কর্ণফুলীর অর্ধশতাধিক বিএনপি নেতাকর্মীকে জামিন দিয়েছে হাইকোর্ট

images-3-1.jpg

জে.জাহেদ,চট্টগ্রাম ব্যুরো:

সিএমপির কর্ণফুলী থানায় নাশকতার অভিযোগ ও বিশেষ ক্ষমতা আইনে দায়ের করা ১০ (দশ) মামলায় কর্ণফুলী উপজেলা বিএনপির শতাধিক নেতাকর্মীকে আগাম জামিন দিয়েছেন হাইকোর্ট।

বৃহস্পতিবার (১৫ নভেম্বর) হাইকোর্টের বিচারপতি মোহাম্মদ রেজাউল হক ও বিচারপতি জাফর আহমেদ এর সমন্বয়ে গঠিত বে এই আদেশ দেন।

আদালতে উল্লেখিত আসামিদের পক্ষে মামলা শুনানি করেন অ্যাডভোকেট মোহাম্মদ বেলায়েত হোসাইন।

বিএনপি নেতাকর্মীদের জামিনের বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন চট্টগ্রাম দক্ষিণ জেলা বিএনপির সভাপতি সাবেক বন ও পরিবেশ প্রতিমন্ত্রী আলহাজ্ব জাফরুল ইসলাম চৌধুরী ও চরপাথরঘাটা ইউনিয়নের বিএনপি নেতা এম মঈন উদ্দীন।

জামিনপ্রাপ্তদের মধ্যে রয়েছেন, দক্ষিণ জেলার বিএনপি নেতা মোঃ আলী আব্বাস, এম মঈন উদ্দীন, এসএম মামুন, মোঃ হারুন, মির্জা বাহার, মির্জা ইসমাইল, কালা মিয়া প্রকাশ কালু মেম্বার, সালেহ জহুর, দস্তগীর, ইকবাল বাহার, মোঃ জসিম উদ্দীন জুয়েল, মোঃ ইদ্রিস হায়দার, মোঃ হাসেম, এজাবেত উল্লাহ, রমজান আলী রুমো, হারুনুর রশিদ কাঁকন, মো নাছির, আব্দুর রহিম, জাকির হোসাইন, মোঃ কায়সার, মোঃ সিরাজ, তৈয়ব আলী, জসিম উদ্দীন, আবুল কালাম, মোঃ আলী আজম, মোঃ সেলিম, হাজী আব্দুর রাজ্জাক, মোঃ নুরুচ্ছাফা, খাইরুল ইসলাম, আবু তাহের, আংকুর মেম্বার, মোঃ রিফাত, শেখ আহমেদ মেম্বার, সাইয়েদ হোসাইন, সালা উদ্দীন, আব্দুল গফুর মেম্বার, মোঃ ইলিয়াছ মেম্বার, গিয়াস উদ্দীন ফারুকী ফয়সাল, আবছার উদ্দীন, মোঃ আলী আজম, এটিএম হানিফ, মোঃ ওসমান, মোঃ সালাহ্ উদ্দীন, আব্দুর নুর, এহসানুল হক, তৈয়বুল আলম বাবুল, মোঃ নাছির উদ্দিন সহ ৫১ জনের ৮ (আট) সপ্তাহের জামিন মঞ্জুর করে উচ্চ আদালত।

তথ্যমতে, গত অক্টোবর ও নভেম্বর মাসে বিএনপি-জামায়াতের ২৭৮জন নেতাকর্মীর নাম উল্লেখ করে এবং অজ্ঞতনামা আরও কয়েক শতাধিক জনকে আসামি করে নাশকতার অভিযোগে কর্ণফুলী থানা পর পর ১০টি মামলা দায়ের করেন। বৃহস্পতিবার হাইকোর্টের ১৬নং আদালতের এক আদেশে উল্লেখিত আসামিরা জামিন লাভ করেন এবং আসামিদের হয়রানি না করতে অ্যাডভোকেট মোহাম্মদ বেলায়েত হোসাইন স্বাক্ষরিত এক লয়ার সার্টিফিকেট প্রদান করেন।

Top