টেকনাফে রইক্ষ্যং খাল সংরক্ষণ বিষয়ক এক কর্মশালা অনুষ্টিত

নিউজ নিউজ

ভিশন ৭১

প্রকাশিত: ১:৩৫ পূর্বাহ্ণ, ডিসেম্বর ১৬, ২০১৯
ফরহাদ আমিন:
কক্সবাজারের টেকনাফে রইক্ষ্যং খাল সংরক্ষণ বিষয়ক এক কর্মশালা অনুষ্টিত হয়েছে।রবিবার সকালে উপজেলা কানজর পাড়া উচ্চ বিদ্যালয়ের কক্ষে ইউএনএইচসিআর এর আর্থিক সহায়তায় সেন্টার ফর ন্যাচারাল রিসোর্স স্টাডিস (সিএনআরএস) ইমপ্রুভড ন্যাচারাল এনভায়রনমেন্ট এন্ড পিচফুল কোএকজিসটেন্স ফর রিফিউজিস এন্ড হোস্ট কমিউনিটিস প্রকল্পের মাধ্যমে এ কর্মশালা আয়োজন করা  হয়।সিএনআরএস লাইভলী হুড অফিসার শাহ কামালহোসেনের সঞ্চালনায় হোয়াইক্যং ইউপি চেয়ারম্যান নুর আহাম্মদ আনোয়ারীর সভাপতিত্বে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন,উপজেলা পরিষদের ভাইস চেয়ারম্যান মৌঃ ফেরদৌস আহমদ জমিরী।বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন,উপজেলা মৎস্য কমকর্তা দেলোয়ার হোসেন,উপজেলা সহকারী কৃষি সম্প্রসারণ কর্মকর্তা মো:জাহাঙ্গীর আলম।আরো উপস্থিত ছিলেন,উপজেলা সমন্বয়কারী প্রিয়াল মুৎসুদ্দি,কৃষি অফিসার আবুবক্কর ছিদ্দিক,লাইভলীহুড ফেসিলিটেটর মো: শেখ ফরিদ প্রমুখ।কর্মশালায় রইক্ষ্যং খাল সংরক্ষণ গুরুত্ব নিয়ে ও জেলে ও কৃষকদের নিয়ে পরামর্শ মূলক আলোচনা করা হয়।
প্রধান অতিথি’র বক্তব্য উপজেলা পরিষদের ভাইস চেয়ারম্যান মৌঃ ফেরদৌস আহমদ জমিরী বলেন,পাহাড়ে ঝর্ণার পানির বাদ দেওয়ার রইক্ষ্যং খালে পানির সংকেত দেখা দেয় এতে কৃষকদের ভোগান্তি সৃষ্টি হয়েছে।রোহিঙ্গাদের বর্জ্য ফেলার কারণে এ পানি গুলো দূষিত হচ্ছে।সেই কারণে কৃষকদের ফসলে ব্যাপক ক্ষতি হচ্ছে।এই দূষিত পানির কারণে নানান রোগ হচ্ছে।তিনি আরো বলেন, এরআগে অক্সফাম রোহিঙ্গা জনগোষ্ঠীর জন্য বিশুদ্ধ পানি সরবরাহের জন্য তারা পাহাড়ের ঝর্ণার পানিতে বাঁধ নির্মাণ করে।রোহিঙ্গারা খালে বিভিন্ন আবর্জনা ফেলার কারণে দূষিত পানি হয়ে যায় রইক্ষ্যং খালের পানি।ব্যবহারের অনুপযোগী হওয়াতে এতে স্থানীয় জনগোষ্ঠী কৃষক ও জেলেদের বিভিন্ন সমস্যা দেখা দিয়েছে।আমরা সকলে সমন্বয় করে এই সমস্যা থেকে কিভাবে উত্তরণের পথ বের করা যায়।তা চেষ্টা করতে হবে।
রইক্ষ্যং খাল সংরক্ষণ বিষয়ে বিভিন্ন কলাকৈশল নিয়ে উক্ত কর্মশালায় আলোচনা করা হয়।