জুবায়েদ মোস্তফার কবিতা-মানুষ

নিউজ নিউজ

এডিটর

প্রকাশিত: ১০:৩৭ অপরাহ্ণ, জুন ২০, ২০২০

————————
মোরা মানুষ
ধরনীর সর্বকালের সর্বশ্রেষ্ঠ জীব
মোরা চাইলেই কঠোর পরিশ্রমে
প্রজ্বলিত করতে পারি বংশের প্রদ্বীপ।

যুগে যুগে মানুষ করেছে বিশ্বজয়
অজানাকে জেনেছে,অদেখাকে দেখেছে
কোন প্রতিকূলতায় মানুষকে পিছু হটাতে পারে নি
ভয়কে করেছে সর্বত্র জয়।

আদিম যুগের কলা কৌশলের হয়েছে পতন
নিত্য নতুন দুঃসাধ্য জিনিষের হচ্ছে উদ্ভাবন।
সবই মানুষের অমর কীর্তি
প্রয়োজনের তাগিদে করছে নব নব সৃষ্টি।

দুঃসাহস করে মানুষ অবতরণ করেছে চাঁদে
সুষ্টু ভাবে অভিযান সফল হয়েছে
পড়তে হয় নি কাউকেও মৃত্যুর ফাঁদে।
সিন্ধু সেচে মুক্তা আহরণের তরে
জীবন ঝুঁকি নিয়ে যায় সমুদ্রের তল দেশে।
সকল শঙ্কা কাটিয়ে ফিরে আসে বীরের বেশে।

পৃথক হোক জাত,বর্ণ কিংবা ধর্ম
মানুষের আসল পরিচয় বহন করবে তার কর্ম।
বিপদে আপদে সকলে কাঁধে কাঁধ রেখে
সম্পাদন করতে হবে অসাধ্য সকল কর্ম।

ধম,বর্ণ নিয়ে নেয় কোন ভেদাভেদ
মোরা মানুষ
পৃথিবীতে নেয় তার চেয়ে বড় কোন অভেদ।
অবলম্বন করতে হবে সাম্যের নীতি
তাহলে বজায় থাকবে সকল সম্প্রদায়ের মাঝে সম্প্রীতি।
কোন বিপদ পিছু টলাতে পারবে না
কোন কাজেই আসবে না সংশয় কিংবা ভীতি।

জন্মসূত্রে মানুষ হয়েছি
সেটাই যদি কেবল হয় পরিচয়।
এরই পদস্পর্শে পদে পদে
পরিলক্ষিত হয় নৈতিক অবক্ষয়।

কর্মে কান্ডে ছোঁয়া পায় হিংস্রতা আর পষুত্বের
মানুষ হয়ে কেন বিসর্জন দিচ্ছি মনুষ্যত্বের?
সমাজের এদিকে ওদিকে শুধুই বর্বরতা
কোথায় হারিয়ে গেল আজ আমাদের মানবিকতা?
চারদিকে শোনা যায় শুধু অন্যায়,অত্যাচার আর অবিচার
কেনই বা লুঠে নিবে সর্বস্ব, ক্ষমতার দাপট যার।

সংবাদপত্র খুললেই দেখা যায় শুধু ব্যভিচার
সর্বশ্রেষ্ঠ মানুষ রূপে জন্ম নিয়ে
পশুর ন্যায় কেন করছে পাপাচার।
প্রতিটি ধাপেই আজ কেবল জুলুম
দিশেহারা হয়ে আর্তনাদ করছে মজলুম।

মানুষে মানুষে করে চলছে দ্বন্দ্ব
স্বার্থের জন্য মনে হয় হয়ে যাচ্ছে সবাই অন্ধ
মানুষ হয়ে মানুষ ওপর নিক্ষেপ করে পারমাণবিক
সৃষ্টির সেরা জীব নির্বাচিত হয়ে
কেমনে হতে পারে এতটা অমানবিক।

বর্জন করে সকল অমানবিক আর বর্বরতা
দৃঢ় মনে পোষণ করতে হবে উদারতা
মানুষের মাঝে নিহিত অজস্র দোষ
তা সত্ত্বেও হতে হবে মানুষের মত মানুষ।
—————-
লেখকঃ জুবায়েদ মোস্তফা
শিক্ষার্থী, লোকপ্রশাসন বিভাগ
বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়।