মহেশখালীর আদিনাথ মন্দিরে গ্যাস সিলিন্ডা বিষ্ফোরণে স্বামী-স্ত্রী নিহত।। আহত ৩ ।

received_1587180588004097.jpeg

আবদুর রাজ্জাক,কক্সবাজার।
কক্সবাজারের মহেশখালীর আদিনাথ মন্দিরের পূজা ও মেলায় গ্যাস সিলিন্ডার বিষ্ফোরনে বেলুন বিক্রেতা স্বামী-স্ত্রী দুইজনই ঘটনাস্হলেই নিহত ও ৩ জন আহত হয়েছে।আহতদের মহেশখালী হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। ঘটনাটি ঘটেছে (১৪ ফেব্রুয়ারী) বুধবার সকাল সাড়ে ১০ ঘটিকার সময় মহেশখালী পৌরএলাকার ছোটমহেশখালী ইউনিয়নের ঠাকুরতলা আদিনাথ মন্দিরের পশ্চিম প্রান্তে লোকনাথ মন্দিরের সামনে। নিহতরা হলেন ফেনী জেলার মমতা রাণী বনিক (৩৫)ও তার স্বামী গনেশ বনিক(৪০)।খবর পেয়ে মহেশখালী থানা পুলিশ ঘটনাস্হল থেকে লাশ উদ্ধার করে ময়না তদন্তের জন্য মর্গে প্রেরন করেন।স্থানীয় প্রত্যক্ষদর্শী সূত্রে ও পুলিশ সূত্রে জানা যায়, বুধবার (১৪ ফেব্রুয়ারী) সকাল সাড়ে ১০ ঘটিকার সময় মহেশখালী পৌরএলাকার ছোটমহেশখালী ইউনিয়নের ঠাকুরতলা আদিনাথ মন্দিরের পশ্চিম প্রান্তে লোকনাথ মন্দিরের সামনে শিবচতুর্দশী পুজা ও আদিনাথ মেলা উপলক্ষে ফেনী জেলার মমতা রাণী বনিক ও তার স্বামী গনেশ বনিক যৌথবাবে গ্যাস সিলিন্ডার থেকে বেলুনে গ্যস ভর্তি করে শিশুদের খেলনা হিসাবে বিক্রি করছিল। এসময় হঠাৎ করে গ্যস ভর্তি সিলিন্ডারটি বিকট শব্দে বিষ্ফোরিত হলে ঘটনাস্হলেই বেলুন বিক্রেতা স্বামী-স্ত্রী ২ জনই প্রাণ হারান।গ্যস ভর্তি সিলিন্ডারের আঘাতে স্বামী-স্ত্রীর দদুই জনের শরীর ছিন্নভিন্ন হয়ে যায়।এই ঘটনায় ৩ জন আহত হয়।এদিকে সিলিন্ডার বিষ্ফোরনের বিকট শব্দে আদিনাথ মন্দিরে শিবচতুর্দশী পূজায় আসা পূজার্থীরা ভয়ে দিকবেদিক পালাতে থাকে। এ সময় পরিমল নামের এক মিষ্টির দোকানদারের স্ত্রী অঞ্জলী রাণী দে, ইদুল দে ও নিরব পাল নামে এক শিশু আহত হয়। আহতদের দ্রুত মহেশখালী হাসপাতালে নিয়ে আসে। আহত ও নিহত সকলেই হিন্দু সম্প্রদায়ের লোক বলে জানাগেছেআহতদের একজন সাতকানিয়া উপজেলার রামপুর গ্রামের রতন দাশের পুত্র, অপর দুই জন মহেশখালী পৌরসভার দক্ষিণ হিন্দুপাড়া ও আদিনাথ ঠাকুরতলার বাসিন্দা বলে জানা গেছে। বিষ্ফোরনের কবর পেয়ে তাৎক্ষনিক ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেন মহেশখালী থানার অফিসার ইনচার্জ প্রদীপ কুমারদাশ( পিপিএম বার)।বলেন, বিষ্ফোরনে নিহত বিলুন বিক্রেতা স্বামী-স্ত্রী দুজনেই হিন্দু ধর্মীয় লোক হলেও নিহত মহিলার শরীর ও মুখমন্ডলের কিছু অংশ দেখা গেলেও নিহত পুরুষের শারীরিক কোন চিহ্ন পাওয়া যায়নি।

Top