মাটিরাঙ্গা পৌরসভার কাউন্সিলরের কান্ডে অতিষ্ঠ জনতা

nvhhf.jpg

রেদোয়ান বাবু,মাটিরাঙ্গা প্রতিনিধি :
একের পর এক বিতর্কিত কান্ডের জন্মদাতা কাউন্সিলর সোহেল রানার ব্যাপারে এলাকাবাসীর বিরক্তি চরমে পৌঁছেছে।শিক্ষককে মারধর সহ অসংখ্য লোক তার হাতে লাঞ্ছনার শিকার হয়েছে।টক্কা ব্যবসা,সিন্ডিকেটে রেশন ব্যবসা ও চোরা চালানের মতো অসংখ্য অভিযোগ তার বিরুদ্ধে।এই সব অনৈতিক কর্মকাণ্ডের খেসারৎ দিতে কয়েকবার শ্রীঘরে আশ্রয় ও পেয়েছিলেন!
এবার সহযোগী সহ ইয়াবা নিয়ে হাতে নাতে ধরা খেলেন আইন শৃঙ্খলা বাহিনীর হাতে। এসময় তার ব্যাক্তিগত প্রাইভেট কার থেকে ৭২পিস ইয়াবা ও এক পুরিয়া গাজা উদ্ধার করে নিরাপত্তাবাহিনীর সদস্যরা। আটক কাউন্সিলর মো: সোহেল রানা মাটিরাঙ্গা পৌরসভার মুসলিমপাড়া গ্রামের মো: আবদুল খালেকের ছেলে। তার অপর দুই সহযোগী হলো, মাটিরাঙ্গার মুসলিমপাড়ার মৃত: নুরুল ইসলামের ছেলে মো: জসিম উদ্দিন (২৮) ও চাঁদপুরের কচুয়া উপজেলার চাঁদপুর কচুয়া গ্রামের মো: আবুল খায়ের এর ছেলে মো: মোহন মীর(২৫)। জানা গেছে, খাগড়াছড়ি থেকে মাদক পাচার হবে এমন গোয়েন্দা তথ্যের ভিত্তিতে মাটিরাঙ্গা সেনা জোনের ১নং আরপি গেইটে বিভিন্ন যানবাহনে তল্লাশী চালায় নিরাপত্তাবাহিনীর সদস্যরা। তল্লাশীকালে সোমবার বিকাল ৪টার দিকে তার ব্যাক্তিগত প্রাইভেট কার থেকে ইয়াবা উদ্ধার করা হয়। ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে মাটিরাঙ্গা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) সৈয়দ মো: জাকির হোসেন, গোপন সংবাদের ভিত্তিতে নিরাপত্তা বাহিনী বিকেলে ৪ টায় দুই সহযোগীসহ মাটিরাঙ্গা পৌরসভার ৮নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর মো: সোহেল রানা-কে ৭২ পিস ইয়াবাসহ আটক করে। এসময় তার ব্যাক্তিগত প্রাইভেট কার ও ৬টি মোবাইল ফোন জব্দ করা হয়েছে বলে জানান তিনি। তার বিরুদ্ধে মাদক দ্রব্য নিয়ন্ত্রণ আইনে মামলা দায়ের করা হয়েছে বলেও জানান তিনি।

Top