বৃহস্পতিবার ৯ই ডিসেম্বর, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ
আমাদের সম্পর্কে
যোগাযোগ

দুর্ভোগের এই পথে নিগ্রহ দুই ইউনিয়নের মানুষ

অক্টোবর ৫, ২০২১
প্রিন্ট
নিউজ ভিশন

হুমায়ন কবির,পেকুয়া ;

কক্সবাজারের পেকুয়া উপজেলার পেকুয়ার-উজানটিয়া সড়কের ভাঁঙা সড়ক নিয়ে মানুষের দুর্ভোগ দুর্দশার শেষ নেই। অসহনীয় ভোগান্তির স্বীকার উজানটিয়া ও মগনামা ইউনিয়নের ৪০ হাজারের মানুষ।

সড়কটি দিয়ে প্রতিদিন যাতায়াত করে প্রায় ২০ হাজারের বেশি মানুষ। কাটা পারি ব্রিজ থেকে সোনালী বাজার পর্যন্ত ৭টি কালবার্ট আছে,তারমধ্যে দুইটির অবস্থা ভালো থাকলেও ৫টির অবস্থা খুবই নাজুক। সংশ্লিষ্ট টিকাদার সংস্কারের নামে রাস্তার যে ভালো অংশগুলো মানুষ গাড়ি নিয়ে স্বাচ্ছন্দ্যে যাতায়াত করতে পারতেন সেখানে আর যাতায়াত করতে পারছেনা কারণ তারা ভালো রাস্তাটার পিচ ও কেঁটে ফেলছে। পুরো সড়কের গায়ে খানাখন্দে ভরা।

নিত্যদিন ঘটছে দুর্ঘটনা। প্রতিদিন জীবনের ঝুঁকি নিয়ে যাতায়াত করছে দুই ইউনিয়নের মানুষ। রাস্তার এই দুর্দশায় ক্ষুব্ধ পথচারীরা। অতিদ্রুত সড়কের মেরামত না করলে বড় ধরনের দুর্ঘটনা ঘটবে বলে মনে করছে এলাকাবাসী।

পেকুয়া-উজানটিয়া সড়কটি কাটা পারি ব্রিজ থেকে করিমদাদ মিয়ার বাড়ি পর্যন্ত কোটি টাকা ব্যয়ে সংস্কারের জন্য বরাদ্দ হয়েছিল। করিমদাদ মিয়ার বাড়ি থেকে সোনালী বাজার পর্যন্ত বিভিন্ন অনিয়ম করে সংস্কার করলেও সোনালী বাজার থেকে কাঁটা পারি ব্রিজ পর্যন্ত রাস্তার কোনো কাজ করেননি সংশ্লিষ্ট ঠিকাদারি প্রতিষ্ঠান। এর আগে সংস্কার কাজে অনিয়ম করলে এলাকাবাসী বাঁধা দেয়। এরপর সংস্কার কাজ অসম্পূর্ণ রেখে লাপাত্তা ওই ঠিকাদারি প্রতিষ্ঠান।

এলাকাবাসীরা জানান, রাস্তা থেকে উঠানো পুরানো পাথরের সঙ্গে আবর্জনা যুক্ত বালু মিশিয়ে রোলার করা,লবণের পানি দিয়ে কাজ করা এবং বাজেট অনুযায়ী কাজ না করায় বাঁধা দিয়ে প্রশাসন বরাবর অভিযোগ দিয়েদিলাম আমরা।
কিন্তু ৫/৬ মাস ধরে এই ঠিকাদার কাজ না করে কোথায় পালিয়ে গেছেন। প্রতিদিন যাতায়াত করতে কষ্ট হচ্ছে আমাদের। এই রাস্তার কাজ তদারকীতে পেকুয়া সড়ক বিভাগের কর্মকর্তাদের গাফলতি আছে বলেও স্থানীয়রা মনে করেন।

অটোরিকশা চালক আব্দু রশিদ বলেন, রাস্তার হাল এতটাই খারাপ যে, চলতে গিয়ে লক্কর জক্কগাড়ির যন্ত্রপাতি ভেঙে যাওয়ার জোগাড়! খানাখন্দে জল জমে যাওয়ায় রাস্তা ঠাওর করাই দুষ্কর হয়ে দাঁড়ায়। গাড়িঘোড়া তো বটেই, পথচারীরাও পথ চলতে সমস্যায় পড়েন। অথচ প্রশাসনের কোনও হেলদোল নেই। তাই আমরা প্রশাসন ও সাংবাদিকদের সহযোগিতা কামনা করছি।

উজানটিয়া ও মগনামার পথযাত্রীরা অভিযোগ করেন; এই রাস্তা অনেক ভালো ছিলো শুধু কালভার্ট গুলো খারাপ ছিল, সংস্কার করার জন্য আগের ভালো পিচ গুলো খোলে দুর্ভোগ বাড়িয়েছে আমাদের। এই রাস্তা দিয়ে ১বার যাতায়াত করলে ৫দিন নাড়াচাড়া করতে পারি না। অতি দ্রুত এই সড়কের মেরামত চাই আমরা।

প্রকৌশল অধিদপ্তর পেকুয়া শাখার সহকারী প্রকৌশলী আব্দুল আলিম বলেন; কাটাপারি ব্রিজ থেকে উজানটিয়া করিমদাদ মিয়া বাড়ি পর্যন্ত ৮ কিলোমিটার রাস্তা নির্মাণ প্রকল্পের সাড়ে ১৭ কোটি টাকার কাজটি পান ময়মনসিংহের ঠিকাদার শামীম এন্টারপ্রাইজ। তার কাছ থেকে কাজটি কিনে করছেন আবু মুনছুর এন্টারপ্রাইজ অর্থাৎ টিকাদার ফরিদ।

গত বর্ষামৌসুমে প্রচুর বৃষ্টি হওয়ায় কারণে কাটা পারি ব্রিজ থেকে সোনালী বাজার পর্যন্ত রাস্তা সংস্কারের কাজটি বন্ধ ছিল,এখন আমরা টিকেদার কে সংস্কারের কাজ শুরু করার জন্য নোটিশ পাঠিয়েছি। কয়েকদিনের মধ্যেই আবার কাজ শুরু হবে।

টিকাদার মোহাম্মদ ফরিদের সাথে যোগাযোগ করতে চাইলে তার মোবাইলে সংযোগ পাওয়া যায়নি।

সর্বশেষ
সর্বাধিক পঠিত
logo

নিউজ ভিশন বাংলাদেশের একটি পাঠক প্রিয় অনলাইন সংবাদপত্র। আমরা নিরপেক্ষ, পেশাদারিত্ব তথ্যনির্ভর, নৈতিক সাংবাদিকতায় বিশ্বাসী।

সম্পাদক ও প্রকাশক : মুহাম্মদ রফিকুল ইসলাম

ঢাকা অফিস: ইকুরিয়া বাজার,হাসনাবাদ,দক্ষিণ কেরাণীগঞ্জ,ঢাকা-১৩১০।

চট্টগ্রাম অফিস: একে টাওয়ার,শাহ আমানত সংযোগ সেতু রোড,বাকলিয়া,চট্টগ্রাম |

সিলেট অফিস: বরকতিয়া মার্কেট,আম্বরখানা,সিলেট | রংপুর অফিস : সাকিন ভিলা, শাপলা চত্ত্বর, রংপুর |

+8801789372328, +8801829934487 newsvision71@gmail.com, https://newsvisionbd.com
Copyright@ 2021 নিউজ ভিশন |
গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকারের তথ‌্য মন্ত্রণালয়ে আবেদিত ।