কচ্ছপিয়ায় এক পাহাড়ের চুড়ায় যুবকের মাথাবিহীন গলিত লাশ উদ্ধার

download-9.jpg

শামীম ইকবাল চৌধুরী,নাইক্ষ্যংছড়ি(বান্দরবান)থেকেঃঃ
রামুর কচ্ছপিয়ার দূর্ঘম পাহাড়ী এলাকায় এলাকায় এক যুবক অর্ধগলিত ও মাথাবিহীন লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ।
গত ৯ জানুয়ারী মঙ্গলবার বিকাল ৩টায় কচ্ছপিয়া ইউনিয়নের ৬নং ওয়ার্ডের তিলিশমা পাহাড়ের চুড়া থেকে এ লাশ উদ্ধার করা হয়। তার দেহ দেখে অনুমান করা যায় যুবকটির বয়স ৩০ থেকে ৩৫ বছরের বয়সী।
সূত্রে জানাযায়, ওই এলাকার বাসিন্দা আহাম্মদ উল্লাহ চৌকিদারের মাধ্যমে গর্জনিয়া পুলিশ ফাঁড়ীতে খবর দিলে তাৎক্ষুণিক পুলিশের একটি টিম ঘটনা স্থলে পৌঁছে । পুলিশ ও জনতার সহযেগিতায় মাথাবিহীন ও গলাকাটা গলিত লাশটি পাহাড়ের চুড়া থেকে উদ্ধার করে পুলিশ ফাঁড়ীতে নিয়ে আসে।
প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, ঘটনাস্থলের পাহাড়ের নিছে লোকজন ধানি জমিনে কাজ করতে গিয়ে হঠাৎ বিরক্তকর দূর্গদ্ধ ছড়িয়ে পড়লে এলাকার লোকজন পাহাড়ের চুড়ায় গিয়ে দেখে একটি গলাকাটা ও মাথাবিহীন অর্ধগলিত যুবকের লাশ দেখতে পায়।ওই লাশের পরিধানে লুঙ্গি, গায়ে সাদা শার্ট ও কালো চেকের গামছা এবং কয়েক হাত দূরে বিষের বোতল যার গায়ে লেখা ছিল (আসাথিয়ন ৫৭ ইসি) ।
গলিত লাশ উদ্ধারের কথা নিশ্চিত করেন গর্জনিয়া পুলিশ ফাঁড়ী ইনচার্জ পুলিশ পরিদর্শক (ওসি তদন্ত) কাজী আরিফ উদ্দিন।
তিনি এই প্রতিবেদককে জানান, মাথা বিহীন লাশ হওয়ায় নাম ও কোন রখম পরিচয় পাওয়া যায়নি।
তবে অন্তত এক মাস আগেই এ ঘটনা ঘটতে পারে বলে ধারণা করা হচ্ছে। এই মৃত ব্যক্তিকে কেহ হত্যা হত্যা করেছে তা বিশেষ কিছু আলামত দেখা গেছে। পুলিশ হত্যাকাণ্ডের কারণ উদঘাটন করার চেষ্টা চালিয়ে যাবে। পুলিশ লাশটির সুরতহাল শেষে করে ময়না তদন্তের জন্য কক্সবাজার সদর হাসপাতালের প্রেরণ করা হয়েছে। ময়না তদন্তের রির্পোট না আসা পর্যন্ত কোন রখম কিছু বলা যাচ্ছেনা।

Top