আসুন বন্যার্ত অসহায় মানুষের পাশে দাড়াই

নিউজ নিউজ

এডিটর

প্রকাশিত: ২:৩৭ পূর্বাহ্ণ, জুলাই ২৩, ২০২০

——————–
করোনা ভাইরাসের ভয়ানক আতঙ্কে প্রায় কয়েক মাস যাবত ঘরবন্দী মানবজাতি। গোটা বিশ্ব যার প্রভাবে কার্যত অচলাবস্থার সম্মুখীন।কোটি’র বেশি মানুষ আক্রান্ত, মৃতের সংখ্যাও কম নয়। তার ভয়াল থাবা থেকে বাংলাদেশও রেহাই পায়নি। ফলে লকডাউনের কবলে পড়ে হাজারো মানুষ কর্মহীন হয়ে পড়েছিল।
অভাবের তাড়নায় চিন্তিত অস্থির মানু্ষগুলো স্বাভাবিক কাজ তথা জীবন-যাপনের গতি হারিয়ে ফেলেছিল। লকডাউন শেষে যদিও কিছু কিছু কর্মক্ষেত্র স্বচল হয়েছিল।

Advertisement

কিন্তু কিছু মানুষের তা হয়ে উঠেনি। এরই মধ্যে বর্ষার প্রকোপ শুরু। যে মানু্ষগুলো একবেলা কাজ না করতে পারলে, আরেকবেলা না খেয়ে থাকতে হয়। অর্থাৎ বলা যায়,”মাঠে কাজ নেই,পেটে ভাতও নেই”। সে সকল মানু্ষগুলোর কি অবস্থা!
এককথায় ”মরার ওপর খরার ঘা” এমনিতেই টানা কয়েক মাস লকডাউনে মানুষের নাজেহাল অবস্থা। তা থেকে একটু ঘুরে দাড়ানোর প্রচেষ্টা করবে কিনা! তার ওপর আবার নতুন করোনা (‘বর্ষার প্রকোপ) শুরু।

বিশেষ করে এ সমস্যার বেশি সম্মুখীন হচ্চে বাংলাদেশের উত্তরবঙ্গ বগুড়া,সিরাজগন্জ,টাংগাইল জেলার কিছু উপজেলার মানু্ষ ।যেমন,সিরাজগঞ্জে চৌহালী, এনায়েতপুর ও বেলকুচি উপজেলা। টাংগাইলে নাগরপুর ও ভুয়াপুর উপজেলা। এ সকল এলাকার মানু্ষগুলো প্রতি বছরই বর্ষার প্রকোপে বিপর্যস্ত হয়। ঠিক এবছরও তার ব্যতিক্রম ঘটছে না। বর্ষার শুরুতেই তলিয়ে যাচ্ছে,রাস্তা-ঘাট, বসতবাড়ি সবকিছু। ফলে অধিকাংশ মানু্ষ দুশ্চিন্তায় জীবন-যাপন করছে।

করোনাভাইরাসের এই দুঃসময়ে বর্ষার প্রকোপে আরও অসহায় হয়ে পড়েছে মানু্ষজন। দিশেহারা সবাই। তাই যাদেরকে আল্লাহ তা’য়ালা অর্থ- সম্পদ ও শক্তি সামর্থ্য দিয়েছেন। তাদের উচিত এসব অসহায় মানুষের সেবায় সহযোগিতার হাত বাড়ানো ও তাদের পাশে দাড়ানো।

কেননা মানবসেবাও ইসলামের অন্যতম একটি শাখা।তাই মানব সেবায় যারা জড়িত তাদের সবার মাঝে এ কাজের প্রতি উদ্বুদ্ধকারী হিসেবে যে শক্তি কাজ করে, সেটা হচ্ছে মানুষের মানবতাবোধ। যার মাঝে মানবতাবোধ আছে সেই মানবসেবার কাজে এগিয়ে আসে।
আর তাই প্রাণঘাতী মহামারি করোনাকালে ও বর্ষার দুর্যোগেও মানবতাবোধের প্রয়োজন সবচেয়ে বেশি। একটা কথা মনে রাখতে হবে যে,আমাদের একটু একটু প্রয়াস ও সহযোগিতা-ই পারে, হাজারো মানুষের জীবন বাচাতে ও তাদের মুখে হাসি ফোটাতে।

অতএব, আমরা সবাই এ সকল দুর্যোগ কবলিত এলাকা ও উপজেলাগুলোতে ‘ত্রাণ সহযোগিতা মূলক’ উদ্যোগ গ্রহণ করি এবং বন্যার্ত অসহায় মানুষের পাশে দাড়াই।

মোঃ হুসাইন আহমদ, টাংগাইল