আনোয়ারায় হামলায় ইউপি সদস্য ছালে আহমদ আহত !

নিউজ নিউজ

এডিটর

প্রকাশিত: ৪:১১ পূর্বাহ্ণ, মে ২২, ২০২০

ডি এইচ মনসুর,আনোয়ারা :
চটগ্রামের আনোয়ারা উপজেলার বরুমচড়া ইউনিয়ন পরিষদের ৭নং ওর্য়াডের ইউপি সদস্য মোহাম্মদ সালেহ আহমেদ(৪৮)ও তার স্ত্রী নুর বেগম(৩৫) প্রতিপক্ষের হামলায় গুরুত্বর আহত হয় বলে জানা গেছে।

এব্যাপারে আনোয়ারা থানায় গত ২০ মে অভিযোক্ত ১০ জনের বিরোদ্ধে মামলা হয়েছে। আনোয়ারা থানা ও মামলার এজাহাওে জানাযায়, স্থানীয় ইউপি সদস্য সালেহ আহমেদ এলাকার ইয়াবা সেবন ও সামাজিক অপরাধে বাঁধা দেয়ায় প্রতিপক্ষ ক্ষিপ্ত হয়ে তার উপর হামলা চালিয়ে গুরুত্বও আহত করে। হামলার সময় স্বামীকে বাঁচাতে গিয়ে তার স্ত্রী নুর বেগমও আহত হয়। মামলার এজাহারে আরো উল্লেখ করা হয় হামলাকারীরা মারধরের পর ইউপি সদস্যের ঘরে ৪ লাখ ৮০ হাজার টাকা মূল্যের নগদ টাকা ও মালামাল লুটকরে নিয়ে যায়।

এ ঘটনায় অভিযোক্ত মো. সোলেমান (২৪),সোহেল (২৬), মোরশেদ (২২), জাহেদ (২৩), মনি (২৪), মিজান (২৮), সোবহান (২৮), মো. হোসেন (৫০), মোতালেব (৫২) ও ভেট্টু (৫৫)ও বিরোদ্ধে আহত ইউপি সদস্য সালেহ আহমেদের স্ত্রী বাদী হয়ে আনোয়ারা থানায় মামলা নং ১৭, তারিখ ২০ মে ‘২০ ইং মামলা দায়ের করা হয়।
আহত ইউপি সদস্য সালেহ আহমেদ বলেন,মাদক ব্যবসায় বাঁধা দেয়ায় স্থানীয় মাদক ব্যবসায়ীরা ঐক্যবদ্ধ হয়ে আমার ও আমার স্ত্রীর উপর হামলা চালিয়ে আহত করে। এসময় তারা আমার ঘরে রক্ষিত ৪ লাখ ৮০ হাজার টাকার মালামাল লুটকরে নিয়ে যায়।

বরুমচড়া ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান মোহাম্মদ শাহাদত হোসেন চৌধুরী বলেন,মামলার আসামীরা দীর্ঘ দিন ধরে এলাকায় প্রকাশ্যে মাদক ব্যবসা ও অসামাজিক কাজে লিপ্ত আছে। এসব কাজে বাঁধা দেয়ায় ইউপি সদস্য সালেহ আহমেদ ও তার পরিবারের উপর পরিকল্পিত ভাবে হামলা করা হয়েছে।
আনোয়ারা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা(ওসি) দুলাল মাহমুদ বলেন, পুলিশ ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছে। প্রাথমিক তদন্তে ঘটনার সত্যতা পাওয়া গেছে। হামলায় ইউপি সদস্য গুরুত্বর আহত। এঘটনায় অভিযোক্ত ১০ জনের বিরোদ্ধে থানায় মামলা করা হয়।