চকরিয়ায় বর্নাঢ্য অায়োজনে আয়কর মেলার উদ্বোধন

tax_abnews_109477.gif

মুহাম্মদ ওমর ফারুক,চকরিয়া প্রতিনিধিঃ
কক্সবাজারের চকরিয়ায় কর অঞ্চল ৮৮ এর আয়োজনে আয়কর মেলার উদ্বোধন করা হয়েছে।

‘উন্নয়নের অক্সিজেন, জনকল্যাণে রাজস্ব’
স্লোগানে ৬ অক্টোবর সোমবার চকরিয়া থানা সেন্টারস্থ প্রমিলা ভবন মিলনায়তনে কর কার্যালয়ের সামনে বেলুন ও শান্তির প্রতীক পায়রা উড়িয়ে মেলার উদ্বোধন করেন চকরিয়া-পেকুয়া আসনের সংসদ সদস্য হাজী মোহাম্মদ ইলিয়াছ।

কর অঞ্চল-৪ চট্টগ্রামের যুগ্ম কর কমিশনার মিসেস শ্রাবনী চাকমার সভাপতিত্বে উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে স্বাগত বক্তব্য রাখেন চকরিয়া উপ-কর কমিশনার কাজী সাদেক হোসাইন। প্রধান অতিথির বক্তব্য রাখেন সংসদ সদস্য হাজি মোহাম্মদ ইলিয়াছ। বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন চট্টগ্রাম কর অঞ্চল-৪ এর অতিরিক্ত কমিশনার মুহাম্মদ মফিজ উল্যাহ।

চকরিয়া উপ-কর অধিদপ্তরের পরির্দশক আমান উল্লাহ আমানের সঞ্চালনায় অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন চকরিয়া উপজেলা পরিষদের সাবেক চেয়ারম্যান এসএস জাহাংগীর আলম বুলবুল, কক্সবাজার জেলা পরিষদের নারী প্যানেল চেয়ারম্যান আসমাউল হুসনা, জেলা পরিষদের নারী সদস্য রেহেনা খানম রাহু, চকরিয়া পৌরসভার প্যানেল মেয়র বশিরুল আইয়ুব।

অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন সনাক টিআইবি চকরিয়ার সভাপতি অধ্যাপক সাহাবউদ্দিন, উপজেলা জাতীয় পার্টির সভাপতি গিয়াস উদ্দিন মেম্বার, সাধারণ সম্পাদক জসিম উদ্দিন, তরুণ ব্যবসায়ী ও করদাতা খলিল উল্লাহ চৌধুরী, আওয়ামীলীগ নেতা সোলতান আহমদ, উপজেলা জাপার সাংগঠনিক সম্পাদক সিরাজুল ইসলাম, এমপির সহকারী মো.নাজিম উদ্দিন, মহিলা নেত্রী সজরুন নাহার ভুলু প্রমুখ। পরে প্রধান অতিথি অনুষ্ঠানে সেরা করদাতাদের মাঝে পুরস্কার তুলে দেন।
চকরিয়া উপ-কর অধিদপ্তর ৮৮ এর উপ-কর কমিশনার কাজী সাদেক হোসাইন বলেন, বছরের প্রতিটি দিবস করদাতাদের জন্য আমাদের সেবা অব্যাহত রয়েছে। তারপরও আমরা করদাতাদেরকে উৎসাহিত এবং আয়কর প্রদানে অভ্যস্ত করতে সরকারের সংশ্লিষ্ট বিভাগের নির্দেশে মাঠপর্যায়ে বছরে একবার মেলার আয়োজন করে থাকি। তিনি বলেন, একদিনের মেলায় ১৬৫জন করদাতা উপস্থিত হয়ে আয়কর প্রদান করেছেন। আদায়কৃত আয়করের পরিমাণ ৭লাখ ৬১ হাজার ৮৫২ টাকা।

অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি সংসদ সদস্য হাজি মোহাম্মদ ইলিয়াছ বলেন, উন্নতশীল একটি স্বনির্ভর বাংলাদেশ বির্নিমানে সকলকে নিয়মিত আয়কর প্রদান করতে হবে। রাজস্ব বা আয়কর হচ্ছে একটি রাষ্ট্রের হৃদপিন্ড, যেমন একটি গাছকে বাঁচাতে হলে নিয়মিত তাঁর গোড়াঁলিতে পানি দিতে হয়, তেমনি উন্নয়ন সমৃদ্ধ একটি রাষ্ট্রের অগ্রযাত্রা ও স্তম্ব মজবুত করতে হলে নিশ্চিত করতে হবে শতভাগ আয়কর ও রাজস্ব আদায়। তিনি বলেন, বর্তমান সরকারের আমলে সকল সেক্টরে রাজস্ব আয়ের পরিমাণ প্রতিবছর বাড়ছে। করদাতাও বর্তমানে আয়কর প্রদানে অভ্যস্ত হচ্ছে। তাদেরকে আরো উৎসাহিত করতে হবে। তবে সেবা গ্রহনের ক্ষেত্রে করদাতারা যাতে অহেতুক হয়রানির শিকার না হয় সেই দিকে সংশ্লিষ্টদেরকে নজর রাখতে হবে। #

Top