৪ নারী ধর্ষণের মামলা শেষ পর্যন্ত পিবিআইকে তদন্তভারঃ

received_259661807897321.jpeg

জে,জাহেদ বিশেষ প্রতিবেদকঃ

কর্ণফুলী থানা এলাকায় এক প্রবাসীর বাড়ীতে ডাকাতি করতে গিয়ে ৪ নারীকে ধর্ষণের ঘটনার মামলার তদন্তভার দেয়া হয়েছে পুলিশ ব্যুরো অব ইনভেষ্টিগেশন (পিবিআই) চট্টগ্রামকে।

পিবিআই চট্টগ্রাম মহানগর অঞ্চলের পরিদর্শক সন্তোষ কুমার চাকমা গণমাধ্যমক এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

সন্তোষ কুমার চাকমা বলেন, ‘থানা পুলিশের কাছ থেকে আমরা মামলার দায়িত্ব নিয়েছি।

পিবিআই হেডকোয়ার্টার থেকে মামলার তদন্তভার গ্রহণের জন্য সোমবার (২৫ ডিসেম্বর) আমাদের কাছে একটি চিঠি পাঠানো হয়েছে। আজ আমরা ওই চিঠি হাতে পেয়েছি।’

ঘটনার ১২দিনের মাথায় চাঞ্চল্যকর এ মামলার কোন কূলকিনারা করতে না পেরে পুলিশ নিজেদের ব্যর্থতার দায়ভার স্বীকার করে সংবাদ সম্মেলন করার পর দিন আজ এ মামলার ভার দেয়া হলো পিবিআইকে।

বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন পিবিআই চট্টগ্রামের এডিশনার এসপি মাঈন উদ্দিন। তিনি বলেন আজ আমরা এ মামলা ফাইলপত্র বুঝে নিয়েছি। শীঘ্রই মামলার তদন্ত কাজ শুরু হবে।

উল্লেখ্য, গত ১২ ডিসেম্বর রাতে কর্ণফুলী উপজেলার শাহমীরপুর গ্রামের এক বাড়িতে ডাকাতির পর চার নারীকে ধর্ষণ করে।

এদিকে গতকাল সোমবার (২৫ ডিসেম্বর) দুপুরে কর্ণফুলী থানায় আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে সাংবাদিকদের প্রশ্নবানে জর্জরিত হয়ে এক পর্যায়ে মামলার তদন্তে এবং তাৎক্ষণিক যথাযথ ভূমিকা পালনের ক্ষেত্রে নিজেদের কিছুটা ব্যর্থতা হয়েছে বলে স্বীকার করেন সিএমপির উপ-পুলিশ কমিশনার (বন্দর) হারুন উর রশীদ হাযারী।

স্পর্শকাতর এ ঘটনার পর আমাদের (পুলিশের) যে ভূমিকা পালনের উচিত ছিল সে ক্ষেত্রে আংশিক ব্যর্থতা ছিল।

মামলা নেওয়া কিংবা আসামি গ্রেফতারের ক্ষেত্রেও কিছুটা বিলম্ব হয়েছে বলে তিনি জানান।

পিবিআইতে মামলা হস্তান্তর বিষয়টি কর্ণফুলী থানার ওসি তদন্ত ইমাম হাসান ও সত্যতা স্বীকার করেন।

Top