চট্টগ্রামে ডিবি পুলিশের খাঁচায় রপ্তানিকৃত পোশাক চোর গ্রেফতার:

received_257874808237810.jpeg

প্রেস বিজ্ঞপ্তিঃ

অভিনব পদ্ধতিতে কাভার্ড ভ্যান হতে বিদেশে রপ্তানিকৃত পোশাক চুরির ঘটনায় দুজনকে গ্রেফতার করেছে মহানগর ডিবি পুলিশ।

গত রাত ২টায় নগরীর বন্দর থানা এলাকা হতে তাদের গ্রেপ্তার করা হয়।

গ্রেফতারকৃত আসামিরা হলেন ১। মোঃ কাশেম (৪৩), পিতা-মৃত আব্দুল মজিদ, মাতা-জাহানারা বেগম,গ্রাম-থিরোপাড়া, থানা-নড়িয়া, জেলা-শরিয়তপুর। বর্তমানে চট্টগ্রাম পাহাড়তলি এলাকার রোকেয়া ভিলা ২য় তলা, শাপলা আবাসিক এলাকায় বসবাস করে। ২। মোঃ রাশেদ (২৮), পিতা-মোঃ আব্দুল লতিফ, মাতা-আছিয়া বেগম গ্রাম-আগ্রাবাদ হাজিপাড়া, ইসহাক এমপি রোড, নজুমিয়া সওদাগরের বাড়ী, থানা-ডবলমুরিং জেলা-চট্টগ্রাম।

অভিযানে মহানগর গোয়েন্দা বিভাগের সিনিয়র সহকারী পুলিশ কমিশনার (ডিবি-পশ্চিম) মোহাম্মদ মঈনুল ইসলাম এর নেতৃত্বে পুলিশ পরিদর্শক মোঃ মোস্তাফিজুর রহমান চৌধুরী, এসআই মোঃ মিজানুর রহমান, এসআই মোজাম্মেল হোসেন, এসআই মোঃ কামরুজ্জামান, এসআই মোঃ জুয়েল চৌধুরী, এএসআই জুলফিকার হোসেন ও সঙ্গীয় ফোর্স ঘটনার সহিত জড়িত দুই আসামীকে গ্রেফতার করতে সক্ষম হন।

পরে তাদের স্বীকারোক্তির ভিত্তিতে বন্দর থানাধীন ২নং মাইলের মাথায় এন.এন এক্সপ্রেস নামক ডমেস্টিক কুরিয়ার সার্ভিস হতে এজাহারে উল্লেখিত চোরাই পণ্য হতে ১৯শত সেট তৈরি পোষাক উদ্ধার করা হয়।

ঘটনাসুত্রে জানা যায়, গত ১১ নভেম্বর রপ্তানি মুখী তৈরী পোষাক প্রতিষ্ঠান ঢাকা সাভারের জে.কে.নীট কম্পোজিট দরিয়ানগর ২৪,৬৪০ সেট তৈরী পোশাক বিদেশে রপ্তানীর উদ্দেশ্যে চট্টগ্রাম বন্দরে জাহাজীকরণের জন্য কাভার্ড ভ্যান ঢাকা মেট্টো-ট-১১-৪৭৫৮ গাড়ীতে করে চট্টগ্রাম আনার পথে কাভার্ড ভ্যানের চালক ফটিকছড়ির অাব্দুল করিমের পুত্র মোঃ টিপু সুলতান (২২) তার সহযোগীদের মাধ্যমে গাড়িতে থাকা মালামাল হতে কৌশলে ৪হাজার ৫৬৮টি তৈরি পোশাক সেট চুরি করে।

পরবর্তীতে ড্রাইভার বাকী মালামাল গুলো সীতাকুন্ড থানাধীন বিএম গেইট নামীয় স্থানে আনলোড করে ট্রাকটি মালিকের অগোচরে চট্টগ্রাম বন্দরস্থ নিমতলা ট্রাক টার্মিনালে ফেলে পালিয়ে যায়।

পরে মালামাল গুলো জাহাজে বোঝাই করার সময় পরিমাণে কম বলে সন্দেহ হওয়ায় তা পুনরায় গোনা হয় এবং বর্ণিত পরিমান মালামাল কম পেয়ে ড্রাইভারকে খোঁজাখুজি করা হয় কিন্তু তাকে পাওয়া যায় নাই।

মালামাল গুলো যথা সময়ে রপ্তানী না করায় জে.কে.নীট কম্পোজিট বিপুল পরিমান আর্থিক ক্ষতির সম্মুখিন হয় এবং বিদেশে বাংলাদেশের তৈরী পোষাক রপ্তানীর ভাবমূর্তি দারুন ভাবে ক্ষুন্ন হওয়ায় কোম্পানীর পক্ষে হাবিবুর রহমান আসামীদের বিরুদ্ধে বন্দর থানায় ৪০৭/৩৪ দন্ডবিধি অপরাধে যার মামলা নং-২১।

Top