‘পথকলির একটি অাশা,কবে পূরণ হবে?

IMG_20171128_191001.jpg

ছবির ক্যাপশন ( স্টাফ রিপোর্টার মিসবাহুল হাসান শাওনের ক্যামেরায় তোলা ছবিতে বিস্তারিত লিখেছেন স্টাফ রিপোর্টার রাকিবুল হাসান তামিম।

—————————-
জীবন ! যেটি কারো জন্য অানন্দময় অাবার কারো জন্য যন্ত্রনার। তবে সেই যন্ত্রনা যদি কারো জীবনে প্রতিনিয়ত বয়ে বেড়াতে হয় তবে সেটি যন্ত্রনা নয় সেটি হয় অভিশাপ।
বর্তমান সরকার এতিম অনাথ সহ বিভিন্ন শ্রেণীর মানুষের জন্য সহযোগীতা অব্যাহত রাখলেও সব সুবিধা থেকে বঞ্চিত হচ্ছে এক শ্রেণীর সাধারণ মানুষ। যাদের অধিকাংশই ছোট বয়সের।যাদের দিনকাটে রাস্তায় রাস্তায় অার রাত অতিবাহিত হয় ফুটপাতে।
কেউ কি দুর থেকে হলেও তাকিয়ে দেখে তাদের এ সব বেদনাময় জীবনের ব্যাথা একটু অনুভব করার চেস্টা করে?

এমনই এক দৃশ্য দেখা গেল আজ সকালে রাজধানীর গুলিস্তানের হকি স্টেডিয়াম চত্বরে।
ঠান্ডা হিমেল হাওয়ায় খোলা আকাশের নিচে কম্বল মুড়ি দিয়ে গভীর ঘুমে থাকা ছেলেটির সঙ্গী প্রভুভক্ত কুকুরের ঘুমিয়ে থাকা দেখে পাশে ভীড় জমাচ্ছিল কিছু সাধারণ পথচারী।

নিউজ ভিশনের স্টাফ রিপোর্টার মিসবাহুল হাসান শাওনের ক্যামেরায় তোলা ছবিতে বিস্তারিত লিখেছেন স্টাফ রিপোর্টার রাকিবুল হাসান তামিম।

চিৎকার, যান্ত্রিকতা অার গাড়ীর শো শো শব্দ আর অসহায় মানুষের হাহাকার চুপসে গিয়ে এ নগরীর বুকে নেমে আসে নীরবতা।
অাবার এই নীরবতা কে ছেদ করে পূর্ব দিগন্তে সূর্য উঠার সাথে সাথে বাড়তে থাকে কর্মব্যাস্ত মানুষের তৎপরতা।

কিন্ত অাজ সকালে রাজধানীর গুলিস্তানের হকি স্টেডিয়াম এর চত্বরে মা-বাবা হারানো তৌফিক ঘুমিয়ে অাছে তার সর্বক্ষণের সহচার্য এক কুকুর বুকে কে নিয়ে। কর্মব্যাস্ত মানুষের এ শহরে কোন শব্দই যেন প্রবেশ করছে না তার কর্ণকুহরে, প্রশান্তিময় গভীর ঘুমে অাচ্ছন্ন তৌফিক ও তার প্রভুভক্ত কুকুর।

প্রতিবেদকের ক্যামেরায় যখন তৌফিক বন্দি হচ্ছিল তখন অাশে পাশের উৎসুখ জনতা তার দিকে হুমড়িয়ে পড়ছিল,তখন গভীর ঘুম থেকে হঠাৎ উঠে চোখ কচলাতে কচলাতে বলল কোন সমস্যা হয়েছে?
চাহুনিতে অাতংকের ছাপ; প্রতিবেদক অভয় দিলে বলল ঠিক অাছে,কোন সমস্যা নেই।

তাকে নিয়ে পাশের দোকানে গিয়ে নাস্তার ফাকে সে তুলে ধরল তার জীবণ ইতিহাস। মা বাবাকে হারিয়ে নিজের কোন কিছু বুঝে না পেয়ে (কুকুর কে)ওকে নিয়ে এখানে থাকি;কিন্ত রাতে থাকতে গেলেও বাধে বিপত্তি!
অনেক সমস্যার সম্মুখিন হতে হয় কিন্ত কি রকম সমস্যা সে সব বলতে নারাজ তৌফিক।

তৌফিকের অাশা সে বড় হয়ে যেন ভালভাবে থাকতে পারে সে জন্য সে একটি ব্যাবসা করতে চায়..
কিন্ত পারবে কি তৌফিক তার এ অাশা পূরণ করতে?

Top