চবি সমাজবিজ্ঞান অনুষদের ওরিয়েন্টেশন ও সাংস্কৃতিক উৎসব সম্পন্ন

27847917_326665211160691_1340169833_n.jpg

চবি প্রতিনিধি :
চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয় সমাজ বিজ্ঞান অনুষদের অন্তর্গত বিভাগসমূহের ২০১৭-২০১৮ শিক্ষাবর্ষে ১ম বর্ষ অনার্স কোর্সে ভর্তিকৃত ছাত্র-ছাত্রীদের ওরিয়েন্টেশন ও সাংস্কৃতিক উৎসব ৪ ফেব্র“য়ারি ২০১৮ তারিখ চবি সমাজ বিজ্ঞান অনুষদ মিলনায়তনে অনুষ্ঠিত হয়। এ ওরিয়েন্টেশন ও সাংস্কৃতিক উৎসব উদ্বোধন করেন চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য প্রফেসর ড. ইফতেখার উদ্দিন চৌধুরী। অনুষ্ঠানে বাংলাদেশ বিশ্ববিদ্যালয় মঞ্জুরী কমিশনের (ইউজিসি) চেয়ারম্যান প্রফেসর আবদুল মান্নান প্রধান অতিথি ও ওরিয়েন্টেশন বক্তা হিসেবে বক্তব্য রাখেন। অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন চবি উপ-উপাচার্য প্রফেসর ড. শিরীণ আখতার।

ইউজিসি’র চেয়ারম্যান তাঁর ভাষণে চ.বি. সমাজ বিজ্ঞান অনুষদের অন্তর্গত বিভিন্ন বিভাগে ১ম বর্ষ অনার্স কোর্সে ভর্তিকৃত ছাত্র-ছাত্রীদের শুভেচ্ছা ও আন্তরিক অভিনন্দন জানান। তিনি বলেন, জাতির জনক বঙ্গবন্ধুর নেতৃত্বে লাখো শহীদের রক্তের বিনিময়ে অর্জিত মহান স্বাধীনতার সঠিক ইতিহাস এ তরুণ মেধাবী সন্তানদের জানতে হবে। তিনি আরও বলেন, জ্ঞান ভিত্তিক সমাজ-রাষ্ট্র বিনির্মাণে এ মেধাবী তরুণদের দায়িত্ব গ্রহণ করতে হবে। এজন্য তাদেরকে অর্জন করতে হবে সুমহান চারিত্রিক গুণাবলী সম্পন্ন মূল্যবোধ। তিনি তরুণদের জঙ্গি-সন্ত্রাসবাদ ও মাদকের বিরুদ্ধে সোচ্চার হওয়ার আহবান জানান। মাননীয় ইউজিসি’র চেয়ারম্যান চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয় দেশে ও বিশ্ব পরিমন্ডলে অসামান্য অবদান রেখে চলেছে উল্লেখ করে এ বিশ্ববিদ্যালয়ের উত্তরোত্তর উন্নতি ও সমৃদ্ধি কামনা করেন।

উপাচার্য তাঁর ভাষণে নবীন শিক্ষার্থীদের চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয় ক্যাম্পাসে স্বাগত ও প্রাণঢালা অভিনন্দন জানান। তিনি বলেন, এ বিশ্ববিদ্যালয় সমাজ বিজ্ঞান অনুষদ বিশেষ ঐতিহ্য-গৌরবগাঁথায় অভিষিক্ত অনুষদ। এ ঐতিহ্যকে ধারণ করে ১ম বর্ষে ভর্তিকৃত তরুণ-মেধাবী শিক্ষার্থীবৃন্দ আমাদের সকলের প্রত্যাশিত উন্নত-সমৃদ্ধ বাংলাদেশ বিনির্মাণে অসত্যের কাছে মাথা নত না করে সত্য অনুসন্ধান ও সত্য প্রতিষ্ঠায় জ্ঞান অন্বেষায় ব্রতী হবে এটাই প্রত্যাশিত। তিনি জাতির জনক বঙ্গবন্ধু তনয়া মানবতার জননী মাননীয় প্রধানমন্ত্রী দেশরত্ন শেখ হাসিনা দেশে সৎ, দক্ষ, যোগ্য ও আলোকিত মানবসম্পদ উৎপাদনে বিজ্ঞানমনস্ক গুণগত শিক্ষার সাথে ক্রীড়া ও সংস্কৃতিকে যুক্ত করে যে সময়োপযোগী শিক্ষাদর্শন দেশ-জাতিকে উপহার দিয়েছেন এর সফল বাস্তবায়নে মহান মুক্তিযুদ্ধের চেতনা ও দেশপ্রেমকে ধারণ করে আজকের তরুণ শিক্ষার্থীদের বিশ্ববিদ্যালয়ের নিয়মকানুন, শৃংখলা সমুন্নত রেখে সম্মানিত শিক্ষকদের সান্নিধ্যে জ্ঞান আহরণে মনোযোগী হওয়ার আহবান জানান।

চবি সমাজ বিজ্ঞান অনুষদের ডিন প্রফেসর ড. ফরিদ উদ্দিন আহামেদের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে নির্ধারিত আলোচক হিসেবে বক্তব্য রাখেন এ.এফ.রহমান হলের প্রভোস্ট প্রফেসর ড. গণেশ চন্দ্র রায়, প্রীতিলতা হলের প্রভোস্ট জনাব পারভীন সুলতানা, প্রক্টর জনাব মোহাম্মদ আলী আজগর চৌধুরী, ছাত্র-ছাত্রী পরামর্শ ও নির্দেশনা পরিচালক প্রফেসর আহমদ সালাউদ্দিন এবং পরীক্ষা নিয়ন্ত্রক (ভারপ্রাপ্ত) প্রফেসর ড. মুস্তাফিজুর রহমান ছিদ্দিকী। এছাড়াও বক্তব্য রাখেন অর্থনীতি বিভাগের সভাপতি প্রফেসর ড. নিতাই চন্দ্র নাগ, রাজনীতি বিজ্ঞান বিভাগের সভাপতি প্রফেসর ড. মুহাম্মদ ইয়াহইয়া আখতার, সমাজতত্ত্ব বিভাগের সভাপতি প্রফেসর এস.এম. মনিরুল হাসান, লোক প্রশাসন বিভাগের সভাপতি প্রফেসর ড. আমীর মুহাম্মদ নসরুল্লাহ, নৃবিজ্ঞান বিভাগের সভাপতি জনাব এন.এম. সাজ্জাদুল হক, আন্তর্জাতিক সম্পর্ক বিভাগের সভাপতি ড. মো. কামাল উদ্দিন এবং যোগাযোগ ও সাংবাদিকতা বিভাগের সভাপতি জনাব মো. আবুল কালাম আজাদ। অনুষ্ঠান উপস্থাপনা করেন রাজনীতি বিজ্ঞান বিভাগের প্রভাষক জনাব দীপাঞ্জলী বড়–য়া পিংকী ও আন্তর্জাতিক সম্পর্ক বিভাগের প্রভাষক জনাব আফজালুর রহমান। পরে অনুষ্ঠিত হয় মনোজ্ঞ সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান।

Top