ছাত্রলীগ কর্তৃক ঢাবি শিক্ষার্থীকে মারধরের ঘটনায় নিন্দা জানিয়েছে ছাত্র ইউনিয়ন

নিউজ নিউজ

এডিটর

প্রকাশিত: ২:২৪ অপরাহ্ণ, আগস্ট ৯, ২০২০

ঢাবি প্রতিনিধি :

সীতাকুণ্ডে ছাত্রলীগ কর্তৃক ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের আইন বিভাগের দ্বিতীয় বর্ষের শিক্ষার্থী সালেহ উদ্দিন সিফাতকে হামলার ঘটনায় নিন্দা জানিয়েছে ছাত্র ইউনিয়ন।

আজ রোববার গণমাধ্যমে দেয়া এক বিজ্ঞপ্তিতে এই নিন্দা এবং বিচার দাবি করেন ঢাবি আইন অনুষদ শাখা ছাত্র ইউনিয়ন।

বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, গতকাল, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের আইন বিভাগের ৪৬তম ব্যাচের ছাত্র সালেহ উদ্দিন সিফাতের ওপর বর্বরোচিত হামলা চালায় সীতাকুণ্ডে তার নিজ এলাকার ছাত্রলীগ। বাংলাদেশ ছাত্র ইউনিয়ন, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় সংসদ এর আইন অনুষদ শাখা এই ঘটনার তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানাচ্ছে।

হামলাটি এমন একটি সংগঠনের কর্মীদের দ্বারা সংঘটিত হয়েছে, যে সংগঠনের সর্বোচ্চ পদে আসীন ব্যক্তিটি আমাদের আইন বিভাগেরই প্রাক্তন ছাত্র। এর দায় তিনি এড়াতে পারেন না। আইন বিভাগের ভ্রাতৃত্ববোধের যে ‘গল্প’ আমরা শুনে এসেছি সিনিয়রদের থেকে, এই ঘটনা সেই ভ্রাতৃত্ববোধকে আঘাত করেছে। ফ্যাসিবাদের সহযোগী সংগঠনের থেকে বেশি কিছু প্রত্যাশা নেই। দেখতে চাই, এই ঘটনায় ছাত্রলীগের শীর্ষপদে থাকা আমাদের সিনিয়ররা কী করেন। আইন বিভাগের ভঙ্গুর ভ্রাতৃত্ববোধের প্রতি এই প্রশ্ন আমরা রাখতে চাই।

বিজ্ঞপ্তিতে আরও বলা হয়, সর্বোপরি, এই ঘটনা, এবং এরকম প্রত্যেকটি ঘটনার বিচার চাই। বিচার এই ফ্যাসিস্ট রাষ্ট্রযন্ত্রের কাছে চাই না, তাকে ভেঙে ফেলতেই আমরা লড়ছি। বিচার চাই জনতার কাছে। বিদ্রোহ থেকে বিপ্লব শেষে, এই প্রত্যেকটি অন্যায় অবিচারকে বিচারের মুখোমুখি তোমাকে করতে হবে, বাংলাদেশের মুক্তিকামী জনতা!
সবগুলো অভিযোগ তোমার সামষ্টিক স্মৃতিতে জমা থাকুক। স্বৈরাচার ও ফ্যাসিবাদের বিরুদ্ধে, গণতন্ত্র ও সমাজতন্ত্রের জন্য, আমাদের সংগ্রাম জারি থাকুক।

উল্লেখ্য, গতকাল সীতাকুণ্ডের বড়দারগার হাট বাজারে সিফাতকে ১৫/২০ জনের ছাত্রলীগের একটি দল প্রায় ৩০/৪০ মিনিট বেধড়ক মারার এবং সাথে থাকা মোবাইল ল্যাপটপ ছিনতাই করার অভিযোগ এসেছে স্থানীয় ছাত্রলীগের বিরুদ্ধে।