি উৎপাদন ব্যহৃত হয়েছে। আর এ কারণেই সারাদেশে বেড়েছে সবজির দাম। টাঙ্গাইলের নাগরপুরে উপজেলা নির্বাহী অফিসার সিফাত-ই-জাহান গতকাল শুক্রবার দ্রব্যমূল্যের স্থিতিশীলতা ফিরিয়ে আনতে কাঁচা বাজার পরিদর্শন করেন।

পরিদর্শন শেষে তিনি উপস্থিত গণমাধ্যমকর্মীদের বলেন, পরিদর্শন করে মনে হলো বাজার কিছুটা স্থিতিশীল। তিনি আরো বলেন, জনসাধারণের কাছ থেকে বিগত কিছু দিন ধরে দাম বেশী নেওয়া হচ্ছে এমন অভিযোগের কারনে নাগরপুর উপজেলা প্রশাসনের পক্ষে এ অভিযান পরিচালনা করা হচ্ছে। অথচ গত কয়েকদিনে বাজারে শাক সবজির দাম বেড়েছে কয়েকগুন। সরেজমিনে গিয়ে দেখা গেছে, ১৫ টাকা দরের পেঁপে ৩০/৩৫ টাকা, ১০০ টাকা কেজি দরের কাঁচা মরিচ ২৪০ টাকা, পেঁয়াজ ৯০/১০০ টাকা, লাউ মাঝারি ৬০-৮০ টাকা, বেগুন ৮০-১০০ টাকা, আলু ৩০-৪৫/৫০ টাকা সহ শীতের আগাম সবজি সাধারণ মানুষের ক্রয়সীমার বাইরে। উপজেলা প্রশাসনের এ অভিযান চলাকালীন সময়ে ব্যবসায়ীদের মূল্য তালিকা প্রদর্শন ও পাইকারী ক্রেতাদের অতিরিক্ত মজুদ না করা এবং আলু ক্রয়ের রশিদ সংরক্ষণ করতে নির্দেশ প্রদান করা হয়। এ সময় সরকারী নির্ধারিত মূল্য প্রতি কেজি আলু ৩০ টাকার পরিবর্তে ৪৫-৫০ টাকায় বিক্রি হলেও কোন জরিমানা আদায় বা কোন শাস্তি প্রদান করেননি মোবাইল কোর্ট।