চট্টগ্রামের ৩০ গ্রামে কাল থেকে রোজা

1230.jpg

সাইফুল ইসলাম,চট্টগ্রাম ।
গতকাল বৃহস্পতিবার সৌদি আরবে পবিত্র রমযান মাসের চাঁদ দেখা যায়নি। ফলে চট্টগ্রামের ৩০ গ্রামের মানুষ সৌদি আরবের সাথে মিল রেখে কাল শনিবার থেকে পবিত্র রোজা পালন শুরু করবেন। আজ শুক্রবার রাত থেকে তারা তারাবির নামাজ আদায় ও সেহেরি খাওয়া শুরু করবেন। সাতকানিয়ার সোনাকানিয়ার মির্জারখীল দরবার শরীফের মুরিদগণ সৌদি আরবের সাথে মিল রেখে অন্যান্য বছরের মতো এবারও একদিন আগে থেকে রোজা পালন শুরু করছেন।মির্জারখীল দরবার শরীফ সূত্রমতে,সাতকানিয়ার মির্জারখীল, এঁওচিয়ার গাটিয়া ডেঙ্গা,মাদার্শা, চন্দনাইশের কাঞ্চননগর,হারালা, বাইনজুরি, কানাই মাদারি, সাতবাড়িয়া, বরকল, দোহাজারী,জামিরজুরি, বাঁশখালীর কালিপুর,চাম্বল, শেখের খীল, ডোংরা, ছনুয়া,আনোয়ারার বরুমছড়া, তৈলারদ্বীপ, লোহাগাড়ার পুটিবিলা, কলাউজান,বড়হাতিয়া এবং পটিয়া, বোয়ালখালী, হাটহাজারী, সন্দ্বীপ,রাউজান ও ফটিকছড়ির কয়েকটি গ্রামসহ চট্টগ্রামের মোট ৩০টি গ্রামের মানুষ আগামীকাল থেকে রোজা পালন শুরু করবেন। এছাড়া পার্বত্য জেলা বান্দরবানের লামা, আলীকদম, নাইক্ষ্যংছড়ি,কক্সবাজারের চকরিয়া, টেকনাফ, মহেশখালী ও কুতুবদিয়ার কয়েকটি গ্রামে থাকা মির্জারখীল দরবার শরীফের মুরিদরা আগামীকাল থেকে রোজা পালন শুরু করবেন।মির্জারখীল দরবার শরীফের মুখপাত্র ও মির্জারখীল উচ্চ বিদ্যালয়ের শিক্ষক বজলুল করিম চৌধুরী জানান, মির্জারখীল পুরো গ্রামের মানুষ আগামীকাল থেকে রোজা পালন করবেন। পাশাপাশি চট্টগ্রামের বিভিন্ন উপজেলার অন্তত ৩০টি গ্রামে থাকা মির্জারখীল দরবার শরীফের মুরিদরাও আগামীকাল থেকে রোজা রাখবেন। সে অনুযায়ী আজ শুক্রবার রাত থেকে তারাতারাবির নামাজ আদায় ও সেহেরি খাওয়া শুরু করবেন। মির্জারখীল দরবার শরীফের অনুসারীরা দুই শত বছরের অধিক সময় ধরে সৌদি আরবের সাথে মিল রেখে একদিন আগে থেকে রোজা পালন ও ঈদ উৎযাপন করে আসছেন।

Top