করোনা মোকাবিলায় পঞ্চপাণ্ডবের একযোগী উদ্যোগ

নিউজ নিউজ

ভিশন ৭১

প্রকাশিত: ৪:২৩ অপরাহ্ণ, এপ্রিল ২০, ২০২০

মুহা. ইকবাল আজাদ, ক্রীড়া প্রতিবেদক।
বাংলাদেশ ক্রিকেটে সফলতার অন্যতম নায়ক দলের পাঁচ সিনিয়র। বলা হয়, এরাই দলের পঞ্চপাণ্ডব। খেলার মাঠে এদের শেষ দেখা হয়েছিলো কবে? ‘বিশ্বকাপে, প্রায় বছর খানেক আগে।’ বিশ্বকাপের পর শ্রীলঙ্কা সিরিজে মাশরাফির ইনজুরি, জিম্বাবুয়ে সিরিজে সাকিবের নিষিদ্ধ সময়। সর্বশেষ অধিনায়ক মাশরাফির বিদায়ী ম্যাচে ছিলেন না মুশফিক। ২০১৯ বিশ্বকাপের ৫ই জুলাই, পাকিস্তানের বিপক্ষে শেষ ম্যাচে একত্রে খেলেছিলেন দলের পাঁচ সিনিয়র। পরবর্তীতে কবে আবার পাঁচজনকে একত্রে দেখা যাবে? কিংবা আদৌও পাঁচজনের একসাথে খেলা হবে কিনা? বলা মুশকিল। তবে আশার বাণী হলো, করোনা মোকাবিলায় পঞ্চপাণ্ডব আর্থিক সহযোগিতায় পুনরায় একত্রিত হচ্ছেন।

দেশের ক্রিকেটারদের সহযোগিতায় এগিয়ে এসেছে বিসিবি। জাতীয় দলসহ, প্রথম শ্রেণির ক্রিকেটারদের নিয়ে জাগ্রত বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ড। তবে হোটেল বয় কিংবা ম্যাসেজম্যানদের নিয়ে মাথাব্যথা নেই বিসিবির। দলের পাঁচ সিনিয়র মাশরাফি, রিয়াদ, মুশফিক, সাকিব এবং তামিম মিলে কয়েকজন হোটেল বয়কে সাহায্য করতে চলেছেন। এদের প্রত্যেকের ১ লাখ টাকা প্রদানে মোট ৫০জন হোটেল বয়কে সহায়তা করা হবে।

করোনার সংকটে হোটেল বয়দের আর্থিক সহায়তার উদ্যোগ নিয়েছেন দলের উইকেট কিপার ব্যাটসম্যান মুশফিকুর রহিম। নিজেদের এই উদ্যোগ নিয়ে মুশফিক দেশের অন্যতম পত্রিকা প্রথম আলোকে বলেছেন, ‘আমরা পাঁচজন মিলে প্রায় ৫০ জনের মতো টিম বয় ও ম্যাসাজম্যানদের ছোট আকারে সাহায্য করছি। যারা সব ক্লাব, বিভিন্ন ক্রিকেট দল গুলোর সঙ্গে কাজ করে তাদের সবাইকে আমরা ৫ জন মিলে ৫ লাখ টাকা দিচ্ছি। আপাতত ছোট আকারে সাহায্য করছি। এখন তো খেলা নেই। খেলা না থাকলে তাদের আয়েরও কোনো সুযোগ নেই।’

টিম বয়দের পক্ষ থেকে পুরো বিষয়টি ব্যবস্থাপনা করছেন প্রাইম ব্যাংকের টিম বয় মোহাম্মদ দেলওয়ার হোসেন। তিনি জানিয়েছেন, ‘আমরা কেউ কিন্তু বিসিবির বেতন ভুক্ত না। এই জন্যই ভাইদের কাছে আমরা সাহায্যের আবেদন করেছিলাম। আমরা সবার নাম তালিকা করেছিলাম এই উদ্দেশে। মুশফিক ভাইরাও বলেছে সাহায্য করবে।’