ছাত্রলীগ নেতা ইমন হত্যা মামলায় ৭ জনকে অভিযুক্ত

নিউজ নিউজ

এডিটর

প্রকাশিত: ৪:৪৬ পূর্বাহ্ণ, জুলাই ২৭, ২০২০

নিলয় ধর,স্টাফ রিপোর্টার(যশোর) :

যশোর জেলা ছাত্রলীগের সাবেক সহসভাপতি মনোয়ার হোসেন ইমন হত্যা মামলায় ৭ জনকে অভিযুক্ত করে চার্জশিট দিয়েছেন সিআইডি পুলিশ। মামলার তদন্ত শেষে আদালতে এই চার্জশিট জমা দিয়েছে তদন্তকারী কর্মকর্তা সিআইডির পরিদর্শক হারুন-অর রশিদ।

অভিযুক্ত আসামিরা হলো শহরের বেজপাড়া মসজিদ বাড়ি রোডের মৃত মাহামুদ মিয়ার ছেলে কামরুজ্জামান লিটন ওরফে ভাংড়ি লিটন, বেজপাড়া বুনোপাড়ার মৃত আহম্মেদ আলীর ছেলে আসাদুজ্জামান ওরফে বুনো আসাদ, বেজপাড়ার বিহারী কলোনির শাহাবুল আলম বাবলুর ছেলে খোরশেদ আলম, রাঙ্গামাটি গ্যারেজ এলাকার মোসলেম উদ্দিনের ছেলে জামাল হোসেন শিপন ওরফে লম্বা শিটন, খড়কি কলাবাগান এলারকার ফায়েক শেখের ২ ছেলে সাগর শেখ, রমজান শেখ ও শংকপুর সারগোডাউন এলাকার কাজী তৌহিদ ওরফে তহিদুল ইসলামের ছেলে রাকিব ওরফে ভাইপো রাকিব।

মামলা সূত্রে জানা যায়, ২০১৭ সালের ২৮ অক্টোবর রাতে ইমন বেজপাড়া গোলগোল্লার মোড়ে সালামের ফার্ণিচারের দোকানের সামনে বসে লুডু খেলছিলো। রাত ১১ টার দিকে একদল সন্ত্রাসী ঘটনাস্থলে এসে ইমনকে লক্ষ্য করে ৩টি গুলি করে পালিয়ে যায়। ২টি গুলি বুকে ও ১টি গুলি ডান কাধে লেগে ইমন মাটিতে পড়ে যায়। গুরুতর আহত ইমনকে উদ্ধার করে স্থানীয়রা যশোর ২৫০ শয্যা জেনারেল হাসপাতালে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষনা করে।

এই ব্যাপারে নিহতের পিতা আনোয়ার হোসেন বাদী হয়ে অপরিচিত ১০/১২ জনকে আসামি করে কোতয়ালি থানায় ১টি হত্যা মামলা করে। মামলাটি প্রথমে থানা পুলিশ পরে( সিআইডি) পুলিশ তদন্তের দায়িত্ব দেওয়া হয় । আসামিদের মাদক ব্যবসা করতে নিষেধ করায় পরিকল্পনা করে ইসমকে হত্যা করা হয়েছিলে। এই মামলার দীর্ঘ তদন্তকালে আটক আসামিদের দেওয়া তথ্য ও স্বাক্ষীদের বক্তব্যে হত্যার সাথে জড়িত থাকায় ওই ৭ জনকে অভিযুক্ত করে আদলতে এই চার্জশিট জমা দিয়েছে তদন্তকারী কর্মকর্তা। চার্জশিটে অভিযুক্ত সকল আসামিকে আটক দেখানো হয়েছে।।