সরিষাবাড়ীর নৌকাপ্রেমী লাখো মানুষের কান্না” অধ্যক্ষ আব্দুর রশীদের মনোনয়নের দাবীতে

abdur-rosid-1.jpg

দেশরত্ন জননেত্রী শেখ হাসিনার
সমীপে নৌকার দাবিতে খোলা চিঠি

মাসুদুর রহমান-সরিষাবাড়ী ঃ

একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে অধ্যক্ষ মো: আবদুর রশীদকে নৌকা প্রতিকে মনোনয়ন দেয়ার দাবিতে বৃহস্পতিবার সন্ধ্যার পর থেকেই বিভিন্ন নেতাকর্মী সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেইসবুকে ঝড় তুলেছে সরিষাবাড়ীর ফেইসবুক ব্যবহারকারীরা । সরিষাবাড়ীতে লাঙ্গল নয় , নৌকা চাই বলে খোলা চিঠিতে প্রধানমন্ত্রীর দৃষ্টি আকর্ষন করেছে সাধারন ভোটার,আওয়ামীলীগের
নেতাকর্মীরা। ইতিমধ্যে অধ্যক্ষ আব্দুর রশীদ এর মনোনয়নের জন্য উপজেলার বিভিন্ন মসজিদে মিলাদ ও দোয়া মাহফিল করেছে স্থানীয় জনগন। বর্তমান এলাকায়
তার জনমত তুঙ্গে । তিনিই নৌকা প্রতিক নিয়ে সরিষাবাড়ী মানুষের মুখে হাসি ফুটাবে বলে আশা করছে ভোটাররা। ফেইসবুকে দেওয়া স্টেটাস হুবুহু-

“সরিষাবাড়ীর নৌকাপ্রেমী লাখো মানুষের কান্না” মানবতার মা, মাননীয় প্রধানমন্ত্রী,দেশরত্ন জননেত্রী শেখ হাসিনার সমীপে নৌকার দাবিতে খোলা চিঠি…

কেন অধ্যক্ষ মো: আবদুর রশীদকে মনোনয়ন দেয়া প্রয়োজন? এই প্রেক্ষাপটে যৌক্তিক বিশ্লেষণ

ব্যক্তিগত কারণ:
ব্যক্তিগত জীবনে নির্লোভ নির্মোহ এই ব্যক্তিত্ব সততার অনন্য দৃষ্টান্ত। সারা জীবন নিরলসভাবে শুধু মানুষের জন্য কাজ করে গেছেন। ব্যক্তি জীবনে তিনি একজন ‘ভালো মানুষ’ খেতাবে সরিষাবাড়ীর মানুষের অন্তরে
জায়গা করে নিয়েছেন। সৎ চরিত্রবান, আদর্শ ব্যক্তিত্ব হিসেবেই যিনি সবার মাঝে পরিচিতি লাভ করেছেন। তার রয়েছে অসাধারণ আকর্ষণীয় ব্যক্তিত্ব। দীর্ঘদিনের শিক্ষকতা জীবনে তিনি তার সহকর্মীদের সাথে গড়ে তুলেছেন
অনিন্দ্য সুন্দর ভালোবাসার সেতুবন্ধন। প্রিয় কর্মস্থল তেজগাঁও কলেজকে তিনি উন্নীত করেছেন দেশের সর্বোচ্চ বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয়গুলোর মধ্যে শীর্ষস্থানীয় মর্যাদায়।

পারিবারিক কারণ :

অধ্যক্ষ মোঃ আবদুর রশীদ এবং তার পরিবার দীর্ঘদিন ধরে আওয়ামী রাজনীতির সাথে একনিষ্ঠভাবে জড়িত। দলকে ভালবাসার কারণে অনেক কিছুই বিসর্জন দিতে
হয়েছিল এই পরিবারটিকে। ভাই বোনের মধ্যে সবাই এলাকায় প্রতিষ্ঠিত এবং বিপুল সংখ্যক আত্মীয় স্বজন সবাই আওয়ামী রাজনীতির সাথে দীর্ঘদিন যাবৎ জড়িত। এই মানুষটি রাজধানীর প্রাণকেন্দ্র তেজগাঁও থানার সভাপতি হিসেবে দায়িত্ব পালন করে আসছেন। এছাড়া জামালপুর জেলা আওয়ামী লীগের সদস্য পদের পাশাপাশি নিজ নির্বাচনী এলাকা সরিষাবাড়ী উপজেলা আওয়ামী লীগের সিনিয়র সহ-সভাপতি হিসেবে
দূরদর্শিতার সাথে দায়িত্ব পালন করে আসছেন। এছাড়া তার ছোট ভাই উপাধ্যক্ষ মো. হারুন-অর-রশিদ সরিষাবাড়ী উপজেলা আওয়ামীলীগের সাধারন সম্পাদক হিসেবে নিষ্ঠার সাথে দায়িত্ব পালন করে আসছেন।

সামাজিক কারণ:

অধ্যক্ষ মোঃ আবদুর রশীদ যিনি তার ব্যক্তি জীবনে কখনোই নিজের স্বার্থকে অন্যের স্বার্থ থেকে বড় করে দেখেননি। তিনি নিজ নির্বাচনী এলাকায় প্রায়
৬০০ লোকের চাকরী দিয়েছেন যা প্রতিটি গ্রামে ৩টি পরিবার । বর্তমানে প্রায় ৮০০ ছেলেমেয়ে তেজগাঁও কলেজে পড়ছে যা প্রতিটি গ্রামে ৪ টি পরিবার। বিগত
সময়ে এই কলেজ থেকে পাশ করে গেছে প্রায় ১০ হাজার যা প্রতিটি গ্রামে ৫০ টি পরিবার। নিজে শিক্ষক নেতা হবার কারনে উপজেলার প্রায় ২০০০ শিক্ষকের সাথে সবসময় জড়িত।এছাড়াও বিভিন্ন কর্মজীবী ও পেশাজীবীদের সমর্থনও তার প্রতি রয়েছে। মুক্তিযোদ্ধাদের প্রায় ৮০ % এর অকুন্ঠ সমর্থন রয়েছে। সরিষাবাড়ীর
বিভিন্ন জায়গায় নারীদের নিয়ে সমাবেশ করার কারনে নারী ভোটারদেরও আস্থা অর্জন করেছেন। ঢাকাস্থ সরিষাবাড়ীর কয়েক হাজার মানুষের আশ্রয়স্থলে পরিণত
হয়েছেন তিনি। শুধু সরিষাবাড়ি নয়,বাংলাদেশের অগণিত দরিদ্র শিক্ষার্থীদের বিনে পয়সায় উচ্চশিক্ষায় শিক্ষিত হওয়ার সুযোগ করে দিয়েছেন মহৎ হৃদয়ের এই মানুষটি।

রাজনৈতিক কারণ :

শুধুমাত্র আওয়ামী লীগ করার অপরাধে বিএনপি সন্ত্রাসীদের দ্বারা অসংখ্য বার নির্যাতিত হয়েছেন। মৃত্যুর দ্বারপ্রান্ত থেকে বেঁচে এসেছেন বারবার। আওয়ামী লীগ করার অপরাধে তেজগাঁও কলেজ থেকে চাকুরিচ্যুত হয়ে দীর্ঘদিন কষ্টের সাথে দিনযাপন করেছেন। এতটা নির্যাতিত হওয়ার পরও পরম মমতায় দলকে ভালোবেসে দলের অবস্থানকে সুগঠিত করেছেন। উপজেলার সকল চেয়ারম্যান-মেম্বার, পৌরসভার মেয়র-কমিশনারগণ, ওয়ার্ড কমিটি থেকে শুরু করে ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের
সভাপতি-সাধারণ সম্পাদকবৃন্দ, জেলা পরিষদ সদস্যবৃন্দ, উপজেলা আওয়ামী লীগের সিংহভাগ নেতারা ঐক্যবদ্ধ হয়ে নৌকার পক্ষে অধ্যক্ষ মোঃ আবদুর রশীদকে সমর্থন দিয়েছেন, সরিষাবাড়ীর ইতিহাসে যা বিরল। সরিষাবাড়ী আওয়ামী লীগের একজন সিনিয়র নেতা হিসেবে তিনি এ আসনটিকে নিজের সন্তাানের মত লালন পালন করেছেন, যেখানে বিনা যুদ্ধে বিজয় এনে সরিষাবাড়ীর মানুষ উপহার হিসেবে জননেত্রী শেখ হাসিনাকে এই আসনটি উৎসর্গ করতে পারেন। সরিষাবাড়ীর নৌকা পাগল সাধারণ মানুষগুলি বিশ্বাস করেন, এই মানুষটিকে ১৪১, জামালপুর-৪ সরিষাবাড়ী
আসনের দায়িত্বে আনলেই তারা নিরাপদে থাকবে এবং অধিকার আদায়ের পথ সুগম হবে।

পরিশেষে মাননীয় প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনার নিকট আকুল আবেদন, সরিষাবাড়ীর মানুষের ভাগ্য উন্নয়নে অধ্যক্ষ মো: আবদুর রশীদকে নৌকা প্রতীকে
মনোনয়ন দিয়ে সরিষাবাড়ীর নৌকাপ্রেমী সাধারণ মানুষের মুখে হাসি ফুটাবেন-এই আমাদের প্রত্যাশা।

জয় বাংলা জয় বঙ্গবন্ধু
ইতি
নৌকাপ্রেমী সরিষাবাড়ীর জনগন

Top