আনোয়ারার ইউএনও সস্ত্রীক করোনামুক্ত হলেন

নিউজ নিউজ

এডিটর

প্রকাশিত: ১০:০৯ অপরাহ্ণ, জুলাই ১২, ২০২০

ডি এইচ মনসুর, আনোয়ারা :

স্ত্রী ও বাসার গৃহপরিচারিকাসহ করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছিলেন চট্টগ্রামের আনোয়ারা উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) শেখ জোবায়ের আহমেদ। করোনার সঙ্গে দীর্ঘ ১৮ দিন লড়াইয়ের পর তিনজনই সুস্থ হয়েছেন।
বিষয়টি জানিয়ে শনিবার সকালে নিজের ফেসবুকে একটি লেখা প্রকাশ করেন ইউএনও।
এছাড়া উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডা. আবু জাহিদ মোহাম্মদ সাইফউদ্দীন তাদের সুস্থ হওয়ার বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।
এখন আবার কর্মস্থলে যোগ দেওয়ার অপেক্ষায় আছেন ইউএনও। তার বাড়ি টাঙ্গাইল জেলার বাসাইল উপজেলায়।
দেশে করোনা সংক্রমণের শুরু থেকে এই ভাইরাসের বিস্তার ঠেকাতে মাঠপর্যায়ে সক্রিয় ছিলেন শেখ জোবায়ের আহমেদ।

সামাজিক দূরত্ব নিশ্চিত ও নিত্যপ্রয়োজনীয় জিনিসের দাম নিয়ন্ত্রণ রাখতে হাটবাজারে ঘুরেছেন।
করোনায় আক্রান্ত ব্যক্তিদের বাড়ি লকডাউন, গণপরিবহন সীমিত রাখতে ভ্রাম্যমাণ আদালত পরিচালনা, কর্মহীন মানুষদের মধ্যে সরকারি ত্রাণ বিতরণ ও তদারক করতে গিয়ে তাকে নানা ধরনের মানুষের সংস্পর্শে আসতে হয়েছে। আর এ থেকে ইউএনও ও তার পরিবারের দুই সদস্য করোনায় আক্রান্ত হন।

উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স সূত্র জানায়, গত ২৪ জুন করোনা পরীক্ষার জন্য ইউএনও নমুনা দেন। নমুনা পরীক্ষায় ২৯ জুন তিনি করোনা পজিটিভ হিসেবে শনাক্ত হন। অবশ্য এর কয়েকদিন আগে থেকেই তিনি সরকারি বাসায় আইসোলেশনে ছিলেন। এরপর তার স্ত্রী ও বাসার গৃহপরিচারিকার নমুনা পরীক্ষাতেও করোনা শনাক্ত হয়।

করোনা জয়ের অভিজ্ঞতার বিষয়ে শেখ জোবায়ের আহমেদ বলেন, পরিবারের দুই সদস্যসহ আমার করোনা পজিটিভ আসায় একটু ঘাবড়ে যাই। তবে মনোবল শক্ত রেখেছি। সৃষ্টিকর্তাকে স্মরণ করেছি। সবার দোয়া ও সহযোগিতায় চিকিৎসকদের নিয়ম মেনে সবকিছু করেছি। বাসায় থেকে চিকিৎসা নিয়েছি। বেশি করে ভিটামিন সি ও ডি-যুক্ত খাবার খেয়েছি। বেশি বেশি রঙ চা পান ও গরম পানির গারগল করেছি। দৃঢ়তার সঙ্গে এই ভাইরাসকে মোকাবিলা করেছি।
করোনামুক্ত হতে পারায় সবার প্রতি কৃতজ্ঞ জানিয়ে ইউএনও বলেন, কভিড-১৯-এর এখনো প্রাতিষ্ঠানিক স্বীকৃত কোনো ওষুধ আবিষ্কার হয়নি। তাই এই ভাইরাসের সংক্রমণ প্রতিরোধ করেই সবাইকে স্বাভাবিক জীবনযাপন অব্যাহত রাখতে হবে।
স্বাস্থ্যবিধি ও সামাজিক দূরত্ব মেনে না চললে এই ভাইরাসের আক্রমণ থেকে কেউ নিরাপদ থাকতে পারবেন না।