কমলের মনোনয়ন চূড়ান্ত হওয়াতে কচ্ছপিয়া নেতা কর্মীদের আনন্দ মিছিল

46494426_2192580137665825_3608193053182918656_n.jpg

মোঃসাইদুজ্জামান সাঈদ, রামু :

একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে কক্সবাজার-৩ (সদর-রামু) আসনে বাংলাদেশ আওয়ামীলীগের চূড়ান্ত মনোনয়ন পাচ্ছেন জননন্দিত নেতা সংসদ সদস্য আলহাজ সাইমুম সরওয়ার কমল। সোমবার (১৯ নভেম্বর) বিভিন্ন জাতীয় গণমাধ্যমে এখবর ছড়িয়ে পড়ার পর উৎসব মুখর হয়ে উঠেছে কক্সবাজার সদর ও রামু উপজেলার কচ্ছপিয়া তৃণমূল জনপদ। সকল জল্পনা-কল্পনার অবসার ঘটিয়ে কমলের মনোনয়ন পাওয়ার আনন্দে ভাসছে সাগর পাড়ের লাখ লাখ জনতা। এ রামু উপজেলার ১১টি ইউনিয়নে আওয়ামীলীগ ও অঙ্গসংগঠনের নেতৃবৃন্দ ছাড়াও সর্বস্তুরের জনতা আনন্দ মিছিল এবং মিষ্টি বিতরণ করেছে।
এ আসনের মনোনয়ন প্রত্যাশী কক্সবাজার জেলা বঙ্গবন্ধু সাংস্কৃতিক জোটে সভাপতি নীলিমার আক্তার চৌধুরী জানিয়েছেন,আসনটি জেলাবাসীর জন্য মর্যাদার। নেত্রী এ আসনে যাকে মনোনয়ন দেবেন তার পক্ষেই তিনি সহ দলের নেতাকর্মীরা ঐক্যবদ্ধ হয়ে কাজ করবে।
তিনি আরো জানান, সাইমুম সরওয়ার কমল বিগত ৫ বছরে কক্সবাজার সদর ও রামু উপজেলায় ব্যাপক উন্নয়ন কর্মকান্ড বাস্তবায়ন করেছেন। তিনি সবসময় মাঠে-ময়দানে মানুষের জন্য কাজ করে গেছেন। যে কারনে অনেক মনোনয়ন প্রত্যাশীর ভীড়ে কমল আবারো যোগ্য হিসেবে নিজেকে প্রমাণে সক্ষম হয়েছেন। কমলের মনোনয়ন পাওয়ার খবরে রামুর প্রত্যেক ইউনিয়ন এবং বিভিন্ন গ্রামে মিষ্টি বিতরণ করা হয়েছে বলে জানান তিনি।
সোমবার সকালের বিভিন্ন জাতীয় দৈনিক সংবাদপত্র এবং বিভিন্ন সূত্রে সাংসদ কমলের মনোনয়ন পাওয়ার খবর বিভিন্ন এলাকায় ছড়িয়ে পড়ে। এসময় উল্লাসিত লোকজন একে অপরকে মিষ্টিমুখ করিয়ে আনন্দ ভাগাভাগি করেন।
এদিকে কমলের মনোনয়ন পাওয়ার খবরে রামু উপজেলার কচ্ছপিয়াতে গ্রামগুলো ছিলো উৎসবে মুখরিত। কাংখিত এ খবরে অনেক এলাকায় জনতা রাস্তায় নেমে পড়ে। সকালে থেকে বিভিন্ন গ্রামে মিষ্টি বিতরণ করে উল্লাস প্রকাশ করে জনতা। সন্ধ্যায় গর্জনিয়া বাজার থেকে আওয়ামীলীগ ও অঙ্গসংগঠনের নেতৃবৃন্দ একটি আনন্দ মিছিল বের করে। মিছিলে অংশ নেন সর্বস্তুরের হাজারো জনতা।
আনন্দ মিছিল শেষে গর্জনিয়া বাজার মসজিদ মার্কেটে চত্বরে আয়োজিত সংক্ষিপ্ত পথসভায় সভাপতিত্ব করেন কচ্ছপিয়া ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান আবু মোঃইসমাঈল নোমান। সভায় বক্তব্য রাখেন,নজরুল মেম্বার সভাপতি,যুবলীগ কচ্ছপিয়া,নাছির উদ্দিন সোহেল সিকদার সাধারণ সম্পাদক,যুবলীগ নেতা এম সেলিম,কচ্ছপিয়া শ্রমিক লীগ সভাপতি আবু তালেব সিকদার,কচ্ছপিয়া কৃষকলীগ সভাপতি হানিফ ভুট্রোু,সাধারণ সম্পাদক আবু ঈশা, সাংগঠনিক সম্পাদক কলিম উল্লাহ মোঃসোহেল,উপজেলা ছাত্র লীগ নেতা আবু নোমান বাপ্পি,কচ্ছপিয়া ছাত্র লীগ সাধারণ সম্পাদক লবা কর্মকার,সাংগঠনিক আনিসুর রহমান,নেতা মেহেদী,বঙ্গবন্ধু ছাত্র পরিষদ সাধারণ সম্পাদক ফারুক চৌঃ,নেতা মোবারক,শাহেদাত, প্রমূখ।
বক্তারা বলেন, সাংসদ কমল মাঠের পরীক্ষিত নেতা। তা আবারো প্রমাণ হলো। এ খবরে নৌকা প্রতীকের গণজোয়ার আরো ত্বরান্বিত হয়েছে। কমলের নেতৃত্বে কক্সবাজার সদর-রামুতে উন্নয়নের নব দিগন্ত সূচিত হয়েছে। বন্যা-ঘূর্ণিঝড় সহ প্রাকৃতিক সকল দূর্যোগে এমপি কমলের ভূমিকা মানুষ ভুলেনি। সড়ক-সেতু নির্মাণের মাধ্যমে উন্নত যাতায়াত ব্যবস্থা, শিক্ষা ব্যবস্থায় অভূতপূর্ব উন্নয়ন সহ জনতার যে কোন প্রয়োজনে সাইমুম সরওয়ার কমলই হলেন নিবেদিতপ্রাণ।
রামু উপজেলার কচ্ছপিয়া ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান আবু মোঃইসমাঈল নোমান জানান, ওই এলাকাটি একসময় আওয়ামীলীগ বিদ্বেষী হিসেবে পরিচিত ছিলো। দীর্ঘদিন এলাকায় জনসম্পৃক্ততা আর উন্নয়ন কর্মকান্ডের কারনে এখানকার মানুষ কমলকে জয়ী করার জন্য উন্মুখ ছিলো। তাই কমলের মনোনয়ন চূড়ান্ত হওয়ার খবরে ইউনিয়নের সর্বস্তুরের মানুষ মিষ্টি বিতরণ ও আন্দন মিছিল করেছে।
এই নিউজ টা কষ্ঠ করে দেন না বস

Top