জামালপুরের ভারত সীমান্তবর্তী এলাকায় সাড়ে ৩হাজার পিস ইয়াবাসহ মাদক ব্যবসায়ী আটক

নিউজ নিউজ

এডিটর

প্রকাশিত: ২:২৫ পূর্বাহ্ণ, সেপ্টেম্বর ২৭, ২০১৯

রোকনুজ্জামান সবুজ জামালপুর ঃ

জামালপুর ও কুড়িগ্রামের ভারত সীমান্তবর্তী এলাকা দিয়ে সম্প্রতি মাদক ব্যবসায়ীরা ভারতীয় ইযাবা বড়ি নিয়ে বাংলাদেশে প্রবেশ করতে গিয়ে একের পর এক পুলিশ ও বিজিবি জওয়ানদের হাতে ধরা পড়ছে। বৃহস্পতিবার দুপুরে ৩ হাজার ৫৩৩ পিস ইয়াবা বড়িসহ বাবু মিয়া ওরফে গোলজার (২৫) নামের এক মাদক ব্যবসায়ীকে আটক করেছে বর্ডার গার্ড বাংলাদেশ (বিজিবি) সদস্যরা।

বকশীগঞ্জের কামালপুরের বিজিবি কোম্পানী কমন্ডার সুবেদার আবদুর রাজ্জাক জানান, গোপন সংবাদের ভিত্তিতে বৃহস্পতিবার দুপুরে বকশীগঞ্জের ধানুয়া কামালপুর ইউনিয়নের মির্ধাপাড়া মোড়ে অবস্থান নেয় বিজিবি সদস্যরা। পরে তারা সেখানে পলি পরিবহনের ্একটি গাড়ীতে তল্লাশি চালিয়ে ইয়াবা বড়িসহ মাদক ব্যবসায়ী বাবু মিয়া ওরফে গোলজারকে আটক করেন। আটককৃত বাবু মিয়া কুড়িগ্রাম জেলার রৌমারী উপজেলার বেপারীপাড়া গ্রামের মৃত ফয়জার রহমানের ছেলে। আটক মাদক ব্যবসায়ী বাবু মিয়া বিজিবিকে জানিয়েছে ওই ইয়াবা বড়ি গুলো ঢাকায় পাচার করার কথা ছিল।

জামালপুর ৩৫ বিজিবির অধিনায়ক লে.কর্নেল এসএম আজাদ জানান, ইয়াবা বড়ি উদ্ধারের ঘটনায় বকশীগঞ্জ থানায় মাদক দ্রব্য নিয়ন্ত্রণ আইনে একটি মামলা দায়েরের প্রস্তুতি চলছে এবং মামলা দায়েরের পর আটক মাদক ব্যবসায়ী বাবু মিয়াকে আদালতে প্রেরণ করা হবে।

উল্লেখ্য, দেওয়ানগঞ্জের পাররামরামপুর ইউনিয়নের তারাটিয়া গ্রামের মতিউর রহমানের নার্সারীর সামনে গত ১৪ সেপ্টেম্বর একটি সিএনজিতে তল্লাশী চালিয়ে ২০ হাজার পিস ইয়াবা বড়ির একটি বিশাল চালানসহ মো. সিয়াম নামের একজন মাদক ব্যবসায়ীকে আটক করেছেন স্থানীয় তদন্ত কেন্দ্রের পুলিশ। আটকৃত ২০ হাজার পিস ইয়াবা ট্যাবলেটের আনুমানিক মূল্য ৬০ লাখ টাকা বলে জানাগেছে। এছাড়াও গত ১৭ সেপ্টেম্বর সকালে বিজিবির জওয়ানরা বকশীগঞ্জের ধানুয়া কামালপুর ইউনিয়নের মির্ধাপাড়া মোড়ে অবস্থান নিয়ে ঢাকাগামী রিফাত পরিবহনের একটি যাত্রীবাহী বাসে তল্লাশি চালিয়ে ১ হাজার ৮৯৭ পিস ইয়াবা বড়িসহ মাজেদা বেগম নামের এক মাদক ব্যবসায়ীকে আটক করা হয়েছে। আটক ওই নারী মাদক ব্যবসায়ীও ইয়াবার চালান নিয়ে ঢাকায় যাচ্ছিল বলে সে বিজিবির কাছে স্বীকার করেছেন।