ঝিনাইদহের মহেশপুর থেকে ডাকাতি হওয়া ১ কোটি ২০ লাখ টাকার স্বর্ণের বার উদ্ধার, আটক-২

26906929_553528718314705_8614085450065062511_n.jpg

মোস্তাফিজুর রহমান উজ্জল, ঝিনাইদহ প্রতিনিধি:

ঝিনাইদহের মহেশপুরে নৈশ কোচ থেকে ডাকাতি হওয়া ৪৭পিস সোনার বারের মধ্যে ৩০ পিচ সোনার বার কোটচাঁদপুর থেকে উদ্ধার করেছে পুলিশ। এ সময় আটক করা হয়েছে ২ জনকে। আটককৃতরা হলো-কোটচাঁদপুর উপজেলার আদর্শপাড়া এলাকার মিজানুর রহমানের ছেলে হারুন অর রশিদ ওরফে মিলন (২৮) ও একই উপজেলার পোষ্ট অফিস পাড়া এলাকার ডাক্তার আবুল কাশেমের ছেলে আশরাফুল আলম ওরফে পটলা (৪৭)। ১৯.০১.২০১৮ ইং শুক্রবার ভোরে কোটচাঁদপুর থেকে এ সোনার বার উদ্ধার করা হয়।

মহেশপুর থানার ওসি আহম্মেদ কবীর হোসেন চৌধুরী জানান, গত ৪ জানুয়ারি মধ্যরাতে মহেশপুরের পুন্দরপুর এলাকায় সোনার তরী পরিবহন থেকে একদল ডাকাত সোনা চোরাচালানীদের কাছ থেকে ৪৭পিস সোনার বার ছিনিয়ে নিয়ে পালিয়ে যায়। এ ঘটনায় মহেশপুর থানার এস আই আনিসুর রহমান বাদি হয়ে মামলা দায়ের করে। শুক্রবার ভোররাতে ৩০ পিচ সোনার বারসহ ওই দুই জনকে আটক করা হয়। উদ্ধার হওয়া সোনার ওজন ৩ কেজি ৪শ গ্রাম। যার দাম প্রায় ১ কোটি ২০ লাখ টাকা। ওসি আরও জানান, আটককৃতদের প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে জানা গেছে তারা ৪৭ পিচ স্বর্ণের বার ডাকাতি করেছিল। বাকি স্বর্ণ উদ্ধারে অভিযান চলছে। এ ব্যাপারে মহেশপুর থানার মামলা হয়েছে। যার নং ১০।

Top