দক্ষিণ আফ্রিকায় সন্ত্রাসীদের গুলিতে বাংলাদেশী ব্যবসায়ী নিহত।

নিউজ নিউজ

এডিটর

প্রকাশিত: ১:২৩ পূর্বাহ্ণ, ফেব্রুয়ারি ১০, ২০২০

এম এইচ ইমরান চৌ:চট্টগ্রাম আনোয়ারা থেকে)
দক্ষিণ আফ্রিকায় বাসায় ঢুকে সন্রাসীরা বাংলাদেশী যুবক মুরাদ খান [৩২]কে রাতে ঘুমন্ত অবস্থায় গুলি করে নির্মমভাবে হত্যা করে।
নিহত মুরাদ খান দ:চট্টগ্রামের আনোয়ারা চাতরী চৌমোহনি মুহম্মদপুর গ্রামের অবসরপ্রাপ্ত পুলিশ কর্মকর্তা মাবুদ খানের দ্বিতীয় পুত্র। নিহতের বড় ভাই মারুফ খান যানান, রোববার বাংলাদেশ সময় সকাল ৯ টায় এ ঘটনা ঘটে। নিহত মুরাদ এবং মারুফ ১৩/১৪ বছর ধরে দক্ষিণ অাফ্রিকায় এক সাথে ব্যাবসা করে আসছেন।প্রতিদিনের ন্যায় গতকাল রাতে ব্যবসার কার্যক্রম বন্ধ করে বাসায় চলে যায় দুই ভাই। রাতে বাসায় ঢুকে ঘুমন্ত অবস্থায় অাফ্রিকার অস্ত্রধারী সন্রাসীরা মুরাদের বুকে এবং পিঠে এলোপাথাড়ি গুলি করে পালিয়ে যায় বলে যানান।
এ সময় মারুফ খান ছিলো একি বাসার অন্য রুমে। পরে গুলির শব্দ শুনে ঘটনাস্থলে বাসার মালিক কর্মচারীসহ সবাই জড়ো হয়। স্হানীয়রা তাকে উদ্ধার করে নিকটস্থ হাসপাতালে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘুষণা করন। পরে ঘটনাস্থল থেকে আফ্রিকার পুলিশ তার লাশ উদ্ধার করে ময়না তদন্ত করেন।
আগামী ৫/৬ দিনের মধ্যে তার লাশ দেশে আনার প্রস্তুতি নিচ্ছে বলে যানান নিহত মুরাদের পিতা মাবুদ খান ও তার স্বজনরা। তবে এখনো পুরো ঘটনার নিশ্চয়তা সঠিক যানা যায়নি এবং এ খুনের পিছনে কোন রহস্য লুকিয়ে আছে বলে জানান নিহত মুরাদের পরিবার।
নিহত মুরাদ চলতি বছরের এপ্রিল মাসে দেশে ফিরে বিবাহ করে তার একাকীত্ব জীবনের অবসান ঘটার কথা ছিলো বলে যানান তার শোকার্ত পরিবার।