এমপি মন্ত্রী হওয়ার খায়েস আমার নাই- বিপ্লব বড়ুয়া

নিউজ নিউজ

এডিটর

প্রকাশিত: ১১:৩৯ অপরাহ্ণ, জানুয়ারি ১১, ২০২০


রিয়াজ উদ্দীন
লোহাগাড়া (চট্টগ্রাম)
:

চট্টগ্রাম লোহাগাড়ার কৃতি সন্তান প্রধানমন্ত্রীর বিশেষ সহকারী ও অাওয়ামীলীগের নবগঠিত কমিটির দপ্তর সম্পাদক ব্যারিস্টার বিপ্লব বড়ুয়া বলেছেন, অামি রাজনীতি করি প্রধানমন্ত্রীর জন্য- রাজনৈতিক জীবনে এই পর্যন্ত নেত্রী আমাকে যে মূল্যায়ন করেছে তা আমার জীবনে সবচেয়ে বড় পাওয়া। নেত্রী শুধু আমাকে মূল্যায়ন করেনি পুরো চট্টগ্রামকে মূল্যায়ন করেছে,
আমাকে বর্তমানে নেত্রীর বিশেষ সহকারী এবং দলের দপ্তর সম্পাদকের পদ দিয়ে যে দায়িত্ব দিয়েছে তা যথাযথ ভাবে পালন করে যাবো, আপনারা দোয়া করবেন।

অামি লোহাগাড়ার সন্তান, ক্ষমতা চিরস্থায়ী নয় ! এই পদ থাকুক বা না থাকুক, আমার দরজা লোহাগাড়ার সর্বস্তরের জনগণের জন্য সবসময় খোলা। আমি কারো প্রতিদ্বন্দ্বী নয় !
দয়া করে আমাকে কারো প্রতিদ্বন্দ্বী মনে করবেননা, এমপি মন্ত্রী হওয়ার খায়েস আমার নাই।

তিনি বলেন বিগতদিনে আমি পদবী পাওয়ার আগেও লোহাগাড়ার কর্মরত সাংবাদিকরা আমাকে যে আন্তরিকতা দেখিয়েছিল তা জন্য সকল সাংবাদিকদের ধন্যবাদ জানান তিনি।

১১ই জানুয়ারী (শনিবার) বিকেল ৩টায় বটতলী সিটিজেন পার্কে অনুষ্ঠিত লোহাগাড়া উপজেলা নাগরিক কমিটির অায়োজনে আগামী ২২শে জানুয়ারী প্রধানমন্ত্রীর সামরিক সচিব, প্রয়াত মেজর জেনারেল মিয়া মুহাম্মদ জয়নুল অাবেদীনের শোক সভা ও অাওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক ওবাইদুল কাদের লোহাগাড়ায় অাগমন উপলক্ষে প্রস্তুতি সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন।

এর অাগে দুপুরে নেতাকর্মীদের নিয়ে বিশাল গাড়ী বহরে উপজেলার চুনতিতে সদ্য প্রয়াত মেজর জেনারেল মিয়া মুহাম্মদ জয়নুল আবেদীনের কবরে পুষ্পমাল্য দিয়ে দোয়া প্রার্থনা করেন তিনি।

উপস্থিত নেতাকর্মীদের উদ্যোশ্যে তিনি বলেন, একজন রাজনৈতিক ব্যক্তির বড় কাজ হচ্ছে মানুষের মন জয় করা, আওয়ামীলীগের রাজনীতি করলে কখনও মানুষের জমি দখল চলবেনা, মাদকের সাথে জড়িত থাকতে পারবেননা, অসামাজিক কোন কাজ করতে পারবেননা।

২২তারিখে দলের সাধারণ সম্পাদকের সাথে প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয় থেকে অনেক নেতৃবৃন্দরা লোহাগাড়ার শোক সভায় অাসবেন তাদের যথাযথ সম্মান দিয়ে বিদায় দেওয়া আমাদের সকলের দায়িত্ব, তাই সবাইকে সুন্দরভাবে প্রস্তুতি নেওয়ার অাহবানও জানান তিনি।

মরহুমের নাগরিক শোক সভার প্রস্তুতি অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন, লোহাগাড়া উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান জিয়াউল হক চৌধুরী বাবুল।

উপজেলা অাওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক সালাউদ্দিন হিরু’র সঞ্চালনায়
প্রস্তুতি সভায় উপস্থিত ছিলেন, সাতকানিয়া উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান এম এ মোতালেব, চন্দনাইশ উপজেলা চেয়ারম্যান আবদুল জব্বার চৌধুরী, চকরিয়া উপজেলা উপজেলা চেয়ারম্যান ফজলুল হক সাঈদী,
লোহাগাড়া উপজেলা আওয়ামীলীগের সাবেক সাধারণ সম্পাদক এডভোকেট হুমায়ন কবির রাসেল, সাতকানিয়া সার্কেলের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার হাসানুজ্জামান মোল্যা, সাতকানিয়া পৌর মেয়র মোহাম্মদ জুবাইর,কেন্দ্রীয় যুবলীগের সদস্য রিটু দাশ বাবলু, লোহাগাড়া উপজেলা যুবলীগের আহবায়ক মুহাম্মদ জহির উদ্দিন সহ জেলাও উপজেলা আওয়ামীলীগ ও সহযোগী অংগসংঘঠনের নেতৃবৃন্দরা।