ঢাবিতে তিনদিনব্যাপী নাট্যোৎসব শুরু আজ

নিউজ নিউজ

ভিশন ৭১

প্রকাশিত: ১:৩০ পূর্বাহ্ণ, অক্টোবর ১, ২০১৯

ঢাবি প্রতিবেদক: ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্র শিক্ষক কেন্দ্রে(টিএসসি) ১ লা অক্টোবর ২০১৯ তারিখে আয়োজিত হতে যাচ্ছে গার্ডিয়ান লাইফ ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় নাট্য সংসদ নাট্যোৎসব-২০১৯। ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় নাট্য সংসদের আয়োজনে তিনদিনব্যাপী এই নাট্যোৎসবটি আগামী ৩ রা অক্টোবর পর্যন্ত চলবে। সোমবার এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তির মাধ্যমে এ তথ্য জানিয়েছেন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় নাট্য সংসদের সভাপতি সনোয়ারুল হক সনি ও সাধারণ সম্পাদক রফিকুল ইসলাম সবুজ।

বাংলাদেশের সংস্কৃতি চর্চার কেন্দ্রবিন্দু ও অঘোষিত রাজধানী ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে সময়ের প্রয়োজনে প্রতিষ্ঠার ৯৫ বছর পর “মঞ্চ হোক মুক্তির পথ” এই মূলমন্ত্র নিয়ে যাত্রা শুরু করে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় নাট্য সংসদ। থিয়েটার চর্চাকে কেবলমাত্র একটি বিভাগের শিক্ষার্থীদের মধ্যে সীমাবদ্ধ না রেখে বরং তাকে বিশ্ববিদ্যালয়ের আগ্রহী সকল শিক্ষার্থীদের মাঝে ছড়িয়ে দিতে নাট্য সংসদ ২০১৬ সালের ১ ডিসেম্বর যাত্রা শুরু করে। যাত্রা শুরুর পর হতে অদ্যাবধি নাট্য সংসদ দুইটি নাট্যোৎসব, তিনটি পূর্ণাঙ্গ প্রযোজনা ও কয়েকটি পথনাটক মঞ্চস্থ করে। এরই ধারাবাহিকতায় আগামী ০১-০৩ অক্টোবর ২০১৯ তারিখে আয়োজিত হতে যাচ্ছে গার্ডিয়ান লাইফ ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় নাট্য সংসদ নাট্যোৎসব-২০১৯।

উৎসবের উদ্বোধনী দিনে মঞ্চস্থ হবে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় নাট্য সংসদের প্রযোজনা ওয়ান বাংলাদেশ নিবেদিত নাটক “ইনডেমনিটি”। দ্বিতীয় দিন মঞ্চস্থ হবে মহাকাল নাট্য সম্প্রদায়ের “নীলাখ্যান” এবং সমাপনী দিনে মঞ্চস্থ হবে আরশিনগরের নাটক “রহু চন্ডালের হাড়”। প্রতিদিন সন্ধ্যা ৭:০০ থেকে নাটকগুলো মঞ্চস্থ হবে।

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের মাননীয় উপাচার্য অধ্যাপক ড. মোঃ আখতারুজ্জামান সন্ধ্যা ৬:৩০ ঘটিকায় উৎসবের উদ্বোধন করবেন। প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত থাকবেন যুব ও ক্রীড়া মন্ত্রণালয়ের মাননীয় প্রতিমন্ত্রী মোঃ জাহিদ আহসান রাসেল। অনুষ্ঠানের সভাপতিত্ব করবেন নাট্য সংসদের সভাপতি মোঃ সানোয়ারুল হক।

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় নাট্য সংসদের সাধারণ সম্পাদক রফিকুল ইসলাম সবুজ বলেন,‌‌‘সমাজ বাস্তবতার সত্যিকার দর্পণ ও যৌক্তিক সমালোচক হয়ে বিভিন্ন সামাজিক সমস্যা নিয়ে পথ নাটক ও মঞ্চ নাটকের প্রযোজনার পাশাপাশি উৎসব আয়োজনের মাধ্যমে বিশ্ববিদ্যালয়ের সাংস্কৃতিক চর্চায় নতুন মাত্রা যোগ করবে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় নাট্য সংসদ।’