আমাদের কে বাঁচতে দিন–হাসান মাহমুদ

46492412_345772722667705_35753292046794752_n-r.jpg

—————————–
উঠতে,বসতে,হাঁটতে,পড়তে,শুয়ে,খেতে,ওয়াশরুমে, টয়লেটে যে অবস্থায় থাকিনা কেন চারপাশ থেকে একসাথে শত শত মশা সারা শরীরে ঘিরে ধরে| রক্তে রক্তাত্ব হয়ে যায় হাত থেকে শুরু করে শরীরের পোশাক পড়ার পরে যে টুকু জায়গা উন্মুক্ত থাকে সব জায়গা |এমনকি পোষাকের উপরে থেকে ও কামড়ে ধরে থাকে| আর এমন মশা যে মরবে তবু সরবে না, যেন জান দিবে তো রক্ত খাওন ছাড়বে না| এমন ই অবস্থা ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের হল গুলোর| প্রশাসন এ বিষয়ে খুবই সামান্য তৎপর| নিয়মিত মশার ঔষধ ছিটাচ্ছেন না |অনেক হলে শুধুমাত্র হলের মাঠে ছিটিয়েই চলে যাচ্ছেন, রুমে দিচ্ছেন না |আবার অনেক হলের পাশে পানি চলাচলের জন্য যে ড্রেনগুলো রয়েছে তা নিয়মিত পরিষ্কার করা হয়না, নোংরা এবং পানি বদ্ধ থাকায় মশার ক্রমশ বংশ বিস্তার ঘটে চলেছে| প্রতিদিন বহু শিক্ষার্থী ডেঙ্গুতে আক্রান্ত হচ্ছে |তাই আমাদের বাঁচাতে দ্রুত কার্যকর ব্যবস্থা নিন|

লেখকঃ মুহাম্মদ হাসান মাহমুদ
শিক্ষার্থী,দর্শন বিভাগ ,ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়

Top