রামুর কচ্ছপিয়ায় এলজিইড়ির ১ কিলোমিটার কার্পেটিং কাজ শুরু।

46511250_295217357779667_5904677633601306624_n-Copy.jpg

মোঃসাইদুজ্জামান সাঈদ, রামু :

রামুর কচ্ছপিয়ার হাজির পাড়া এলজিইডির ১ কিলোমিটার রাস্তার উন্নয়ন কাজ শুরু করেন। রামু উপজেলার কচ্ছপিয়া ইউনিয়নের একটি হাজির পাড়া সড়কের উন্নয়ন প্রকল্পের কাজ শুরু করেন।

স্থানীয় সরকার প্রকৌশল বিভাগের (এলজিইডি) টেন্ডারে মাত্র এক কিলোমিটারের সড়কটি এখন এলাকার ৫ টি গ্রামবাসীর সীমাহীন দুর্ভোগের কারন হয়ে দাড়িয়েছে। সড়কের উন্নয়নের কাজ শুরু করেন।অতি তারাতারি সড়কের কাজ শেষ করবেন। গ্রামীণ একটি ছোট প্রকল্পের কাজ শেষ করবেন।সরকার অত্যন্ত আন্তরিক ভাবে চেষ্টা করছে গ্রামীণ যোগাযোগ সহজতর করে উন্নয়নের সুফল জনগনের কাছে পৌঁছে দিতে। সরকারের আন্তরিকতা সাধারণ মানুষের কাছে পৌঁছতে পারে।
কক্সবাজার-রামু (গর্জনিয়া বাজার সড়ক) সড়কে হাজির পাড়ার চেয়ারম্যান গেইট থেকে হাজির পাড়া রাইচ মেইল পর্যন্ত মাত্র ১ কিলোমিটার সড়কের কার্পেটিং কাজটি শুরু করেন। এতদিন সড়কটি ইট বিছানো ছিল। সরকার গ্রাম পর্যায়ের সড়ক উন্নয়ন করার যে কর্মসুচি নিয়েছে। এলাকাবাসীকে দীর্ঘদিনের দুর্ভোগ থেকে রেহাই দেয়ার জন্য আবু মোঃইসমাঈল নোমান চেয়ারম্যান আর্থিক সহায়তার হাতও বাড়িয়ে দেন। সড়কটির কাজ দ্রুত সম্পন্ন করার জন্য এলাকাবাসী পর্যন্ত যেখানে এগিয়ে এসেছেন। প্রস্থে মাত্র ৫ মিটার এবং দৈর্ঘ্য এক কিলোমিটার সড়কটির কাজ করার জন্য বর্ষার আগেই পুরানো ইটগুলোও তুলে নেয়া হয়েছে। পুরো বর্ষা মওসুমে এলাকার ৫ টি গ্রামের বাসিন্দাদের দুর্ভোগের যেন শেষ নেই।

এ বিষয়ে এলাকাবাসীর পক্ষে আবুল কালাম মেম্বার স্থানীয় জানান-‘আমাদের সরকার গ্রামের মানুষের উন্নয়নের কাজ করে আসছে।পড়ে সরকারের তৃণমূলের উন্নয়ন কর্মকান্ড হচ্ছে।তিনি আরো বলেন, বর্ষার পুরো সময়টি আমরা গ্রামের বাসিন্দারা সাংঘাতিক কষ্টের মধ্যে কাটিয়েছি। নির্বাচন সামনে নিয়ে নৌকায় মার্কা বিজয় করার লক্ষ্য কাজ করে যাচ্ছেন।
তবে আবু মোঃইসমাঈল নোমান চেয়ারম্যান জানান আগামী এক মাসের মধ্যেই কাজটি শেস করে দেব।
এ বিষয়ে কক্সবাজার এলজিইডির নির্বাহী প্রকৌশলী মীর্জা মোঃ ইফতেখার আলী জানান-‘ প্রকল্পটি অতি শীঘ্রই কাজ শেষ করে দিবেন। আশা করি কাজটি দ্রুত হয়ে যাবে।

Top