আশাশুনি উপজেলা পরিষদে পরিত্যাক্ত ভবন চরম বিপদাপন্ন,দূর্ঘটনার আশংকা

FB_IMG_15162886427310530.jpg

নাঈম আহম্মেদ তুহিন :

আশাশুনি উপজেলা পরিষদের একটি ভবন বছরের পর বছর পরিত্যাক্ত অবস্থায় পড়ে থাকলেও ভেঙ্গে না ফেলানোয় চরম বিপদাপন্ন হয়ে উঠেছে। যেকোন সময় দুর্ঘটনা কবলিত হয়ে জীবন হানির শঙ্কায় মানুষের মধ্যে আতঙ্ক বিরাজ করছে।
সাবেক রাষ্ট্রপতি এরশাদ সরকারের আমলে থানাকে উপজেলা হিসাবে ঘোষণার পর উপজেলা পরিষদের মাঝ বরাবর বৃহৎ আকারের একটি একতলা বিশিষ্ট বিল্ডিং নির্মাণ করা হয়েছিল। আদালত হিসাবে ব্যবহৃত বিল্ডিং-এ ১০টি কক্ষ এবং হাজতখানার জন্য আরও ৩ কক্ষ বিশিষ্ট একটি সুরক্ষিত অংশ আছে। আশাশুনি থেকে উপজেলা উঠিয়ে নেওয়ার পর ঐ বিল্ডিংটিতে সাব-রেজিষ্ট্রার অফিস, সেটেলমেন্ট অফিস, মহিলা বিষয়ক কর্মকর্তার অফিস, খাদ্য পরিদর্শকের অফিস, থানার অস্থায়ী কার্যালয়সহ বিভিন্ন অফিস কার্যক্রম পরিচালনা করা হয়েছে। বিল্ডিংটি পরিত্যাক্ত অবস্থায় থাকলেও অনেক ঝুঁকি নিয়ে কয়েকটি অফিস কার্যক্রম চালিয়েছে। তখন কমপক্ষে ৮/১০ বার বিল্ডিং এর পলেস্তারা ও বড়বড় অংশ ভেঙ্গে অফিস কর্মচারীসহ কাজে আসা সাধারণ মানুষ আহত হয়েছেন।
বর্তমানে সেখানে খাদ্য পরিদর্শকের অফিস ও মহিলা দপ্তরের ট্রেনিং সেন্টারের অংশ বিশেষের কাজ করছে। ভবনটি পরিত্যক্ত থাকায় সেখানে ঝড়বৃষ্টি ও সময়-অসময়ে মানুষের গমনানুগমন ঘটে। মাঝে মধ্যে ভবনের ছাদ ও প্লাস্টারের অংশ খসে পড়ায় চরম বিপদাপন্ন হয়ে উঠেছে। পরিষদের মাঝে পরিত্যক্ত ভবন দাড়িয়ে থাকায় পরিষদের পরিবেশ নষ্ট হচ্ছে। ভবনটি অপসারণ না করা হলে সেখানে নতুন প্লানে নতুন ভাবে কিছু করাও সম্ভব হচ্ছেনা। ভবনটি অপসারণ করা গেলে অডিটোরিয়ামসহ অন্য প্রয়োজনীয় ভবন নির্মানের যায়গা বেরিয়ে আসবে। এব্যাপারে উপজেলা প্রশাসনসহ উর্দ্ধতন কর্তৃপক্ষের আশু হস্তক্ষেপ কামনা করা হয়েছে।

Top