ঘোড়াঘাটে কিশোরীকে ধর্ষণের অভিযোগে আটক-১

নিউজ নিউজ

এডিটর

প্রকাশিত: ৬:১২ অপরাহ্ণ, আগস্ট ১৪, ২০২০

মোস্তাকিম হোসেন,হিলি স্থলবন্দর সংবাদদাতাঃ

দিনাজপুরের ঘোড়াঘাটে বিয়ের প্রলোভন দিয়ে (১৬) নামের এক কিশোরীকে ধর্ষনের অভিযোগে ধর্ষককে আটক করছে পুলিশ। ঘটনাটি ঘটেছে উপজেলার দক্ষিন দেবীপুর (সাউদগাড়ী) গ্রামে ।

এ বিষয়ে ধর্ষিতার ভাই মতিউর রহমান বাদী হয়ে ঘোড়াঘাট থানায় নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইনে একটি মামলা দায়ের করেছেন।

এজাহার সূত্রে জানাযায়, উপজেলার দক্ষিন দেবীপুর (সাউদগাড়ী) গ্রামের জনৈকের মেয়ে উপজেলার জয়রামপুর উচ্চ বিদ্যালয়ের ৯ম শ্রেণীর ছাত্রী (১৬) এর সাথে একই গ্রামের মোবারক হোসেনের পুত্র সুমন মিয়া (২২) প্রায় দেড় বছর থেকে বিয়ের প্রলোভনে প্রেমের সম্পর্ক গড়ে তোলে। ইতিমধ্যে বিয়ের প্রলোভনে তার সাথে দৈহিক অবৈধ মেলামিশা করে। গত ১১ আগষ্ট বেলা অনুমান ১২ টার দিকে বিবাহের কথা বলে ধর্ষক সুমন মিয়া মেয়েটিকে ডেকে নেয় নিজ বাড়ীতে নিয়ে যায়। বাড়ীতে লোকজন না থাকায় মেয়েটিকে জোর পুর্বক ধর্ষণ করে। ঘটনাটি জানাজানি হলে, ধর্ষক সুমনকে তার পরিবারের লোকজন পালিয়ে যেতে সাহায্য করে ও মেয়েটিকে বাড়ী থেকে বের করে দেয়।

ঘটনার পর বিষয়টি ফোনে ঘোড়াঘাট থানার অফিসার ইনচার্জ আমিরুল ইসলামকে জানালে তিনি তাৎক্ষনিক পুলিশ পাঠিয়ে ভিকটিমকে উদ্ধার করে থানায় নিয়ে আসে।

এ ব্যাপারে ৪ জনকে আসামী করে ঘোড়াঘাট থানায় একটি নারী ও শিশু নির্যাতন মামলা দায়ের করা হয়। ধর্ষক সুমনকে আটক করে আজ শুক্রবার দিনাজপুর জেল হাজতে প্রেরণ করা হয়। ধর্ষিতার ডাক্তারী পরীক্ষা করা হয়েছে।