ঢাকা১৮ই মে, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ
আজকের সর্বশেষ সবখবর

গাইবান্ধায় এতিমখানা থেকে তিন শিক্ষার্থী নিখোঁজ

প্রতিবেদক
নিউজ ভিশন

ফেব্রুয়ারি ১৬, ২০২১ ৩:০৭ অপরাহ্ণ
Link Copied!

আব্দুল মুনতাকিন জুয়েল, গাইবান্ধা জেলা প্রতিনিধি,

গাইবান্ধায় এতিমখানা থেকে তিন শিক্ষার্থী নিখোঁজ
নিখোঁজ তিন শিক্ষার্থী রবিউল ইসলাম, শিপন মিয়া ও শরীফ বাবু

গাইবান্ধার সাদুল্লাপুর উপজেলার আমজাদ হোসেন নূরানি হাফিজিয়া মাদ্রাসা ও এতিমখানার তিন শিক্ষার্থী দুইদিন ধরে নিখোঁজ রয়েছেন। রোববার (১৪ ফেব্রুয়ারি) ফজরের নামাজ আদায় করার পর তারা নিখোঁজ হয়। এ ঘটনায় সোমবার (১৫ ফেব্রুয়ারি) দুপুরে সাদুল্লাপুরের ধাপেরহাট পুলিশ তদন্তকেন্দ্রে একটি সাধারণ ডায়েরি করেন মাদ্রাসার দায়িত্বরত হাফেজ মেহেদী হাসান।

নিখোঁজ তিন শিক্ষার্থী হলো- রবিউল ইসলাম (১২), শিপন মিয়া (১১) ও শরিফ বাবু (৯)। এদের মধ্যে রবিউল ইসলামের বাড়ি সাদুল্লাপুর উপজেলার তিলকপাড়া গ্রামে। সে ওই গ্রামের রশিদুল ইসলামের ছেলে। শিপন মিয়া একই গ্রামের রেজাউল করিমের ছেলে ও শরিফ বাবু পলাশবাড়ী উপজেলার আশমতপুর গ্রামের শহিদুল ইসলামের ছেলে। এরা সবাই এতিমখানায় পবিত্র কোরআনে হেফজ শিক্ষার্থী।

সোমবার (১৫ ফেব্রুয়ারি) রাতে মাদ্রাসার দায়িত্বরত হাফেজ মেহেদী হাসান বিষয়টি নিশ্চিত করে ঢাকা পোস্টকে বলেন, রোববার (১৪ ফেব্রুয়ারি) ভোরে এতিমখানার আট শিক্ষার্থীসহ ফজরের নামাজ আদায় করি। এরপর ছাত্ররা তাদের নিজ নিজ বিছানাপত্র ঠিকঠাক করছিল। কিছুক্ষণ পর আটজনের মধ্যে তিনজনকে দেখতে না পেয়ে খোঁজ করতে থাকি। সন্ধান না পেয়ে সোমবার দুপুরে সাদুল্লাপুরের ধাপেরহাট পুলিশ তদন্তকেন্দ্রে একটি সাধারণ ডায়েরি (জিডি) করি।

এদিকে, নিখোঁজ থাকা তিন শিক্ষার্থীর বাড়িসহ আত্মীয়স্বজন ও আশপাশের বিভিন্ন জায়গায় খোঁজাখুঁজি করেও তাদের সন্ধান পাওয়া যায়নি। কেন বা কী কারণে তারা মাদ্রাসা থেকে হঠাৎ নিখোঁজ হলো এমন প্রশ্নের জবাব নেই শিক্ষক, অভিভাবক, স্থানীয়দের কাছে।

ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে সাদুল্লাপুর থানা পুলিশের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মাসুদ রানা জানান, শিক্ষার্থী নিখোঁজের ঘটনায় ধাপেরহাট তদন্তকেন্দ্রে একটি সাধারণ ডায়েরি (জিডি) হয়েছে। গুরুত্ব দিয়ে নিখোঁজ শিক্ষার্থীদের সন্ধানে তৎপর রয়েছে পুলিশ।

সম্পর্কিত পোস্ট