ঘূর্ণিঝড় “মোরা ” মোকাবেলায় প্রস্তুত কুতুবদিয়া উপজেলা প্রশাসন

29-5.jpg

এম.নজরুল ইসলাম,কুতুবদিয়া প্রতিনিধি :

কক্সবাজার উপকূলের দিকে ধেঁয়ে আসা ঘূর্ণিঝড় “মোরা” মোকাবেলায় প্রস্তুতি নিয়েছে কুতুবদিয়া উপজেলা প্রশাসন। ২৯ মে (সোমবার) বিকাল দুই টায় উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা সুজন চৌধুরী উপজেলার সকল দপ্তরের কর্মকর্তাদের নিয়ে নিজ কার্যালয়ে এক প্রস্তুতি সভার আয়োজন করেন।

সভায় তিনি জানান, উপজেলার মোট ১১০ টি সাইক্লোন সেল্টারের সবকটিই খোলা রাখার নির্দেশ দেয়া হয়েছে। এছাড়া উপজেলার অতি ঝুঁকিপূর্ণ প্রায় আড়াই হাজার জনবসতীকে নিরাপদ স্থানে সরিয়ে আনার জন্যও ব্যবস্থা নেয়া হয়েছে। দূর্যোহকালীন সময়ে আইন শৃঙ্গলা পরিস্থিতি স্বাভাবিক রাখতে প্রস্তুত থাকতে বলা হয়েছে কুতুবদিয়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তাকে। এছাড়া জরুরী মূর্হুতে চিকিৎসা সেবা দিতে প্রস্তুত থাকবে একাধিক মেডিকেল টিম। এজন্য উপজেলার সকল দপ্তরের কর্মকর্তা/কর্মচারীদের ছুটি বাতিল করা হয়েছে।

এদিকে খবর নিয়ে জানাযায়, উপজেলা প্রশাসন সকাল থেকে ঝুঁকিপূর্ণ জনবসতীকে নিরাপদ স্থানে চলে আসার জন্য মাইকিং করলেও কেউই পাত্তা দিচ্ছেন না। যে যারমত স্বাভাবিক দৈনন্দিন কাজে নিয়োজিত রয়েছেন। তবে এখানে উল্লেখ করা প্রয়োজন যে, ১৯৯১ সালের ২৯ এপ্রিলের সোমবার আঘাতহানা ঘূর্ণিঝড়ের তান্ডবে কুতুবদিয়াবাসী হারিয়েছিল তাদের প্রিয়জনদের। ঐ ঘূর্ণিঝড়ে ১লাখ ৩৮ হাজার মানুষ প্রাণ হারায়। প্রায় সর্বস্ব হারিয়ে নিঃস্ব হয় এক কোটি মানুষ। আজ ২০১৬ সালের ২৯ মে সোমবার। আগামী সকাল নাগাদ ঘূর্ণিঝড় মোরা উপকূল অতিক্রম করবে বলে ধারনা করছে আবহাওয়া অধিদপ্তর। এদিনও কি তাই হতে যাচ্ছে কুতুবদিয়াবাসীর ভাগ্য?

সবাইকে নিরাপদ স্থানে চলে আসার আহবান জানিয়েছেন কুতুবদিয়া উপজেলা প্রেসক্লাবের নেতৃবৃন্দরা। সেই সাথে ঝুঁকি এড়াতে উপজেলা প্রসাশনসহ সকল দপ্তরের কর্মকর্তাদের প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ নেয়ার আহবান করা হয়েছে।

Top