১৮ বছরের ক্ষুধা মিটাতে চায় জিম্বাবুয়ে।

45775910_551084452028509_3423475408954195968_n.jpg

মোঃ ছৈয়দুল বাশার ফাহিম।
এক ম্যাচ জিতে সিরিজে এগিয়ে যাওয়া জিম্বাবুয়ে যেকোনোভাবেই বাংলাদশকে টেস্ট সিরিজে হারাতে চায়।
১৮ বছর পর বিদেশের মাটিতে জিম্বাবুয়ের প্রথম টেস্ট জয়
বাংলাদেশের এখন এই সিরিজ জেতার আর কোনো সুযোগ নেই। তবে জিম্বাবুয়ের জন্য থাকছে দুটি সম্ভাবনা- ট্রফি জেতা অথবা ড্র। অপেক্ষাকৃত বেশি শক্তিশালী বাংলাদেশের বিপক্ষে জিম্বাবুয়ের একটি জয়ই অনেক স্বস্তির।তবে দলটি নিজেদের সর্বোচ্চ চেষ্টার মাধ্যমে ঢাকা টেস্টেও টাইগারদের হারিয়ে জিততে চায় সিরিজ।এটি জানিয়ে শুক্রবার জিম্বাবুয়ের ক্রিকেটার পিটার মুর বলেন, ‘সিলেট টেস্ট জয়ের পর সিরিজ জেতার জন্য যা করণীয়, তাই করব আমরা। প্রথম টেস্ট আমাদের জন্য ছিল একটি স্মরণীয় জয়। আমি ছাড়াও আমাদের দলের আরো সাতজনের এটা ছিল প্রথম টেস্ট জয়।সিলেট টেস্টে পাওয়া জয় জিম্বাবুয়ে ক্রিকেট এবং ক্রিকেটারদের জন্য বিশেষ কিছু। বিশেষ করে দীর্ঘদিন ধরে টেস্ট ক্রিকেটে ফর্মে না থাকা দলটি ছন্দ খুঁজে পেয়েছে এই জয়ে। মুর বলেন, ‘সবার জন্যই জয়টি বিশেষ কিছু। এবার বিদেশের মাটিতে টেস্ট সিরিজ জয় করে আরো বড় মুহূর্তের জন্ম দিতে চাই আমরা।যদিও দুটি ম্যাচ জিতেই সিরিজ নিশ্চিত করা সহজ হবে না, এটি ভালো করেই জানেন মুর। তার ভাষ্য, ‘মিরপুরের অনিশ্চয়তায় ভরা উইকেট আর জয়ের জন্য ক্ষুধার্ত বাংলাদেশের বিপক্ষে আমাদের কাজটা সহজ হবে না। যদিও আমরা কঠিন লড়াইয়ের জন্য মানসিকভাবে প্রস্তুত।’
সিরিজে এগিয়ে থাকা জিম্বাবুয়ে দল নতুন ভেন্যুতে খেলার আগে বেশ ভালোই আছে। মুর বলেন, ‘পুরো দলই খুব ভালো অবস্থায় আছি। আমরা জানি, আমাদের সামনে খুবই কঠিন একটা ম্যাচ অপেক্ষা করে আছে। সিলেটের চেয়ে এখানকার উইকেটও ভিন্ন থাকবে বলে মনে হচ্ছে। আর সিরিজে হার এড়ানোর জন্য মরিয়া থাকবে স্বাগতিকরাও। কেননা এ টেস্টে অনেক কিছু প্রমাণ করার আছে স্বাগতিকদের। আমি মনে করি, আমাদের জন্য সামনের কয়েকটা দিন খুবই কঠিন হবে। তবে চ্যালেঞ্জ নিতে আমাদের দলের সবাই প্রস্তুত।

Top