জেলা পুলিশ লাইন স্কুল নির্মাণ করে দিল পিএইচপি পরিবার

received_146427882775972.jpeg

মোঃশহিদুল ইসলাম সুমন
ষ্টাফ রিপোর্টার, চট্টগ্রাম।
হালিশহরে অবস্থিত জেলা পুলিশ লাইন শহীদ এসপি এম. শামসুল হক পাবলিক স্কুল নির্মান করে দিয়েছে পিএইচপি পরিবার। শুরু থেকে দশম শ্রেণি পর্যন্ত এ স্কুলটি হালিশহর ও আশপাশের জনসাধারনের সন্তানদের ও পুলিশের পরিবারদের শিক্ষাক্ষেত্রে অগ্রনী ভুমিকা পালন করছে।
রবিবার (১২ নভেম্বর) দুপুরে পিএইচপি সেন্টারে এক অনাড়ম্বর অনুষ্ঠানে চট্টগ্রাম জেলা পুলিশ সুপার জনাব নুরেআলম মিনার হাতে অনুদানের চেক তুলে দেন বিশিষ্ট শিল্পপতি ও পিএইচপি পরিবারের চেয়ারম্যান আলহাজ সুফি মোহম্মদ মিজানুর রহমান।

এ সময় অন্যদের মধ্যে পিএইচপি পরিবারের ভাইস চেয়ারম্যান মোহম্মদ মহসিন, অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মো. রেজাউল মাসুদ উপস্থিত ছিলেন। এছাড়া অতিরিক্ত পুলিশ সুপার উত্তর, দক্ষিণের ঊর্ধ্বতন পুলিশ কর্মকর্তা ও পিএইচপি পরিবারের কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন।
এর আগে প্রায় অর্ধ কোটি টাকা খরচ করে ২০০৩ সালে এ স্কুলটির অবকাঠামো নির্মান করে দেয় পিএইচপি পরিবার। তৎকালিন ডিআইজি সাত্তার ও পিএইচপি পরিবারের চেয়ারম্যান সুফি মোহম্মদ মিজানুর রহমান এ স্কুল ভবনটি নির্মানের পর উদ্বোধন করেছিলেন। সেই ধারাবাহিকতায় উন্নয়ন কাজে শনিবার ১৭ লাখ টাকা প্রদান করা হয়।শহীদ এসপি এম. শামসুল হক পাবলিক স্কুল
চট্টগ্রাম জেলা পুলিশ সুপার নুরেআলম মিনা বলেন, বৃহত্তর শিল্পগোষ্ঠি হিসেবে পিএইচপি পরিবারের প্রত্যেকটি সদস্য নিরলস প্রচেষ্টার মাধ্যমে দেশের সেবায় কাজ করে এ প্রতিষ্ঠানকে দেশের শ্রেষ্ঠ শিল্পপ্রতিষ্ঠান হিসেবে রূপান্তর করেছে।

তিনি বলেন, এ শিল্পপ্রতিষ্ঠানের কর্ণধার শিল্পপতি সুফি মিজানুর রহমানের সাথে আমাদের আত্মিক সর্ম্পক বহু আগের। আবারও এ সম্পর্কের বুনিয়াদ আরও শক্ত করে গড়ে দিলেন তিনি।

জেলা পুলিশ সুপার পিএইচপি পরিবারকে তাদের বদান্যতার জন্য ধন্যবাদ জানান।

সুফি মোহম্মদ মিজান বলেন, স্কুলের উন্নয়নের সাথে থাকতে পেরে আমরা আনন্দিত। ভবিষ্যতে সব রকমের সহায়তা আমরা করবো।
তিনি বলেন, আমরা দেশের প্রতিটি মানুষকে শিক্ষিত দেখতে চাই। যে দেশের মানুষ যত বেশী শিক্ষিত, সে জাতি তত বেশী উন্নত। আর বেশীদিন দুরে নয়, আমরা অচিরেই বিশ্বের উন্নত দেশে পরিনত হবো। পরে দেশ ও জতির মংগল কামনায় মোনাজাত করা হয়।

Top