মহেশপুর থানার ডাকাতি মামলার বাদী এসআই আনিছ সহ আরো চার পুলিশ ক্লোজড

index_88326.jpg

মোস্তাফিজুর রহমান উজ্জল, ঝিনাইদহ প্রতিনিধি:
ঝিনাইদহের মহেশপুর থানার এস.আই আনিচ সহ চার পুলিশকে ক্লোজড করা হয়েছে। ক্লোজড হওয়া অন্য পুলিশ সদস্যরা হলেন- কনস্টেবল গাফ্ফার, আসাদ, এমরান। এ নিয়ে মহেশপুর থানার ২এসআইসহ মোট ৮জনকে ক্লোজড করা হলো।
মহেশপুর থানা সূত্রে প্রকাশ, কর্তব্য পালনে অবহেলা করায় তাদেরকে ক্লোজড করা হয়েছে। গত বৃহস্পতিবার মধ্যরাতে মহেশপুরের পুরন্দপুর নামক স্থানে সোনারতরী পরিবহনে পুলিশ পরিচয়ে একটি ডাকাতির ঘটনা ঘটে। এই ঘটনায় গত ৭ই জানুয়ারী এ্সআই আনিচ বাদী হয়ে মহেশপুর থানায় একটি ডাকাতি মামলা করে। যার নং-১০(১)১৮। একটি সূত্র থেকে জানা গেছে, ঐদিন বাস থেকে একটি সোনার চালান গায়েব করা হয়। সোনার মালিকপক্ষ বিভিন্ন জায়গায় তদবির-দাগাদা করলে বিষয়টি ফাঁস হয়ে যায়। এই ঘটনায় পুলিশের পক্ষ থেকে অতিরিক্ত পুলিশ সুপার আজবাহার আলী তদন্তে নামে। গত ৮জানুয়ারী এসআই নাজমুল সহ ৪জনকে প্রশাসনিক কারন দেখিয়ে পুলিশ লাইনে ক্লোজড করা হয়। বিষয়টি বিভিন্ন গণমাধ্যমে প্রকাশ হলে মহেশপুর উপজেলার খালিশপুর থেকে বারমাসিয়া পর্যন্ত এ রাত্রে হাইওয়ে ডিউটিরত ছিল এসআই আনিচ সহ ৪জন। এই ৪জনকে মঙ্গলবার সকালে ঝিনাইদহ পুলিশ লাইনে ক্লোজড করা হয়েছে। এ বিষয়ে এসআই আনিচের সঙ্গে যোগাযোগ করলে তিনি বলেন, আমাদেরকে কেন কি কারণে ক্লোজড করা হয়েছে তা আমরা কিছুই জানি না। মহেশপুর থানার ওসি(তদন্ত) ফারুক হোসেনের সাথে যোগাযোগ করলে তিনি বলেন, এসপি অফিসের নির্দেশনায় ৪জনকে ক্লোজড করা হয়েছে।

Top