চেক প্রতারণার মামলায় ব্যবসায়ীর ১বছরের কারাদন্ড ও ৩১ লক্ষ ৭৮ হাজার টাকার অর্থদন্ড

নিউজ নিউজ

এডিটর

প্রকাশিত: ২:০১ পূর্বাহ্ণ, ফেব্রুয়ারি ৫, ২০২০

প্রেস বিজ্ঞপ্তি :

অদ্য চেক প্রতারণার মাধ্যমে ব্যাংকের টাকা আত্মসাৎ এর অপরাধে এক ব্যবসায়ীর ১বছরের কারাদন্ড এবং চেকের সমপরিমাণ ৩১,৭৮,৮৫০/-( একত্রিশ লক্ষ আটাত্তর হাজার আটশত পঞ্চাশ) টাকা অর্থদন্ড দিয়েছেন চট্টগ্রামের বিজ্ঞ ৫ম যুগ্ম মহানগর দায়রা জজ মোঃ জহির উদ্দিন এর আদালত। ইসলামী ব্যাংক বাংলাদেশ লিঃ আগ্রাবাদ শাখার বিনিয়োগ গ্রাহক সীতাকুন্ড থানাধীন জনৈক মোঃ আমির হোছাইন মাস্টার এর পুত্র “ মেসার্স পাকিজা আলয় এন্ড এন্ড স্টীল” এর মালিক মোঃ সিরাজদৌল্লাহ বাদী ব্যাংকের বিনিয়োগকৃত অর্থ চেক প্রতারণার মাধ্যমে আত্মসাৎ করেন। আসামীর বিরুদ্ধে বাদী ব্যাংকের পক্ষে তৎক্ষমতাপ্রাপ্ত প্রতিনিধি মোঃ ফোরকান, বাদী হয়ে বিজ্ঞ সিএমএম আদালতে সি.আর মামলা নং- ১০/২০১৬ দায়ের করলে সূত্রোক্ত মামলার উদ্ভব হয়। পরবর্তীতে মামলাটি বিচার নিষ্পত্তির জন্য ৫ম যুগ্ম মহানগর দায়রা জজ মোঃ জহির উদ্দিন এর আদালতে বদলি হয়ে আসলে দায়রা মামলা নং-৬২৯৪/২০১৬ মুলে আদালত আসামীর বিরুদ্ধে চার্জ গঠন করেন। পরবর্তী পর্যায়ে বাদীর জেরা-জবানবন্দি, সাক্ষ্য-সাবুদ গ্রহণ, যুক্তিতর্ক শুনানী এবং দলিলপত্র পর্যালোচনা পূর্বক বিজ্ঞ আদালত উক্ত সাজার রায় প্রদান করেন। আসামী জামিনে গিয়ে রায় ঘোষনার দিন পলাতক থাকায় গ্রেফতার কিংবা স্বেচ্ছায় বিজ্ঞ আদালতে হাজির হওয়ার দিন থেকে উক্ত সাজার মেয়াদ গণনা করা হবে। বাদী পক্ষে মামলা পরিচালনা করেন- এডভোকেট এ.এম জিয়া হাবীব আহসান, এডভোকেট মোহাম্মদ শরীফ উদ্দিন, এডভোকেট এ.এইচ.এম জসিম উদ্দিন, এডভোকেট প্রদীপ আইচ দীপু,এডভোকেট দেওয়ান ফিরোজ আহমদ, এডভোকেট সাইফুদ্দিন খালেদ,এডভোকেট মোঃ হাসান আলী,এডভোকেট মোঃ বদরুল হাসান প্রমুখ। রাষ্ট্র পক্ষে মামলা পরিচালনা করেন এপিপি বিশ্বজিৎ বড়–য়া।