টাকার অভাবে ভর্তি হতে পারছেন না শৈলকুপার শাহিন

27654798_1586170448103917_2224603014202214411_n.jpg

মোস্তাফিজুর রহমান উজ্জল, ঝিনাইদহ প্রতিনিধি;
পরের ক্ষেতে কামলা খেটে ও ইজিবাইক চালিয়ে লেখাপড়া শেখা শৈলকুপার শাহিন আলী এখন টাকার অভাবে ভর্তি হতে পারছে না। আগামী ১১ ফেব্রয়ারির মধ্যে কুড়ি হাজার টাকা জোগাড় করতে না পারলে তার শিক্ষা জীবন অনিশ্চিত হয়ে যাবে। শাহিনের বন্ধু মাহমুদা আনোয়ার জানান, স্কুল ও কলেজ জীবনে চরম অভাব অনটনের মধ্যে শাহিন ঢাকায় গর্মেন্টেসেও কাজ করেছেন দুই মাস। কিন্তু পড়ালেখা ছাড়েননি। ইন্টার পাশ করার পর চেয়ে চিন্তে এডমিশন পরীক্ষায় অংশ নিচ্ছেন। চান্স পেয়েছেন মানিকগঞ্জ মন্নু নার্সিং কলেজে। আগামী ১১ ফেব্রয়ারীর মধ্যে তার ভর্তির জন্য দরকার ২০ (কুড়ি) হাজার টাকা। এতো টাকা তো আর কামলা খেটে ও ইজিবাইক চালিয়ে উপার্জন করা সম্ভব না। এ জন্য শাহিন দানশীলদের দারস্থ হয়েছেন বলে মাহমুদা জানান। জানা গেছে, শাহিন ঝিনাইদহের শৈলকুপা উপজেলার দেবীনগর গ্রামের হতদরিদ্র সিদ্দিকুর রহমানের ছেলে। শৈলকুপার রামচন্দ্রপুর কিসমত আলী মাধ্যমিক বিদ্যালয়ে কেটেছে তার ছাত্র জীবন। মেট্রিক পাস করে ভর্তি হন শেখপাড়া দু:খি মাহমুদ অনার্স কলেজে। আইএ পাস করার পর তিনি উচ্চ শিক্ষার জন্য চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছেন। কিন্তু বাধা হয়ে দাড়িয়েছে দারিদ্রতা। শাহিন আলী জানান, বিএসসি নার্সিং কলেজে ভর্তি হতে পারলে হয়তো জীবনের মোড় ঘুরাতে সক্ষম হতেন। শাহিন আলীর সাথে যোগাযোগে ও বিকাশ নং ০১৮৩৭-১৪৩৪৪৮ ।

Top