ঢাকা১৬ই মে, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ
আজকের সর্বশেষ সবখবর

জৈন্তাপুরে গৃহ বধুর রহস্যজনক মৃত্যু স্বামী ও ভাসুর আটক।

প্রতিবেদক
নিউজ ভিশন

এপ্রিল ১২, ২০২২ ২:০০ পূর্বাহ্ণ
Link Copied!

জৈন্তাপুর (সিলেট) প্রতিনিধি :

জৈন্তাপুরে কেন্দ্রী হাওর গ্রামের গৃহবধু নিজ বসত ঘরে অগ্নিদ্বগ্ধ হয়ে মৃত্যু বরণ করেছেন ৷ গৃহবধুর মৃত্যু নিয়ে দেখা দিয়েছে মিশ্র প্রতিক্রীয়া ৷ মৃত্যুর রহস্য অনুসন্ধানে পুলিশের উদ্বর্ধতন কর্তৃপক্ষ সহ সিআইডি তদন্ত দল মাঠে ৷ এঘটনায় পুলিশ স্বামী ও ভাসুরকে প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদের জন্য আটক করা হয়েছে ৷
এলাকাবাসী সূত্রে জানাযায়, ১০ এপ্রিল রোববার দিবাগত রাত অনুমান সাড়ে ৯টায় উপজেলা জৈন্তাপুর ইউনিয়নের কেন্দ্রী গ্রামের ফখরুল মিয়ার ছেলে সাব্বির আহমদের বসত ঘরে অগ্নি সংযোগের ঘটনা ঘটে ৷ এঘটনায় সাব্বির আহমদের স্ত্রী গোয়াইনঘাট উপজেলা মোহাম্মদপুর গ্রামের জাহের মিয়ার মেয়ে জাহানারা আক্তার (২২) অগ্নিদ্বগ্ধ হয় ৷ অগ্নিকান্ডের ঘটনাদেখে স্থানীয়রা এগিয়ে এসে গুরুত্বর অগ্নিদ্বগ্ধ অবস্থায় জাহানারাকে উদ্ধার করে সিলেট এমএজি হাসপাতালে প্রেরণ করা হয় ৷ তার শারিরিক অবস্থার খারাপ হওয়ায় কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে দ্রুত ঢাকায় প্রেরণ করেন ৷ ঢাকা নেওয়ার পথে গৃহবধুর মৃত্যু হয়৷
এদিকে ঘটনার সংবাদ পেয়ে জৈন্তাপুর থানা পুলিশ দ্রুত ঘটনাস্থল পরিদর্শন করে জাহানারার স্বামী সাব্বির আহমদ ও ভাসুর জুবায়ের আহমদকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য আটক করে৷
এলাকাবাসী নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক একাধিক ব্যক্তি জানান, সাব্বির চোরাকারবার ব্যবসা পরিচালনা করতে গিয়ে ভারতীয় সীমান্ত বাহিনীর হাতে আটক হয়ে ভারতে ২বৎসর কারা ভোগ করে দেশে ফিরে ৷ টাকা পয়সা না থাকায় সে পুনরায় চোরাকারবার ব্যবসা পরিচালনা করতে পারছে না ৷ এনিয়ে স্ত্রীকে চাপদেয় শুশুরবাড়ী হতে টাকা এনে দিতে ৷ এনিয়ে তাদের মধ্যে প্রায় ঝগড়া বিবাদ হতে শুনা যায়৷ এছাড়া সাব্বিরের বড় ভাই জুবায়ের এর সাথে তার স্ত্রীর অবৈধ সম্পর্ক দাবী করে ৷ এই নিয়ে কিছু দিন হতে সংসারিক কলহ চলে আসছে ৷
নিহত জাহানারা বেগমের পিতা জাহের মিয়ার দাবী, টাকার জন্য তার মেয়েকে চাপ দিত সাব্বির৷ টাকা এনে দিতে সম্মতি না হলে তার উপর মিথ্যা অপবাদ দিতে থাকে এবং পেট্রাল দিয়ে পুড়িয়ে মারার হুমকী দিয়ে আসছে ৷ তার প্রেক্ষিতে সাব্বির পরিকল্পিত ভাবে তার মেয়েকে প্রেট্রোল ঢেলে আগুন লাগিয়ে হত্যা করে ৷ তিনি আরও বলেন, একটি ঘরে পরিবার অনেক সদস্য বসবাস করে ৷ এছাড়া রাতের বেলা সবাই ঘরে অবস্থান করবে ৷ কিন্তু সে সময় আমার মেয়ে ও ঘর ছাড়া পরিবারের অন্যান্য সদস্যদের কিছু হয়নি ৷ এঘটনায় হতে তিনি দাবী করেন পরিকল্পিত ভাবে জানাহারাকে অগ্নিদ্বগ্ধ করে হত্যা করেছে ৷ আমি আইনের আশ্রয় নিয়েছি ৷ মেয়ে হত্যার সুষ্ট বিচারের দাবী জানাই ৷
এদিকে ঘটনার সংবাদ প্রাপ্ত হয়ে জৈন্তাপুর মডেল থানা পুলিশ ঘটনাস্থল হতে গত রাতেই স্বামী ও ভাসুরকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য আটক করা হয় ৷
এদিকে ঘটনার রহস্য উদঘাটন করতে ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছেন পুলিশের উদ্বর্তন কর্মকর্তাগণ ৷ এছাড়া সিআইডি বিশেষ টিম রহস্য উদঘাটনের জন্য বিভিন্ন আলামত সংগ্রহ করছে ৷
এবিষয়ে জৈন্তাপুর মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) গোলাম দস্তগীর আহমদ বলেন, তাৎক্ষনিক ভাবে স্বামী ও ভাসুরকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য আটক করি ৷ উদ্বর্তন কর্তৃপক্ষ সহ সিআইডি বিষয়টি তদন্ত করছে ৷ লাশ উদ্ধার করে পোষ্ট মের্টামের জন্য সিলেট এম.এ.জি ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে প্রেরন করা হয়েছে ৷ তবে তদন্ত শেষ হলে বুঝা যাবে দূর্ঘটনায় মৃত্যু নাকি পরিকল্পিত হত্যা ৷ তবে জাহানারার পিতা বাদী হয়ে অভিযোগ করবেন বলে জানান ৷

মো. এম এম রুহেল

সম্পর্কিত পোস্ট